২৯শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, বুধবার

আকাশ-বাতাসে রক্তের গন্ধ, তবুও ঈদের নামাজে আল আকসায় মুসুল্লিদের ঢল

বরিশাল টাইমস রিপোর্ট

প্রকাশিত: ০১:২৪ অপরাহ্ণ, ১৩ মে ২০২১

আকাশ-বাতাসে রক্তের গন্ধ, তবুও ঈদের নামাজে আল আকসায় মুসুল্লিদের ঢল

নিজস্ব প্রতিবেদক, বরিশাল >> ইসরায়েলের বিমান হামলায় ফিলিস্তিনির আকাশে বাতাসে এখন রক্তের গন্ধ। নারী, শিশু থেকে শুরু করে অসংখ্য নিরপরাদ মানুষকে প্রাণ দিতে হয়েছে এই ভয়ংকর বিমান হামলায়। এদিকে যুদ্ধাবস্থার মধ্যেই মুসলিমদের তৃতীয় পবিত্র মসজিদ আল আকসায় ঈদুল ফিতরের নামাজ আদায় করেছেন লাখো মুসল্লি।

এসময় ফিলিস্তিনি শিশুরা ঐতিহ্যবাহী পোশাক পরে আল আকসা চত্বরে হাজির হয়। ইহুদিবাদী ইসরায়েলের বর্বরোচিত দমন অভিযান অব্যাহত থাকা সত্ত্বেও ঈদের জামাতে এ লাখের বেশি ফিলিস্তিনি মুসল্লি অংশগ্রহণ করেন। ফিলিস্তিনি তথ্যকেন্দ্রের বরাত দিয়ে ইরানের বার্তা সংস্থা ইরনা জানিয়েছে, এমন সময় আল-আকসা মসজিদে এ জামাত অনুষ্ঠিত হয় যখন ভোরেও গাজা উপত্যকার উপর ইসরায়েলি জঙ্গিবিমানগুলো ভয়াবহ বোমাবর্ষণ করে।

গতকাল বুধবার (১২ মে) রাতে অধিকৃত ফিলিস্তিনে পবিত্র শাওয়াল মাসের চাঁদ দেখা যাওয়ার পর ঈদ ঘোষিত হওয়া সত্ত্বেও ইসরায়েলি বিমান হামলা বন্ধ হয়নি। রমজান মাস শুরু হওয়ার পর মসজিদুল আকসায় ইহুদিবাদীদের আগ্রাসী তৎপরতাকে কেন্দ্র করে সেখানে ফিলিস্তিনিদের সঙ্গে ইসরায়েলিদের উত্তেজনা চরমে ওঠে। এক পর্যায়ে ইসরায়েলি সেনারা বলপ্রয়োগ শুরু করলে এক সপ্তাহ আগে থেকে বায়তুল মুকাদ্দাসের পরিস্থিতি ভয়াবহ হয়ে ওঠে।

এ সময় গাজা উপত্যকা থেকে হামাসসহ প্রতিরোধ সংগঠনগুলো বায়তুল মুকাদ্দাসে ফিলিস্তিনিদের ওপর দমন অভিযান বন্ধ করতে চূড়ান্ত সময়সীমা ঘোষণা করে। ওই সময়সীমা পার হওয়ার পর প্রতিরোধ সংগ্রামীরা ইসরাইল অভিমুখে রকেট বর্ষণ শুরু করে। এ সংঘর্ষে এখন পর্যন্ত ১৮ শিশুসহ অন্তত ৬৫ ফিলিস্তিনি শহীদ এবং কমপক্ষে ছয়জন ইসরায়েলি নিহত হয়েছে। বিশ্বের বেশিরভাগ মুসলিম দেশ গাজা উপত্যকায় ইসরায়েলের বর্বরোচিত বিমান হামলার তীব্র নিন্দা জানিয়েছে।

13 বার নিউজটি শেয়ার হয়েছে
  • ফেইসবুক শেয়ার করুন