২২শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, সোমবার

গৌরনদীতে শত্রুতা করে খামারে বিষ প্রয়োগ, হাঁস নিধন

বরিশাল টাইমস রিপোর্ট

প্রকাশিত: ০৬:১৫ অপরাহ্ণ, ১৩ জুলাই ২০২০

বার্তা পরিবেশক গৌরনদী (বরিশাল):: শত্রুতা করে বরিশালের গৌরনদীতে একটি হাঁসের খামারে দুর্বৃত্তরা খাবারের সাথে বিষ মিশিয়ে বিষাক্ত খাবার সরবারহ করে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। বিষাক্ত খাবার খেয়ে খামারের শতাধিক হাঁসের মৃত্যু এবং শতাধিক হাস অসুস্থ্য হয়ে পড়েছে।

রোববার রাতে উপজেলার বার্থী ইউনিয়নের উত্তর বাউরগাতি গ্রামের এ ঘটনায় সোমবার (১৩ জুলাই) সকালে গৌরনদী মডেল থানা পুলিশ ও উপজেলা প্রাণিসম্পদ দপ্তরের কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। এ ব্যাপারে অজ্ঞাতনামা আসামি করে একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

হাঁস খামারের মালিক ক্ষতিগ্রস্থ মোঃ সবুজ চাপরাশি বরিশালটাইমসকে জানান, পারিবারকি দৈন্যতা কাটাতে একাধিক এনজিও ও আত্মীয় স্বজনদের কাছ থেকে ঋণ নিয়ে লক্ষাধিক টাকা ব্যায় করে ৬ মাস পূর্বে বাড়ির পাশের জমিতে একটি হাঁসের খামার করেন। খামারে দুই শতাধিক হাঁস পালন করে আসছিল। প্রতিদিনের ন্যায় রোববার সন্ধ্যায় খামার বন্ধ করে ঘুমাতে বাড়িতে যান। রাতের আঁধারে অজ্ঞাতনামা দুর্বৃত্তরা খামারের ইস্টিলের নেট বেড়া কেটে খাবারের মধ্যে বিষক্তি খাবার দেয়। ওই বিষাক্ত খাবার খেয়ে শতাধিক হাস মারা যায় এবং শতাধিক হাঁস অসুস্থ্য হয়।

খামারীর স্ত্রী রাজিয়া বেগম বলেন, সোমবার সকালে খামারে হাঁসরে খাবার দিতে গিয়ে খামারের মধ্যে হাঁস মরে পরে থাকতে এবং অসুস্থ্য হাস কাতরাতে দেখি। হাঁসের সাথে শত্রুতা করে মোর সব শেষ করে দিছে। শেষ সম্বল হারিয়ে পাগল প্রায় চাষী পরিবার।

গৌরনদী মডেল থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) তৌহিদুজ্জামান ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বরিশালটাইমসকে জানান , ধারনা করা হচ্ছে স্থানীয় বিরোধের কারনে অজ্ঞাতনামা শত্রুরা প্রতিহিংসা পুরনে খামারে বিষ প্রয়োগ করে হাসগুলো মেরে ফেলছে। এ ঘটনায় অজ্ঞাতনামা আসামি করে একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। পুলিশ অনুসন্ধান চালিয়ে দুর্বৃত্তদের চিহ্নিত করে বিচারের আওতায় আনতে কাজ করছে।

3 বার নিউজটি শেয়ার হয়েছে
  • ফেইসবুক শেয়ার করুন