৪ ঘণ্টা আগের আপডেট রাত ৯:৪৭ ; শনিবার ; অক্টোবর ১৬, ২০২১
EN Download App
Youtube google+ twitter facebook
×

অতিরিক্ত মদপানে মৃত লাশ ‘গুম’ করে মুক্তপণ দাবি!

আউটপুট এডিটর
৫:০৩ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২২, ২০২১

অতিরিক্ত মদপানে মৃত লাশ ‘গুম’ করে মুক্তপণ দাবি!

নিজস্ব প্রতিবেদক, বরিশাল >> বগুড়ার দুপচাঁচিয়া উপজেলার দুই বন্ধু এক সঙ্গে বসে মাদক সেবন করেছিলেন। সেবন বেশি হয়ে গেলে মারা যান একজন। এই মৃত্যুর দায়ভার এড়াতে লাশ গুম করে অপহরণের নাটক সাজান অপর বন্ধু। কিন্তু রক্ষা হয়নি। পুলিশের হাতে ধরার পরার পর বেড়িয়ে আসে আসল ঘটনা।

গ্রেপ্তারের সেই বন্ধুর নাম হারুন অর রশিদ (৩৪)। তিনি উপজেলার ইসলামপুর খাঁ পাড়ার বাসিন্দা এবং পেশায় অটোরিকশা চালক। মাদক সেবনে মারা যাওয়া তার বন্ধু একই এলাকার কৃষক হুমায়ন কবির (৩৫)।

মঙ্গলবার (২১ সেপ্টেম্বর) সকালে নিজ বাড়ির পাশের ডোবা থেকে হুমায়ুনের লাশ উদ্ধার করা হয়। পরে তথ্য প্রযুক্তির সাহায্যে মঙ্গলবার দিবাগত রাতে হারুনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। গ্রেপ্তারের পর পুলিশের কাছে এসব ঘটনা স্বীকার করেছেন হারুন।

বুধবার (২২ সেপ্টেম্বর) দুপুরে এক সংবাদ সম্মেলনে বগুড়া জেলা পুলিশ সুপার (এসপি) সুদীপ কুমার চক্রবর্ত্তী এসব তথ্য জানান।

এসপি বলেন, শনিবার রাতে বাজারে আড্ডা দেওয়ার কথা বলে বের হন হুমায়ুন কবির। এরপর থেকে নিখোঁজ ছিলেন। পরের দিন রবিবার হুমায়ুনের ব্যবহত মুঠোফোন থেকে তার বাবার কাছে ফোন করে এক লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে অপরিচিত ব্যক্তি। সোমবারেও ফোন করে কয়েক দফায় মুক্তিপণ দাবি করা হয়।

এর মধ্যে গতকাল মঙ্গলবার সকাল ৯টার দিকে হুমায়ুনের নিজ এলাকার একটি ডোবা থেকে তার বস্তাবন্দি লাশ উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনার পর থানা পুলিশ তথ্য প্রযুক্তির সাহায্যে তার বন্ধু হারুনকে মঙ্গলবার দিবাগত রাতে তার নিজ বাড়ি থেকে গ্রেপ্তার করে।

সংবাদ সম্মেলনে হারুনের স্বীকারোক্তির বরাতে পুলিশ জানায়, শনিবার রাতে তারা দুই বন্ধু তার অটোরিকশায় করে মাদকদ্রব্য কিনতে দুপচাঁচিয়া উপজেলা শহরে আসেন। হারুনের বাড়িরে কেউ না থাকার সুযোগে সেখানে বসে পানীয় মাদকদ্রব্য ও ড্রাইডিল ট্যাবলেট এক সঙ্গে সেবন করতে থাকেন।

হুমায়ন কবির অতিরিক্ত মাদকদ্রব্য সেবন করায় মাতলামি করতে থাকেন। একপর্যায়ে টিবওয়েল পাড়ে গেলে সেখানে পড়ে যান তিনি। তখন হারুন তাকে উঠানোর চেষ্টা করতে থাকেন। কিন্তু অতিরিক্ত পরিমাণ মাদকদ্রব্য সেবন করার কারণে হুমায়ন বেসামাল হয়ে যায়। এ সময় হারুন পা দিয়ে হুমায়ুনের পিঠে জোরে কয়েকটি লাথি মারলেও কোনো সাড়া পাওয়া যায়নি। কিছুক্ষণ পরে ভিকটিমের শরীর ঠাণ্ডা ও নিস্তেজ হয়ে যায় তখন হারুন বুঝতে পারে হুমায়ন মারা গেছেন।

