২৪শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, বুধবার

দুর্নীতি তদন্তে গিয়ে অভিযুক্তের সাথে শিক্ষা কর্মকর্তার ভুরিভোজ!

বরিশাল টাইমস রিপোর্ট

প্রকাশিত: ০৫:২৬ অপরাহ্ণ, ২৯ নভেম্বর ২০১৭

বাউফলে এসএসসির ফরম পূরণে অতিরিক্ত টাকা আদায়ের অভিযোগের তদন্ত করতে গিয়ে অভিযুক্তদের সাথে ভুরিভোজ করেছেন তদন্তকারী কর্মকর্তা উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার। এ ঘটনায় তদন্ত কর্মকর্তার স্বচ্ছতা নিয়ে অভিযোগকারীদের মধ্যে সন্দেহ দেখা দিয়েছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্র থেকে জানা গেছে- উপজেলার বাজেমহল মাধ্যমিক বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ এসএসসির ফরম পূরণে শিক্ষা বোর্ডের নির্ধারিত ফি’র থেকে অতিরিক্ত টাকা আদায় করেন। অতিরিক্ত টাকা ফেরৎ পেতে শিক্ষার্থীরা বিক্ষোভ মিছিলও করেছেন।

সেই ঘটনায় বিভিন্ন পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশ হয়েছে। এই বিষয়ে গত ২৭ নভেম্বর মো. হানিফ আকন নামের এক অভিভাবক উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কাছে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

ওই অভিযোগপত্রে ৩০ জন পরীক্ষার্থীর নাম ও তাদের থেকে আদায় করা টাকার পরিমাণ উল্লেখ রয়েছেন অভিযোগকারী। উপজেলা নির্বাহী অফিসার বিষয়টি তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়ার জন্য উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার শহীদুল ইসলামকে দায়িত্ব দেন।

মঙ্গলবার উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার বাজেমহল মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে গেলে প্রথমে তাকে হরেক রকমের নাস্তা করানো হয়। এরপর দুপরে মাছ-মাংসসহ কয়েক বিভিন্ন ধরণের আইটেম দিয়ে ভুরিভোজ করানো হয়।

এদিকে তদন্তকারী কর্মকর্তা স্কুলে আসছেন এ খবর জেনে অভিযোগকারী ও পরীক্ষার্থীরা স্কুলের গেটে অবস্থান নিলেও তাদের সাথে ওই কর্মকর্তা কোন কথা বলেননি। অভিযোগকারী মো. হানিফ আকন জানান, তদন্ত করতে এসে এক পক্ষের সাথে ভুরিভোজ করে তদন্তকারী কর্মকর্তা চলে যাওয়াটা দূরভিসন্ধি এবং স্কুল থেকে কোন অনৈতিক সুবিধা নিয়েছেন এটা সন্দেহের উর্ধ্বে নয়।

তবে ভুরিভোজের বিষয়টি অস্বীকার করে উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার শহীদুল ইসলাম বলছেন- তদন্ত এখনো শেষ হয়নি। অভিযোগকারীদের সাথেও কথা বলবেন। এবং সঠিক প্রতিবেদনই দেবেন।

তাছাড়া দুপুরের সময় কোন বাড়িতে গেলে কেউ ভাত খাওয়াতেই পারে। এতে দোষের কিছু দেখছেন না তিনি বলে মন্তব্য করেন উল্টো সাংবাদিকদের কাছে প্রশ্ন রাখেন।

4 বার নিউজটি শেয়ার হয়েছে
  • ফেইসবুক শেয়ার করুন