২৩শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, মঙ্গলবার

আমরা আর মন্ত্রিসভায় থাকতে চাই না: এরশাদ

বরিশাল টাইমস রিপোর্ট

প্রকাশিত: ০৪:০১ অপরাহ্ণ, ০২ মার্চ ২০১৮

মন্ত্রিসভা থেকে জাতীয় পার্টির সদস্যদের পদত্যাগ এখন সময়ের ব্যাপার বলে ঘোষণা দিয়েছেন দলটির চেয়ারম্যান এইচ এম এরশাদ । আজ শুক্রবার (০২ মার্চ) সকালে রংপুর সার্কিট হাউজে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে এরশাদ এই ঘোষণা দেন তিনি।’

সংসদে বিরোধীদলীয় নেতা রওশন এরশাদের এক বক্তব্যের বিষয় প্রসঙ্গে সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে এরশাদ বলেন, ‘প্রথমত আমাদের কাউকেই মন্ত্রিসভায় নেওয়া ঠিক হয়নি। বিরোধীদলীয় নেত্রী রওশন এরশাদ সংসদে এ বিষয়ে সঠিক কথাটি বলেছেন। তবে সরকারি দলের সঙ্গে মন্ত্রিসভায় যোগদান করার বিষয়টি ছিল রাজনৈতিক কৌশল। তবে আমরা আর মন্ত্রিসভায় থাকতে চাই না।’

এ প্রসঙ্গে এরশাদ বলেন- ‘বর্তমান মন্ত্রিসভায় জাতীয় পার্টির যে তিন মন্ত্রী আছেন, আমিও মন্ত্রীর পদমর্যাদায় আছি, আমরা কিছুদিনের মধ্যেই মন্ত্রিসভা থেকে পদত্যাগ করব। পদত্যাগ করার বিষয়টি এখন সময়ের ব্যাপার মাত্র।’

বিএনপির সঙ্গে জাতীয় পার্টির জোট করার সম্ভাবনা নেই জানিয়ে প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ দূত ও জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান এইচ এম এরশাদ বলেছেন, ‘আগামী নির্বাচনে বিএনপি আসবে কি না, সে ব্যাপারে আমার যথেষ্ট সন্দেহ আছে। তারপরও সরকার চেষ্টা করছে। আমরাও মনে করি, তাঁদের নির্বাচনে অংশ নেওয়া উচিত।’

বিএনপি নির্বাচনে না এলে কী হতে পারে? সাংবাদিকদের এ প্রশ্নের জবাবে এরশাদ বলেন, ‘বিএনপি নির্বাচনে না গেলে তো নির্বাচন বন্ধ হবে না। তাদের না যাওয়ায় কিছুই যায়-আসে না। জাতীয় পার্টি আর আওয়ামী লীগ যদি নির্বাচনে যায়, বিএনপি না গেলেও সেই নির্বাচন গ্রহণযোগ্য হবে।’

খালেদা জিয়ার জামিন প্রসঙ্গে এরশাদ বলেন, ‘আমি ৬বছর দুই মাস কারাগারে ছিলাম। আমার বিরুদ্ধে সব মামলাই ছিল জামিনযোগ্য। তারপরও আমি জামিন পাইনি। হাইকোর্ট আদেশ দেওয়ার পরও আমাকে সংসদে আসতে দেওয়া হয়নি।

পৃথিবীর কোনো দেশে কোনো নেতাই আমার মতো নির্যাতন ভোগ করেননি।’

এরশাদ বলেন, ‘আমরা আগামী ২৪ মার্চ ঢাকায় মহাসমাবেশের তারিখ ঘোষণা করেছি। আমাদের মূল লক্ষ্য হবে, মহাসমাবেশের মাধ্যমে দেশের মানুষকে দেখানো আমরা নির্বাচন করে ক্ষমতায় যাওয়ার জন্য প্রস্তুত।’

এর আগে এরশাদ সৈয়দপুর বিমানবন্দরে নেমে সরাসরি রংপুর সার্কিট হাউজে আসেন। তাঁর সঙ্গে আছেন দলের মহাসচিব রুহুল আমিন হাওলাদার, কো-চেয়ারম্যান জি এম কাদের, প্রেসিডিয়াম সদস্য জিয়াউদ্দিন আহাম্মেদ বাবলু ও রংপুর সিটি করপোরেশনের মেয়র মোস্তাফিজার রহমান।

15 বার নিউজটি শেয়ার হয়েছে
  • ফেইসবুক শেয়ার করুন