২ িনিট আগের আপডেট বিকাল ১:১২ ; শুক্রবার ; ফেব্রুয়ারি ২৩, ২০২৪
EN Download App
Youtube google+ twitter facebook
×

টাকার বিনিময়ে এ কী করলেন বিএম স্কুল প্রধান শিক্ষক?

বরিশালটাইমস রিপোর্ট
৯:২৯ অপরাহ্ণ, আগস্ট ২৮, ২০১৭

বরিশাল শহরের ঐতিহ্যবাহী বিএম স্কুলের মাঠে চলছে তাত বস্ত্র মেলা। এক মাস এই মেলা চলার কথা ছিল। কিন্তু সেই সময়সীমা শেষ হলেও মেলা বন্ধ হয়নি। বরং সময় আরও বৃদ্ধি করতে মরিয়া হয়ে উঠেছে সংশ্লিষ্টরা। এমতাবস্থায় ওই বিদ্যালয়টির স্বাভাবিক শিক্ষা পরিবেশ ব্যহত হচ্ছে।

দীর্ঘদিন যাবত স্কুল মাঠে মেলা চলায় শিশু শিক্ষার্থীরা খেলাধুলা না করতে পারায় বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের ওপরে ক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীদের অভিভাবকরা। এই বাস্তবতায় মেলার সময়সীমা বাড়নোর ঘোষণা আসায় স্কুল সংশি¬ষ্টদের ভুমিকা প্রশ্নবিদ্ধ হচ্ছে। তাছাড়া কর্তৃপক্ষ সরকারি নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে স্কুল মাঠে মেলার অনুমোদন দেওয়ায় বিষয়টি ঢেল সমালোচনা সৃষ্টি করেছে। অবশ্য খোঁজখবর নিয়ে নিশ্চিত হওয়া গেছে প্রধান শিক্ষকসহ স্কুল কর্তৃপক্ষ মাত্র সাড়ে লাখ টাকা নিয়ে মাসব্যাপি এই মেলার অনুমোদন দিয়েছেন। এখন মেলা পরিচলনাকারী আজগর ও মিজান সময়সীমা বাড়তে দৌড়ঝাপ শুরু করেছেন।

অথচ শিক্ষা মন্ত্রাণালয় ২০০৯ সালে এক পরিপত্র জারি করে স্কুল মাঠে মেলা যাত্রা সার্কাসসহ সকল বাণিজ্যিক বিনোদনমূলক অনুষ্ঠান আয়োজন ন করার জন্য বলেছে। কিন্তু এর পরেও শহরের গুরুত্বপূর্ণ একটি বিদ্যালয় মাঠে মেলা আয়োজন করে শিক্ষার স্বাভাবিক পরিবেশ নষ্ট করা হচ্চে তার কোন সদুত্তোর আসেনি সংশ্লিষ্ট শিক্ষা প্রতিষ্ঠান প্রধান শিক্ষক লুৎফর রহমানের কাছ থেকে।

তবে তিনি জানিয়েছেন মাত্র সাড়ে ৩ লাখ টাকায় বিক্রি মেলার মাঠের অনুমোতি অর্থাৎ (প্রধান শিক্ষকসহ কর্তৃপক্ষ) বিক্রি হওয়ার বিষয়টি (?) যদিও পরবর্তীতে তিনি সাংবাদিকদের অবহিত হরেছেন এই মেলার সময়সীমা আর বৃদ্ধি করার সুযোগ নেই। খোঁজখবর নিয়ে নিশ্চিত হওয়া গেছে, অবৈধভাবে স্কুল মাঠে আয়োজিত এই তাত বস্ত্র মেলা গত জুলাই মাসের ২৫ আগস্ট শুরু হয়। এক মাস ব্যাপি এই মেলা আগস্ট মাসের ২৫ তারিক শেষ হওয়ার কথা ছিল।

কিন্তু ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ নেতার ছত্রছায়ায় থাকা আজগর ও মিজানসহ কতিপয় ব্যক্তি চলমান মেলার সময়সীমা বৃদ্ধি করতে মাঠে নেমেছেন। মূলত এই খবরেই ক্ষুব্ধ হয়ে উঠেছেন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে অধ্যয়নরত শিক্ষার্থীদের অভিভাবকরা। ক্ষুব্ধ অভিভাবকরা নাম প্রকাশ না করার শর্তে অভিযোগ করেন- বিষয়টি নিয়ে তারা আপত্তি তোলার পরে শোনেনি স্কুল প্রধান শিক্ষক। বরং তিনি লাভের আশায় আরও সময় বৃদ্ধি করতে যাচ্ছেন।

