১১ ঘণ্টা আগের আপডেট

ইন্টারনেটের বিকল্প তৈরি করছে চীন-রাশিয়া

অনলাইন ডেস্ক ৬:৩০ অপরাহ্ণ, জুলাই ৫, ২০১৮

বর্তমানে বিশ্বে যে ইন্টারনেট ব্যবস্থা প্রচলিত রয়েছে তা মূলত মার্কিন কম্পিউটার সার্ভারের একটি নেটওয়ার্ক, যেখানে পরবর্তীতে সারা বিশ্ব যুক্ত হয়েছে। এ নেটওয়ার্কের ওপর সর্বদা যুক্তরাষ্ট্রের প্রভাব রয়েছে। তবে রাশিয়া ও চীন এই নেটওয়ার্ককে (ইন্টারনেটকে) কখনোই পুরোপুরি বিশ্বাস করেনি। আর এবার মার্কিন প্রভাব থেকে বেরিয়ে নিজেদের ব্যবহারের জন্য ‘বিকল্প ইন্টারনেট’ তৈরি করতে যাচ্ছে রাশিয়া ও চীন।

বিকল্প ইন্টারনেট তৈরি হলে মার্কিন প্রভাব থাকবে না। এর সার্ভারগুলোও যুক্তরাষ্ট্রে স্থাপিত হবে না। রাশিয়া সরকার ও চীন সরকারের মধ্যে এ বিষয়ে আলোচনা চূড়ান্ত হয়েছে।

বিকল্প ইন্টারনেটের মূল যে কাজ সেই রুট নেম সার্ভার রাশিয়া তৈরি করছে। আর রাশিয়ার নিজস্ব সেই কাজে চীন সব রকম সহায়তা করছে। এ কাজে চীনের বিখ্যাত ফায়ারওয়ালের জনক ফ্যান বিংজিংয়ের উদ্ভাবিত প্রযুক্তির ওপর কাজ করা হচ্ছে।

বর্তমানে রাশিয়ার ভেতরে একটি নেটওয়ার্ক রয়েছে, যা দেশটির সরকারি কর্মকর্তা ও গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিরা ব্যবহার করে।

রাশিয়া ও চীন পরিকল্পনা করেছে, তারা নিজেরাই শুধু এ ইন্টারনেট ব্যবস্থা ব্যবহার করবে না। পরবর্তীতে তারা ব্রিক্সভুক্ত দেশ ব্রাজিল, রাশিয়া, ভারত, চীন ও দক্ষিণ আফ্রিকাকেও ব্যবহার করতে দেবে। এরপর তা অন্যান্য দেশেও ছড়িয়ে দেওয়া হতে পারে। সে পর্যায়ে এটি বর্তমান ইন্টারনেট ব্যবস্থার বিকল্প হয়ে উঠবে।

পাঠকের মন্তব্য

সম্পাদক: হাসিবুল ইসলাম
বার্তা সমন্বয়ক : তন্ময় তপু
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মো. শামীম
প্রকাশক: তারিকুল ইসলাম

নীলাব ভবন (নিচ তলা), দক্ষিণাঞ্চল গলি,
বিবির পুকুরের পশ্চিম পাড়, বরিশাল- ৮২০০।
ফোন: ০৪৩১-৬৪৮০৭, মোবাইল: ০১৭১১-৫৮৬৯৪০
ই-মেইল: [email protected], [email protected]
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত বরিশালটাইমস

rss goolge-plus twitter facebook
TECHNOLOGY:
টপ
  বরিশাল আঞ্চলিক অফিসেই মিলবে হারানো জাতীয় পরিচয়পত্র  বরিশালের সন্তান ডিআইজি মিজান সাময়িক বরখাস্ত  পোষা কুকুরকে মুখ বেঁধে ধর্ষণ করল মালিক!  আম খেলেই পুত্রসন্তান!  বরগুনায় ইয়াবাসহ যুবক আটক  সৌদি আরবে বাংলাদেশি হজযাত্রীর মৃত্যু  অপরিষ্কার দাঁতে ব্রেন স্ট্রোক ঝুঁকি!  মুক্তিযোদ্ধার স্বীকৃতি পেলেন আরও ৩৮ বীরাঙ্গনা  অস্তিত্বের সংকটে চীনা মুসলিমরা  জাপানে তীব্র তাপদাহ, ১৪ জনের প্রাণহানি