২৫শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, বৃহস্পতিবার

নলছিটিতে নিখোঁজের ২ দিন পর স্কুলছাত্রীর লাশ মিললো খালে

বরিশাল টাইমস রিপোর্ট

প্রকাশিত: ১০:৫৩ অপরাহ্ণ, ০৯ জুলাই ২০২০

বার্তা পরিবেশক ঝালকাঠি:: ঝালকাঠির নলছিটিতে প্রাইভেট পড়তে গিয়ে নিখোঁজের দুই দিন পর খাল থেকে ফারজানা আক্তার (১৫) নামের এক স্কুলছাত্রীর ভাসমান লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। তবে ওই ছাত্রীর মৃত্যু পানিতে ডুবে হয়েছে নাকি হত্যার শিকার হয়েছে সে বিষয়টি রহস্যঘেরা।

বৃহস্পতিবার (৯ জুলাই) বিকেলে উপজেলার রানাপাশা গ্রামের নাচলমহল বাজার সংলগ্ন খাল থেকে ভাসমান অবস্থায় ওই ছাত্রীর লাশ উদ্ধার করা হয়। সে ওই গ্রামের ফারুক মুন্সির মেয়ে এবং স্থানীয় নাচলমহল মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির ছাত্রী।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, গত মঙ্গলবার সকাল ৯টার দিকে স্কুলছাত্রী ফারজানা বাড়ির পার্শ্ববর্তী নাচলমহল বাজার সংলগ্ন একটি বাড়িতে প্রাইভেট পড়তে যায়। কিন্তু প্রাইভেট পড়তে ঢোকার আগে ফারজানা নাচলমহল বাজারের পাশের খালে পাঁ ধুতে গেলে তার একটি জুতা খালে ভেসে যায়। এ সময় সে ওই ভেসে যাওয়া জুতার পেছনে খালের পাড় ধরে নাচলমহল বাজার থেকে অনেকটা সামনে হেঁটে যায় এবং পরে জুতা আনতে খালে নেমে ডুবে যায়।

নলছিটি থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) আব্দুল হালিম তালুকদার বরিশালটাইমসকে জানান, স্কুলছাত্রী ফারজানা প্রাইভেট পড়ে বাড়িতে না ফেরায় বিকেলে তার পরিবারের লোকজন খুঁজতে বেরিয়ে খালের পারে তার বই-খাতা ও একটি জুতা পড়ে থাকতে দেখে। পরে তারা থানা পুলিশকে খবর দিলে পুলিশ ঘটনাস্থলে পরিদর্শন করে। কিন্তু রাত হয়ে যাওয়ায় ওইদিন ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরিদল উদ্ধার অভিযানে নামতে পারেনি।

তিনি আরও জানান, বুধবার ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরিদল খালে উদ্ধার অভিযান চালিয়েও ওই ছাত্রীর কোনো সন্ধান পায়নি। পরবর্তীতে বৃহস্পতিবার বিকেলে ওই ছাত্রীর লাশ খালে ভাসতে দেখে স্থানীয়রা সংবাদ দিলে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে। এ ঘটনায় পরিবারের কোনো অভিযোগ না থাকায় সংশ্লিষ্ট থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা দায়ের করা হয়েছে।

স্কুলছাত্রী ফারজানার স্বজনরা জানিয়েছেন, সাঁতার জানা সত্যেও খালে ডুবে ফারজানার মৃত্যু রহস্যজনক। তাছাড়া খালের যেখানে ফারজানা ডুবে গিয়েছিল সেই স্থানসহ আশপাশে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরিদল তল্লাশি চালিয়েও বুধবার তাকে উদ্ধার করতে পারেনি। অথচ পরেরদিন বৃহস্পতিবার ডুবে যাওয়ার সেই স্থান থেকেই ফারজানার লাশ ভেসে ওঠা যেন অস্বাভাবিক।

নাচলমহল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সেরাজুল ইসলাম সেলিম বরিশালটাইমসকে জানান, ওই স্কুলছাত্রীর ভালোভাবে সাঁতার জানা ছিলো না বলেই হয়তো খালের পানিতে ডুবে তার মৃত্যু হয়েছে। এর বাইরে অন্য কিছু হয়েছে বলে মনে হয়না।

8 বার নিউজটি শেয়ার হয়েছে
  • ফেইসবুক শেয়ার করুন