হুমায়ুনের মৃত্যুতে দোষ নিজের কাঁধে আসবে ভেবে হারুন ঠিক করে লাশ গুম করে ফেলবেন। এই ভাবনা থেকে নিজ বাড়িতে থাকা একটি সাদা প্লাস্টিকের বস্তার ভিতরে লাশকে তুলে রাখেন। পরে সুযোগ বুঝে এলাকার একটি ডোবায় নেমে বস্তাবন্দি হুমায়নের লাশের সঙ্গে ইট বেঁধে বস্তাটি ডুবিয়ে দেয়।

পুলিশ কর্মকর্তা জানান, এরপর বিষয়টি ধামাচাপা দিতে কৌশল হিসেবে অপহরণ ও ভিকটিমের ব্যবহত মুঠোফোন ব্যবহার করে অপহরণ নাটক সাজান হারুন।

পুলিশ সুপার সুদীপ কুমার চক্রবর্ত্তী বলেন, গ্রেপ্তার হারুনকে আদালত পাঠিয়ে বিষয়গুলো আরো নিশ্চিত হতে রিমান্ড আবেদন করবো। পাশাপাশি দুপচাঁচিয়াতে মাদকদ্রব্য ব্যবসায়ীদের গ্রেপ্তার করে আইনের আওতায় আনা হবে।

সংবাদ সম্মেলনে অন্যানদের মধ্যে ছিলেন জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) আলী হায়দার চৌধুরী, (অপরাধ) আব্দুর রশিদ, (সদর সার্কেল ও মিডিয়া মুখপাত্র) ফয়সাল মাহমুদ, (সদর হেডকোয়ার্টার) হেলেনা আক্তার, সিনিয়র সহকারি পুলিশ সুপার আদমদীঘি সার্কেল নাজরান রউফ ও দুপচাঁচিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হাসান আলী।

দেশের খবর

আপনার মতামত লিখুন :

 

এই বিভাগের অারও সংবাদ
ভারপ্রাপ্ত-সম্পাদকঃ শাকিব বিপ্লব
© কপিরাইট বরিশালটাইমস ২০১২-২০১৮ | বরিশালটাইমস.কম
বরিশালটাইমস লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান।
শাহ মার্কেট (তৃতীয় তলা),
৩৫ হেমায়েত উদ্দিন (গির্জা মহল্লা) সড়ক, বরিশাল ৮২০০।
ফোন: ০৪৩১-৬৪৮০৭, মোবাইল: ০১৮৭৬৮৩৪৭৫৪
ই-মেইল: [email protected], [email protected]
© কপিরাইট বরিশালটাইমস ২০১২-২০১৮
টপ
  ভোটারদের আস্থা মনির হোসেন  গৌরনদীতে তিনটি মন্দিরে হামলা চালিয়ে ভাঙচুর, মামলা, গ্রেপ্তার ১  সুপারি পারতে গিয়ে প্রাণ গেল কৃষকের  একমাত্র ছেলেকে হারিয়ে মা-বাবার গগণবিদারী আর্তনাদ  দাঁড়িয়ে থাকা ট্রাকে বাসের ধাক্কা, প্রাণ গেল ৮ জনের  ‘দেশ বিক্রি করে তো আমি ক্ষমতায় আসব না’: প্রধানমন্ত্রী  তজুমদ্দিনে স্বেচ্ছাসেবকদলের আয়োজনে বেগম জিয়ার রোগমুক্তি কামনায় দোয়া  প্রতিমা বিসর্জন দেওয়ার পর মদপানে ২ জনের মৃত্যু  বাউফলের সেই আলোচিত ক্লিনিকে এবার ভুল চিকিৎসার শিকার প্রসূতি নারী  দুই বছর পরেও চালু হয়নি আবহাওয়া তথ্য বোর্ড; কৃষি আবহাওয়ার পূর্বাভাস পান না কৃষক