৪০ মিনিট আগের আপডেট সন্ধ্যা ৬:৫২ ; বৃহস্পতিবার ; জানুয়ারি ২৪, ২০১৯
EN Download App
Youtube google+ twitter facebook
×

দেশের মানুষ গুম ও হত্যা থেকে মুক্তি চায় : জাপা মহাসচিব

বরিশাল টাইমস রিপোর্ট
৪:৪৮ অপরাহ্ণ, আগস্ট ৯, ২০১৮

দেশের মানুষ গুম, হত্যা, নির্যাতন, চাঁদাবাজি ও টেন্ডারবাজি থেকে মুক্তি চায় বলে মন্তব্য করেছেন জাতীয় পার্টির মহাসচিব এবিএম রুহুল আমিন হাওলাদার।

বৃহস্পতিবার (৯ আগস্ট) সকালে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যানের বনানী অফিসে জাতীয় পার্টির (জেপি) সাংগঠনিক সম্পাদক আলহাজ্জ নজরুল ইসলামের জাতীয় পার্টিতে যোগদান অনুষ্ঠানে জাপা মহাসচিব এ মন্তব্য করেন।

জাতীয় পার্টির মহাসচিব বলেন- আওয়ামী লীগ ও বিএনপির সাতাশ বছরের শাসনামলে দেশের মানুষ ক্ষত-বিক্ষত। দু’টি দলের অপরাজনীতিতে দেশে সামাজিক ও রাজনৈতিক অবক্ষয় সৃষ্টি হয়েছে। গুম, হত্যা, নির্যাতন, চাঁদাবাজি ও টেন্ডারবাজি থেকে মুক্তি চায় দেশের মানুষ। দেশের মানুষ ফিরে যেতে চায় পল্লিবন্ধু হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদের শাসনামলে। শুধু এরশাদের শাসনামলই দেশের মানুষকে মুক্তি দিতে পারে।

অধ্যাপক মো. জুলফিকার আলীর সভাপতিত্বে যোগদান অনুষ্ঠানে বক্তৃতা করেন জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য আবুল কাশেম, সুনীল শুভ রায়, মেজর (অব.) খালেদ আখতার ও শফিকুল ইসলাম সেন্টু।

আরও উপস্থিত ছিলেন পার্টির ভাইস চেয়াম্যান ইকবাল হোসেন রাজু, যুগ্ম মহাসচিব মোস্তাকুর রহমান মোস্তাক, জহিরুল আলম রুবেল সম্পাদক মণ্ডলীর সদস্য জসিম ভূঁইয়া, মনিরুল ইসলাম মিলন, আমির হোসেন ভূঁইয়া এমপি, ফখরুল আহসান শাহজাদা, মো. হেলাল উদ্দিন, গোলাম মোস্তফা, এমএ রাজ্জাক খান, রেজাউল করিম, কেন্দ্রীয় নেতা ফজলে এলাহী সোহাগ, আবদুস সাত্তার, মিজানুর রহমান দুলাল প্রমুখ।


রাজনীতির খবর

আপনার মতামত লিখুন :

এডিটর ইন চিফ: হাসিবুল ইসলাম
ভুইয়া ভবন (তৃতীয় তলা), ফকির বাড়ি রোড, বরিশাল ৮২০০।
ফোন: ০৪৩১-৬৪৮০৭, মোবাইল: ০১৭১৬-২৭৭৪৯৫
ই-মেইল: barisaltime24@gmail.com, bslhasib@gmail.com
© কপিরাইট বরিশালটাইমস ২০১২-২০১৮
টপ
  নলছিটিতে শিক্ষা অফিসের দুই সহকারীর বিরুদ্ধে দুদকের তদন্ত শুরু  বঙ্গোপসাগরে দুই জাহাজডুবি  আরমান আলিফের ‘শূন্যতা’  মা-বাবার খোঁজে সুইজারল্যান্ড থেকে বাংলাদেশে খোদেজা  হিন্দু-মুসলিম বিয়ে অবৈধ কিন্তু সন্তান বৈধ  বাবাকে পিটিয়ে হত্যা করল ছয় ছেলে  গরুর পাঁচ পা!  জেনে নিন আপনার হ্যান্ডসেট বৈধ কি না  মাছ মাংসে বিষ, প্রমাণ মিলেছে  বিশ্ব ইজতেমা ১৫ থেকে ১৭ ফেব্রুয়ারি