১৩ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, শনিবার

উজিরপুরে বিদ্যালয়ে দাফনের কাপড়, আতঙ্ক

বরিশাল টাইমস রিপোর্ট

প্রকাশিত: ০৮:৩৬ অপরাহ্ণ, ১৪ আগস্ট ২০১৬

উজিরপুর: উজিরপুরের ৫৮ নম্বর দক্ষিণ ধামুরা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির বিরোধকে কেন্দ্র করে শিক্ষকদের লাইব্রেরীতে দাফনের কাপড় পাঠানোকে  কেন্দ্র করে শিক্ষক শিক্ষার্থীদের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে। রোববার (১৪ আগস্ট) সকালে সহকারী শিক্ষিকা হাফিজা আক্তার, বিপাশা বিশ্বাস, সারমিন আক্তার, সাইদুর রহমান, লাইব্রেরীর কক্ষে প্রবেশ করলেই একটি সাদা কাপড় দেখতে পায়। পড়ে স্থানীয় ইউপি সদস্য ফারুক হোসেনকে ঘটনাটি জানালে তিনি প্রশাসনসহ বিভিন্ন দপ্তরে বিষয়টি অবহিত করে।

উজিরপুর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) গোলাম সরোয়ার বিষয়টি জানার পড়ে সকলকে আতঙ্কগ্রস্থ না হওয়ার জন্য তাৎক্ষণিক এসআই হেমায়েত উদ্দিনকে ঘটনাস্থল পরিদর্শনের জন্য পাঠান।

সূত্র জানায়- আগামী ১৯ আগস্ট ম্যানেজিং কমিটির মেয়াদ শেষ হবে। ওই কমিটির সভাপতি আবু বক্কর সরদার ৬ দিন পূর্বে ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক পারভিন নাহারকে  ক্লাশে ঢুকে অকথ্য ভাষায় গালী গালাজ করায় উজিরপুর মডেল থানা পুলিশ আবু বক্কর সরদারকে গ্রেফতার করে জেলহাজতে প্রেরণ করে।

রোববার এলাকার গণ্যমান্য ও রাজনৈতিক ব্যক্তিবর্গ নতুন কমিটি নিয়ে একটি জরুরি সভা ডেকেছিল। দাফনের কাপড়ের ঘটনা শুনে আতঙ্কে অনেকেই এই সভায় উপস্থিত হয়নি।

এদিকে আবু বক্কর সরদারের বোন বাবুল সরদারের স্ত্রী বিউটি বেগম স্কুলে ঢুকে শিক্ষক ও এলাকাবাসিকে অকথ্য ভাষায় গালীগালাজ করে হুমকি প্রদান করে।

এ ব্যাপারে ওই এলাকার উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শফিকুল ইসলাম বালী ও ইউপি সদস্য ফারুক হোসেন জানান- দাফনের কাপরের ঘটনাটি দেখে আমরা কিছুটা আতঙ্কিত হই। থানা প্রশাসন ও সাংবাদিকদের হস্তক্ষেপে পরিবেশ শান্ত হয়েছে।

ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক পারভিন নাহার জানান ঘটনার পড়ে কিছু শিক্ষার্থী আতঙ্কে স্কুল ছেড়ে বাড়ীতে চলে যায়। এলাকায় আতঙ্ক বিরাজ করছে।

উজিরপুর মডেল থানার ওসি গোলাম সরোয়ার জানান- ওই বিদ্যালয়ে কে বা কাহার দাফনের কাপর পাঠিয়েছে তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।’

3 বার নিউজটি শেয়ার হয়েছে
  • ফেইসবুক শেয়ার করুন