৫ ঘণ্টা আগের আপডেট

৩০ জন নারীকে হত্যা করে কেটে খেয়েছে রুশ দম্পতি!

বরিশাল টাইমস রিপোর্ট ১১:২২ অপরাহ্ণ, আগস্ট ১০, ২০১৮

রাশিয়ার নাতালিয়া বাকসশিভা ও তার স্বামী দিমিত্রিকে নরখাদক হিসেবে চিহ্নিত করলো দেশটির মেডিকেল টিম। ২০১৭ সালের অক্টোবর মাসে নরহত্যার দায়ে গ্রেফতার করা হয় নাতালিয়া ও দিমিত্রিকে।

গ্রেফতারের পরেই তাদের মধ্যে কিছু অস্বাভাবিক আচরণ খেয়াল করেন তদন্তকারীরা। তখন মনোবিদদের একটি দলকে নির্দেশ দেওয়া হয় তাদের পরীক্ষা করার জন্য। পরীক্ষার শেষে সেই যুগলকে ‘‌মানসিক বিকারগ্রস্ত নরখাদক’‌ হিসেবে চিহ্নিত করলেন মনোবিদরা। তারা আরও জানিয়েছেন, নাতালিয়া ও দিমিত্রি কমকরে ৩০ জন নারীকে হত্যা করে কেটে খেয়ে ফেলেছে এবং তার জন্য এদের মধ্যে কোনও অনুতাপ বা অনুশোচনা নেই।

৩০ জন নারীকে হত্যা করে খেয়ে ফেললেও পুলিশের সন্দেহের তালিকা থেকে কয়েক যোজন দূরে ছিল বাকসশিভা দম্পতি। এলিনা ভারুশিভা নামে এক তরুণী নিখোঁজ হওয়ার পরে তদন্ত শুরু করেছিল পুলিশ। পরে নাতালিয়াদের বাড়ির পিছনে একটি আবর্জনার স্তূপ থেকে এলিনার মোবাইল ফোনটি খুঁজে পান একদল নির্মাণ কর্মী। তারা সেখানে একটি বাড়ি নির্মাণের কাজ করছিলেন। মোবাইল ফোনটি পুলিশের কাছে জমা দিলে তখন সন্দেহ গিয়ে পড়ে নাতালিয়াদের ওপরে। প্রথমে জেরা করার পরে গ্রেফতার করা হয় নাতালিয়া ও দিমিত্রিকে।

পাঠকের মন্তব্য

সম্পাদক: হাসিবুল ইসলাম
বার্তা সমন্বয়ক : তন্ময় তপু
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : মো. শামীম
প্রকাশক: তারিকুল ইসলাম

নীলাব ভবন (নিচ তলা), দক্ষিণাঞ্চল গলি,
বিবির পুকুরের পশ্চিম পাড়, বরিশাল- ৮২০০।
ফোন: ০৪৩১-৬৪৮০৭, মোবাইল: ০১৭১১-৫৮৬৯৪০
ই-মেইল: [email protected], [email protected]
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত বরিশালটাইমস

rss goolge-plus twitter facebook
TECHNOLOGY:
টপ
  বরিশাল ছাত্রদলের পকেট কমিটি নিয়ে উত্তাপ, বিএনপি কার্যালয়ে তালা  রাজাকারদের কাছে আতঙ্কিত নাম বাবুল  বরগুনার এমপি রিমনের প্রকাশ্য সন্ত্রাস, মারধর করে টাকা ছিনতাই!  ‍উজিরপুরে পাচারকালে ভিজিএফের ১৪০ কেজি চাল উদ্ধার  কারাগারে ঘুরে বেড়াচ্ছে তিন চোখওয়ালা নারী, আতঙ্কে কয়েদিরা  মামুন তসলিমে নাখোশ বরিশাল ছাত্রদল, রাহুমুক্ত হতে চায় নেতাকর্মীরা  ঈদে আসছে বরিশাইল্যা “গুড়াগুড়া”  ঝালকাঠি জেলা প্রশাসকের মোবাইল নম্বর ক্লোন করে টাকা দাবি  বরিশাল ছেড়ে যাওয়া মাইক্রোবাস ঢুকলো দোকানে, স্কুলছাত্রী নিহত  আজান দেয়ার সময় মসজিদেই প্রাণ গেল মুয়াজ্জিনের