বরগুনায় তোপের মুখে ‍ইউএনও! | বরিশালটাইমস
৯ ঘণ্টা আগের আপডেট সকাল ৯:৪৯ ; শুক্রবার ; ফেব্রুয়ারি ২২, ২০১৯
EN Download App
Youtube google+ twitter facebook
×

বরগুনায় তোপের মুখে ‍ইউএনও!

বরিশাল টাইমস রিপোর্ট
৯:৪৫ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ৯, ২০১৮

বরগুনার পাথরঘাটা উপজেলার বাইনচটকী ফেরিঘাটে নির্দিষ্ট সময়ের ৩৫ মিনিট দেরিতে পৌঁছান বামনা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) জেবুন নাহার। এ ঘটনায় ফেরিতে থাকা বাসযাত্রীরা তার কাছে দেরিতে আসার কারণ জানতে চাইলে তিনি ক্ষিপ্ত হয়ে ওই যাত্রীদের মোবাইল কোর্টে সাজা দেওয়ার হুমকি দেন। পরে নির্বাহী কর্মকর্তা ফেরির যাত্রীদের তোপের মুখে পড়েন।

রোববার (০৯ সেপ্টেম্বর) বেলা দেড়টার দিকে বরগুনার বড়ইতলা-বাইনচটকী ফেরিঘাটে এই ঘটনা ঘটে।

ফেরিতে কর্মরত নিজাম, রুবেল, আনিচুর রহমানসহ কয়েকজন বাস যাত্রীরা বরিশালটাইমসকে জানান, বামনা উপজেলার নির্বাহী অফিসার জেবুন নাহার বরগুনায় জেলা প্রসাশকের কার্যালয় মিটিংএ যোগ দিতে প্রায়ই এই ফেরি দিয়ে আসা যাওয়া করেন। তিনি এই ফেরিটি পারাপাড়ে নির্দ্দিষ্ট সময়ের ৩০ মিনিট থেকে ৪০ মিনিট প্রায়ই দেরিতে ফেরিতে আসেন। ফলে ফেরি কর্তৃপক্ষ তার জন্য প্রতিবারই অপেক্ষা করে। এতে করে ওই ফেরিতে চলাচলকারী বাস যাত্রী ও এম্বুলেন্সে আসা রোগীরা চরম ভোগান্তিতে পড়ে। ইউএনওর দেরিতে ফেরিতে ওঠায় প্রায়ই ফেরির লোকজনদের সাথে যাত্রীদের ঝগড়া-বিবাদ ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে- রোববার বরগুনায় জেলা প্রশাসক কার্যালয়ে সভা শেষে বেলা দেড়টার দিকে নির্বাহী কর্মকর্তা জেবুন নাহার বামনায় আসার জন্য ফেরি ঘাটে আসেন। অথচ ওই ফেরি ১টায় ছেড়ে যাওয়ার কথা ছিলো। এ সময় যাত্রীরা ইউএনও এর কাছে অনুরোধ করেন পরবর্তীতে যেন এভাবে নির্দ্দিষ্ট সময়ের ফেরি চলাচলে বিঘ্ন না ঘটিয়ে জনগণকে ভোগান্তিতে না রাখেন। এই কথা শোনার পরে ইউএনও ক্ষিপ্ত হয়ে তাকে উপদেশ দেওয়া যাত্রীদের ওপর ভ্রম্যমাণ আদালত বসানো জন্য চেষ্টা চালায়। এ সময় সাথে থাকা ভ্রাম্যমাণ আদালতের বই হাতে নিয়ে গাড়ি থেকে বের হওয়ার চেষ্টা করলে ফেরির মধ্যে শতশত যাত্রীরা ইউএনও’র গাড়িটিকে ঘেরাও করে রাখে। পরে উপস্থিত গণমাধ্যমকর্মীরা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এনে জনরোষ থেকে তাকে উদ্ধার করে নিরাপদে নদী পাড় করে দেয়।

ফেরিতে কর্মরত দেলোয়ার হোসেন বরিশালটাইমসকে জানান- বরগুনা জেলার সকল কর্মকর্তাদের গাড়ি আমরা সব সময় স্পেশাল ফেরিতে পারাপার করি। এতে করে আমাদেরকে কোনো বাড়তি টাকা দিতে হয় না। তারপরও এই বামনার ইউএনও সব সময় ফেরিতে ৩০ থেকে ৪০ মিনিট দেরি করে আসে এতে করে যাত্রী। এবং রোগীদের ভেগান্তির সীমা থাকে না। আজ তিনি ইচ্ছাকৃতভাবে যাত্রীদের সাথে দুর্ব্যবহার করেন।

এ ব্যাপারে বামনার উপজেলা নির্বাহী অফিসার জেবুন নাহার ফেরিঘাটে যাত্রীদের মোবাইল কোর্টে সাজা প্রদানের হুমকির কথা অস্বীকার করে বলেন- আমার সাথে ফেরিতে কারো সাথে কোনো ঘটনা ঘটেনি।’

বরগুনা

আপনার মতামত লিখুন :

এই বিভাগের অারও সংবাদ




ভুইয়া ভবন (তৃতীয় তলা), ফকির বাড়ি রোড, বরিশাল ৮২০০।
ফোন: ০৪৩১-৬৪৮০৭, মোবাইল: ০১৭১৬-২৭৭৪৯৫
ই-মেইল: barisaltime24@gmail.com, bslhasib@gmail.com
© কপিরাইট বরিশালটাইমস ২০১২-২০১৮
টপ
  মামলার রায় বাংলায় লিখুন : প্রধানমন্ত্রী  সরকারপক্ষের লোক অনেক পরিশ্রম করছেন : ড. কামাল  বরিশাল কোস্টগার্ডের যৌথ অভিযানে ৯৫ হাজার মিটার জাল আটক  ওয়াহেদ ম্যানসনে কোনো রাসায়নিক গুদাম নেই: শিল্পমন্ত্রী  ডাক্তার দেখাতে গিয়ে আগুনে পুড়ে মরলেন পটুয়াখালীর এনামুল  সবই পুড়ল, রইল শুধু ‘লা-ইলাহা ইল্লাল্লাহ’!  প্রিয়তমা অন্তঃসত্ত্বা রিয়াকে একা মরতে দেননি রিফাত  বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ে বাঁধনের অফিস উদ্বোধন  মাতৃভাষা দিবসে ইভ্যুলেশন ফর লাইফের শিক্ষা উপকরণ বিতরণ  কেমিক্যাল কারখানা উচ্ছেদ নিয়ে মন্ত্রী-মেয়রের মতের অমিল