এতে স্বাভাবিক শিক্ষা ব্যবস্থা বিঘ্নিত হওয়ার জোর আভাস পাওয়া যাচ্ছে বলে দাবি করে এক অভিভাবক এ বিষয়ে বরিশাল জেলা প্রশাসকের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন। সূত্র জানিয়েছে- এই মেলাটি গত মাসে বরিশাল মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সেরনিয়াবাত সাদিক আব্দুল্লাহ উদ্বোধন করেন। সার্বিক বিষায়দী এই নেতাকে না অবহিত না করেই তাকে আর্থিকভাবে লাভবান হতে চেয়েছিলেন আজগর ও মিজান। অবশ্য ইতিমধ্যে মেলার মাঠে এই দুজন ২০ লাখের বেশি টাকা হাতিয়েছেন বলেও শোনা গেছে।

এমতাবস্থায় এই দুই ব্যক্তির ভাষ্য হচ্ছে, বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশ প্রশাসন ও জেলা প্রশাসন তাদেরকে মেলা করার অনুমোদন দিয়েছে। তাছাড়া সাড়ে তিন লাখ টাকা দিয়ে তারা স্কুল মাঠও ভাড়া নিয়েছেন।

যে কারণে এই মেলাকে তারা বৈধ বলছেন। কিন্তু শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের নির্দেশ অমান্য করে স্কুল মাঠে মেলার আয়োজন করা হয়েছে এমন প্রশ্নের কোন সদুত্তোর দিতে পারেনি এই দুই ব্যক্তি।

এ বিষয়ে বিএম স্কুল ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি অ্যাডভোকেট আনিস উদ্দিন শহীদ বলছেন- মেলা চালাতে মন্ত্রণালয় থেকে অনুমোদন দিয়েছে। যে কারণে তাদের সাড়ে তিন লাখ টাকায় মাঠ ভাড়া দেওয়া হয়েছে। কিন্তু মেলায় আলোকসজ্জা বা শব্দ হয় এমন কোন কিছুর আয়োজন না করতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

 

খবর বিজ্ঞপ্তি, বরিশালের খবর

আপনার ত লিখুন :

 

ই বিের ও সা
ভারপ্রাপ্ত-সম্পাদকঃ শাকিব বিপ্লব
© কপিরাইট বরিশালটাইমস ২০১২-২০১৮ | বরিশালটাইমস.কম
বরিশালটাইমস মিডিয়া লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান।
ইসরাফিল ভিলা (তৃতীয় তলা), ফলপট্টি রোড, বরিশাল ৮২০০।
ফোন: +৮৮০২৪৭৮৮৩০৫৪৫, মোবাইল: ০১৮৭৬৮৩৪৭৫৪
ই-মেইল: barishaltimes@gmail.com, bslhasib@gmail.com
© কপিরাইট বরিশালটাইমস ২০১২-২০১৮
টপ
  বরিশালে স্বাচিপের পকেট কমিটি বাতিলের দাবিতে সড়ক অবরোধ  এসএসসি পরীক্ষার্থীর অভিভাবকের কাছ থেকে ঘুস গ্রহণকালে ধরা কর্মকর্তা  শীর্ষস্থান দখলে নিতে দুপুরে মাঠে নামছে বরিশালের বিপক্ষে মাঠে নামছে কুমিল্লা  যুবককে অস্ত্র দিয়ে ফাঁসানোর ঘটনায় এসআই প্রত্যাহার  দরিদ্র মেধাবী শিক্ষার্থীদের পাশে দাঁড়াতে হবে: ডা. দীপু মনি  জার্মানি সফরকালে নির্বাচন নিয়ে কেউ কথা বলেনি: শেখ হাসিনা  লিবিয়ায় আটক ১৪৪ বাংলাদেশি দেশে ফিরলেন  শবে বরাতের আগেই চড়ল মাংসের বাজার  বাড়ছে না চিনির দাম, সিদ্ধান্ত বাতিল  বরিশাল বোর্ডে ইংরেজি দ্বিতীয়পত্রে অনুপস্থিত ৭০৩, বহিষ্কার ২০