১৩ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, বৃহস্পতিবার

শিরোনাম

নিজেদের স্বার্থেই বাঁচাতে হবে সুন্দরবন

বরিশাল টাইমস রিপোর্ট

প্রকাশিত: ০২:৪৬ পূর্বাহ্ণ, ১২ নভেম্বর ২০১৯

বার্তা পরিবেশক, অনলাইন:: একের পর এক ঘূর্ণিঝড়ের মতো প্রাকৃতিক দুর্যোগ ঠেকিয়ে দিয়ে বাংলাদেশকে বাঁচিয়ে দিচ্ছে সুন্দরবন। অথচ ঝড় থেমে গেলেই এই বনকে ধ্বংসের লক্ষ্যে বিভিন্ন ধরনের কর্মযজ্ঞ চলে। বুলবুলের মত প্রাকৃতিক দুর্যোগ থেকে সুরক্ষায় নিজেদের স্বার্থেই সুন্দরবনকে বাঁচাতে হবে বলে মতামত দিয়েছে ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ (টিআইবি)।

সোমবার এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে টিআইবি জানিয়েছে- সুন্দরবনের কারণেই প্রলয়ংকরী ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের শক্তি হ্রাস পেয়েছে। আর এতে বাংলাদেশের উপকূলীয় অঞ্চলে ক্ষয়ক্ষতির মাত্রা কম হয়েছে।

এ কারণে বাংলাদেশের স্বার্থেই সুন্দরবন সুরক্ষায় অবিলম্বে সর্বোচ্চ পদক্ষেপ গ্রহণের দাবি জানিয়েছে টিআইবি। বিশ্বের সর্ববৃহৎ এই ম্যানগ্রোভ বন বাঁচাতে এটিকে ঝুঁকির মুখে ফেলা রামপাল কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎ প্রকল্পের নির্মাণ কাজ এবং সুন্দরবনকে ঘিরে যে পরিবেশবিনাশী শিল্পায়ন প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে তা অনতিবিলম্বে বন্ধ করার আহ্বান জানিয়েছে সংস্থাটি।

এ বিষয়ে সংস্থাটির নির্বাহী পরিচালক ড. ইফতেখারুজ্জামান বলেন, ঘূর্ণিঝড়ের মতো ভয়াবহ প্রাকৃতিক দুর্যোগে এই অঞ্চলকে রক্ষায় সুন্দরবনের অবদান অনস্বীকার্য। নিশ্ছিদ্র সুরক্ষা বেষ্টনি হয়ে ৬.১৭ হাজার বর্গ কিলোমিটার আয়তনের সুন্দরবন বছরের পর বছর ধরে বিশ্বের অন্যতম প্রাকৃতিক দুর্যোগপ্রবণ অঞ্চল বাংলাদেশের প্রাণ ও সম্পদ রক্ষা করে আসছে। বাংলাদেশে আঘাত হানার আগেই সাম্প্রতিক প্রবল ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের শক্তি হ্রাস করে ক্ষয়ক্ষতির মাত্রা কমিয়ে দিয়েছে সুন্দরবন। শুধু তাই নয়, এর আগেও প্রলয়ংকরী সিডর, আইলাসহ আরো বহু মহাদুর্যোগের ক্ষয়ক্ষতি ব্যাপকতর হতে দেয়নি প্রকৃতির এই অপার সৃষ্টি।

তিনি আরও বলেন, শুধু দুর্যোগ থেকে রক্ষায় নিরাপত্তা বেষ্টনি হিসেবেই নয়, সুন্দরবন এ অঞ্চলের জীববৈচিত্র্য ও ভূ-প্রাকৃতিক বৈশিষ্ট্য এবং উপকূলীয় অঞ্চলের মানুষের জীবন-জীবিকার অন্যতম মাধ্যম। তাই সুন্দরবন রক্ষায় বাংলাদেশকেই সর্বোচ্চ পদক্ষেপ নিতে হবে।

10 বার নিউজটি শেয়ার হয়েছে
  • ফেইসবুক শেয়ার করুন