২৫শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, বৃহস্পতিবার

ঘুষ গ্রহণকালে অডিট অফিসার ধরা, উদ্ধার ৫ লাখ টাকা

বরিশাল টাইমস রিপোর্ট

প্রকাশিত: ০৯:৪৮ অপরাহ্ণ, ২৫ জুন ২০২০

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক:: ঘুষ গ্রহণকালে হাতেনাতে ধরা পড়েছেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা হিসাবরক্ষণ অফিসের অডিটর মো. কুতুব উদ্দিন। স্থানীয় শ্রমিক-কর্মচারীদের বকেয়া বেতন-ভাতার জটিলতা নিরসন করতে বৃহস্পতিবার (২৫ জুন) বিকেলে শহরের কাউতলি এলাকার নিজ কার্যালয়ে ৫ লাখ টাকা গ্রহণ করেন। তখন তাকে জাতীয় নিরাপত্তা গোয়েন্দা (এনএসআই) সদস্যদের সহযোগিতায় আটক করে সদর মডেল থানা পুলিশ। এই ঘটনায় তার বিরুদ্ধে দুর্নীতি দমন কমিশন আইনে একটি মামলা করা হয়েছে।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর মডেল থানা পুলিশ জানায়, ব্রাহ্মণবাড়িয়া সড়ক ও জনপথ (সওজ) বিভাগের বিভিন্ন শাখায় ওয়ার্ক চার্জে কাজ করা তৃতীয় ও চতুর্থ শ্রেণির অর্ধশতাধিক শ্রমিক-কর্মচারীর চাকরি আদালতের নির্দেশে সম্প্রতি নিয়মিত করা হয়েছে। কিন্তু ওই সব শ্রমিক-কর্মচারীদের দীর্ঘদিনের বকেয়া বেতন পরিশোধ নিয়ে জটিলতা রয়েছে। সেই জটিলতা নিরসন করার প্রস্তাব দিয়ে অডিটর কুতুব উদ্দিন বৃহস্পতিবার বিকেলে সওজ বিভাগের তিনজন শ্রমিক-কর্মচারীর কাছ থেকে পাঁচ লাখ টাকা ঘুষ নেন।

বিষয়টি সম্পর্কে জানতে পেরে এনএসআই সদস্যরা অডিটর কুতুব উদ্দিনের কার্যালয়ে হানা দিয়ে টেবিলের ড্রয়ার থেকে ঘুষের টাকা উদ্ধার করে তাকে পুলিশে তুলে দেন।

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সওজ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী পঙ্কজ ভৌমিক সাংবাদিকদের বলেন, ওয়ার্ক চার্জে কাজ করা শ্রমিক-কর্মচারীদের চাকরি আদালতের নির্দেশে নিয়মিত হয়েছে। আদালত থেকে তাদের বকেয়া বেতন দেয়ারও নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। সেই বেতনের টাকা তোলার জন্য শ্রমিক-কর্মচারীদের কাছ থেকে ঘুষ নেয়ার খবর শুনেছি। বেতন তো তাদের হক, এটার জন্য তো কোনো কিছু দেওয়া লাগে না।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর মডেল থানা পুলিশের দুই নম্বর ফাঁড়ির পরিদর্শক (ইন্সপেক্টর) মো. সোহাগ রানা বলেন, এ ঘটনায় সড়ক ও জনপথ বিভাগের পক্ষ থেকে মামলা করা হবে। আমরা মামলাটি দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) কাছে পাঠাব। দুদক মামলাটি তদন্ত করবে।’

6 বার নিউজটি শেয়ার হয়েছে
  • ফেইসবুক শেয়ার করুন