২৪শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, শুক্রবার

স্বামীর খোঁজে ঝালকাঠিতে এসে নির্যাতনের শিকার অন্ত:সত্ত্বা গৃহবধূ

বরিশাল টাইমস রিপোর্ট

প্রকাশিত: ০৪:১৭ অপরাহ্ণ, ১৯ আগস্ট ২০১৭

স্বামীর খোঁজে নারায়ণগঞ্জ থেকে ঝালকাঠি এসে শ্বশুর বাড়ির লোকজনের নির্মম নির্যাতনের শিকার হয়েছেন লিজা আক্তার রুপা নামে অন্ত:সত্ত্বা এক নারী। ওই নারীকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে ঝালকাঠি সদর হাসপাতালে ভর্তি করেছে ঝালকাঠি জেলা পুলিশ।

গত শনিবার (১১ আগস্ট) ঝালকাঠি সদর উপজেলার দারাখানা গ্রামে এ নির্যাতনের ঘটনা ঘটে।

পুলিশ জানান, নারায়ণগঞ্জের একটি পোশাক কারখানায় কাজ করতেন রূপা। সেখানে রূপা সাথে পরিচয় হয় হোটেল বাবুর্চি রাজু হোসেনের সাথে। গত দেড় বছর আগে তাদের বিয়ে হলে তারা নারায়ণগঞ্জে বসবাস করে আসছিল। সম্প্রতি রূপা অন্ত:সত্ত্বা হয়ে পড়েন।

এমতাবস্থায় ১৫দিন আগে স্বামী রাজু রূপাকে রেখে পালিয়ে যান। গত শনিবার স্বামীর খোঁজে রূপা শ্বশুর বাড়ি ঝালকাঠিতে আসেন। কিন্তু অন্তসত্ত্বা রূপাকে দেখেও তার শ্বাশুরি ও স্বজনেরা পিটুনি দেয়।

প্রতিবেশিরা রূপাকে উদ্ধার করে জেলা পুলিশের কাছে নিয়ে যায়। ওই সময় অবস্থা গুরুতর হলে পুলিশ রূপাকে হাসপাতালে ভর্তি করে।

ঝালকাঠি সদর হাসপাতালের চিকিৎসক মৃণাল কান্তি ব্যন্দোপাধ্যায় বরিশালটাইমসকে জানান, রূপাকে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। তবে তার পেটের বাচ্চার ক্ষতি হয়েছে কী না তা নিশ্চিত হওয়া যায়নি। পরবর্তীতে পরীক্ষা নীরিক্ষা করে রিপোর্ট পেলে পুরো বিষয়টি বোঝা যাবে।

ঝালকাঠি জেলা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সদর সার্কেল এমএম মাহমুদ হাসান জানিয়েছেন, রূপার স্বামী পালিয়ে গেছেন। তাকে খুঁজে বের করে স্বামীর সংসারে ফিরিয়ে দেয়ার চেষ্টা চলছে।

রুপা কুমিল্লার দাউদকান্দি উপজেলার দড়িগোয়ালি গ্রামের দরিদ্র নজরুল ইসলামের মেয়ে। তার সন্তানকে নিরাপদে ভূমিষ্ঠ করতে ফিরে পেতে চান স্বামীর সংসার।”

20 বার নিউজটি শেয়ার হয়েছে
  • ফেইসবুক শেয়ার করুন