১৩ মিনিট আগের আপডেট বিকাল ৫:৫৮ ; বৃহস্পতিবার ; আগস্ট ১৩, ২০২০
EN Download App
Youtube google+ twitter facebook
×

করোনার ভুয়া রিপোর্টের কথা জানতেন স্বাস্থ্য ডিজি

বিশেষ বার্তা পরিবেশক
৯:৪৮ অপরাহ্ণ, জুলাই ১১, ২০২০

বার্তা পরিবেশক, অনলাইন :: করোনা পরীক্ষার মনগড়া রিপোর্ট দেয়া নিয়ে এখন আলোচনায় জেকেজি হেলথ কেয়ারের চেয়ারম্যান ডা. সাবরিনা আরিফ চৌধুরী। অপকর্মের অভিযোগে প্রতিষ্ঠানের সিইও, তার স্বামী আরিফ চৌধুরীসহ ৬ জন কারাগারে। কিন্তু প্রায় ২০ দিন ধরে লোকচক্ষুর আড়ালে সাবরিনা। টেস্ট না করেই ভুয়া করোনার রিপোর্ট দেয়ার বিষয়ে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালককে আগেই জানিয়েছিলেন বলে দাবি করেছেন জেকেজির চেয়ারম্যান ও জাতীয় হৃদরোগ ইনস্টিটিউটের চিকিৎসক ডা. সাবরিনা আরিফ চৌধুরী।

শনিবার (১১ জুলাই) একটি বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেলে নিজেকে নির্দোষ দাবি করে সাবরিনা বলেন, তিনি নাকি জেকেজির চেয়ারম্যানই নন।

সাবরিনা আরো বলেন, জেকেজির প্রতারণার বিষয়ে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক আবুল কালাম আজাদকেও জানিয়েছিলেন তিনি।

প্রায় ৩ মাস ধরে নমুনা সংগ্রহের নামে যে প্রতারণা করেছে জেকেজি, সে কার্যক্রমে সরাসরি অংশ নিয়েছিলেন সাবরিনাও। সে সময় বিভিন্ন গণমাধ্যমে নিজেকে চেয়ারম্যান পরিচয় দিয়ে সাক্ষাতকারও দিয়েছেন। তবে এখন তিনি পদ-পদবীর কথা অস্বীকার করছেন।

তবে পুলিশ বলছে, জেকেজির প্রতারণা থেকে সাবরিনার কোনোভাবেই দায় এড়ানোর সুযোগ নেই। কারণ তার স্বামী আরিফ চৌধুরী জিজ্ঞাসাবাদে প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে সাবরিনার সক্রিয় সম্পৃক্ততার কথা স্বীকার করেছেন। তার সম্পৃক্ততার বিষয়ে বিস্তারিত তথ্য দিয়েছেন গ্রেপ্তার হওয়া তার স্বামী আরিফুল। শিগগিরই সাবরিনাকে জিজ্ঞাসাবাদের আওতায় নিয়ে আসা হবে বলেও জানায় পুলিশ।

এদিকে করোনার ভুয়া রিপোর্ট নিয়ে সাবরিনার মন্তব্যের বিষয়ে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালককে বারবার ফোন দেয়া হলেও তাকে পাওয়া যায়নি।

প্রসঙ্গত, ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন জায়গায় করোনার নমুনা সংগ্রহ করে তা পরীক্ষা না করেই জেকেজি ১৫ হাজার ৪৬০টি টেস্টের ভুয়া রিপোর্ট সরবরাহ করে। এসব টেস্টে জনপ্রতি হাতিয়ে নেয়া হয়েছে ৫ হাজার টাকা। আর বিদেশিদের কাছ থেকে নেয় একশ’ ডলার। এ হিসাবে ভুয়া টেস্ট বাণিজ্য করে জেকেজি হাতিয়ে নিয়েছে প্রায় ৮ কোটি টাকা। ২৪ জুন জেকেজির গুলশান কার্যালয়ে অভিযান চালিয়ে প্রতারক আরিফসহ ছয়জনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। তাদের ২ দিনের রিমান্ডে নেয়া হয়। দু’জন আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দিয়েছে। জেকেজির কার্যালয় থেকে ল্যাপটপসহ বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ নথি জব্দ করে পুলিশ। এ ঘটনায় তেজগাঁও থানায় চারটি মামলা হয়েছে। এসব মামলার কোনোটিতে এখন পর্যন্ত ডা. সাবরিনার নাম সংযুক্ত করা হয়নি। চারটি মামলার তদন্ত করছে তেজগাঁও থানা পুলিশ।

জাতীয় খবর

আপনার মতামত লিখুন :

 

ভারপ্রাপ্ত-সম্পাদকঃ শাকিব বিপ্লব
© কপিরাইট বরিশালটাইমস ২০১২-২০১৮ | বরিশালটাইমস.কম
বরিশালটাইমস লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান।
শাহ মার্কেট (তৃতীয় তলা),
৩৫ হেমায়েত উদ্দিন (গির্জা মহল্লা) সড়ক, বরিশাল ৮২০০।
ফোন: ০৪৩১-৬৪৮০৭, মোবাইল: ০১৮৭৬৮৩৪৭৫৪
ই-মেইল: [email protected], [email protected]
© কপিরাইট বরিশালটাইমস ২০১২-২০১৮
টপ
  একটি গাছ একটি প্রাণ: ডিসি খাইরুল আলম  মেজর রাশেদ হত্যার ঘটনায় রোববার গণশুনানি  অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূকে নির্যাতন করে হত্যার প্রতিবাদে বরিশালে মানববন্ধন  লালমোহনে ৮৫০ নন এমপিও শিক্ষক পেলো প্রধানমন্ত্রীর অনুদানের অর্থ  করোনা: দেশে একদিনে আরও ৪৪ মৃত্যু, আক্রান্ত ২৬১৭  দৌলতখানে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারকে নৌবাহিনীর খাদ্যসামগ্রী বিতরণ  তিন দিনে ১৭০ পুলিশ সদস্যের বদলি  মঙ্গলবার থেকে ঢাকা-কুয়ালালামপুর রুটে ফ্লাইট চালু  করোনা: বিশ্বে একদিনে মৃত্যু ৬৮২২, আক্রান্ত ২ লাখ ৮৫ হাজার  বরিশালে যুবলীগ কার্যালয়ে বসে জুয়ার আসর, অত:পর...