১৪ মিনিট আগের আপডেট সন্ধ্যা ৬:৪০ ; বুধবার ; অক্টোবর ২৩, ২০১৯
EN Download App
Youtube google+ twitter facebook
×

পটুয়াখালীর এমপি মহিবের বিরুদ্ধে অভিযোগের পাহাড়

বরিশাল টাইমস রিপোর্ট
৮:০৭ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ৪, ২০১৯

বার্তা পরিবেশক, পটুয়াখালী:: এমপি মহিববুর রহমান। পটুয়াখালী-৪ (কলাপাড়া-রাঙ্গাবলী) আসনের সংসদ সদস্য। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে এমপি হওয়ার মাত্র নয়মাসের মাথায় নিজ নির্বাচনী এলাকায় দখলের রাজত্ব কায়েম করেছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। স্থানীয়দের অভিযোগ, এমপি মহিব ও তার বাহিনী বেছে বেছে আওয়ামী লীগ নেতাদের জমি, বাড়ি, ঘের, দোকানপাট দখল করে নিয়েছেন। পাউবোর জমি থেকে শুরু করে ভূমিহীনদের জমি কোনোটাই বাদ পড়েনি নির্বিচার এ দখলদারিত্ব থেকে। শুধু দখল নয় মুহিব বাহিনীর বেপরোয়া চাঁদাবাজিতে অতিষ্ঠ সেখানকার জেলেরা। আওয়ামী লীগ অফিস ও ক্লাব নির্মাণের নামে জেলেদের কাছ থেকে তোলা হচ্ছে কোটি টাকার চাঁদা। কলাপাড়া উপজেলার কালভার্ট ও স্লুইসগেট অবৈধভাবে লিজ দিয়ে তুলছেন লাখ লাখ টাকা চাঁদা। দখল আর চাঁদাবাজি নয়, সন্ত্রাসের ক্ষেত্রেও পিছিয়ে নেই মহিব বাহিনী। তাদের দখল ও অত্যাচারে উচ্ছেদ হয়েছেন অনেকে, আওয়ামী লীগের আমলেই এলাকাছাড়া হতে হয়েছে দলটির নেতাকর্মীদের।

এ আসন থেকে নির্বাচিত টানা তিনবারের এমপি ও সাবেক প্রতিমন্ত্রী মাহবুবুর রহমানের বিরুদ্ধে জমি দখল ও নেতাকর্মীদের মধ্যে বিরোধ সৃষ্টিসহ নানা অভিযোগ ছিল। এ কারণেই একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে তাকে মনোনয়ন দেয়নি আওয়ামী লীগের হাইকমান্ড। তার বদলে তারই ফুফাতো ভাই মহিববুর রহমানকে প্রার্থী করা হয়। প্রথমবার মনোনয়ন পেয়েই তিনি এমপি নির্বাচিত হন। নির্বাচনের দিন (৩০ ডিসেম্বর) রাতেই ধূলাশার ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহসভাপতি মাহবুবুর রহমানের মাছের ঘের দখল করে শুরু হয় এমপি মুহিব ও তার বাহিনীর দখলযাত্রা। পরদিন ঘের থেকে মাছ লুট, তার ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে হামলা ও ভাঙচুর করা হয়। এমনকি তার খামার থেকে প্রকাশ্যে ছাগল লুট করে নেয় মুহিবের লোকজন।

মাহবুবুর রহমান সাংবাদিকদের বলেন, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে পটুয়াখালী-৪ আসন থেকে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী ছিলেন ৩০-৩১ জন। দলের হাইকমান্ড মহিববুর রহমানকে প্রার্থী করে। আমরা সবাই তার পক্ষে কাজ করি। কিন্তু ভোটের রাতেই সিনেমার কায়দায় আমার ঘের দখল করে এমপির লোকজন। এটা ছিল আমার জন্য বিস্ময় আর হতাশার। তিনি বলেন, বিএনপি জোট সরকারের সময় মামলা-হুলিয়া মাথায় নিয়ে ঘুরতে হয়েছে। আওয়ামী লীগের আমলেও এ ধরনের নির্যাতনের শিকার হতে হবে তা কখনো স্বপ্নেও ভাবতে পারিনি।

মাহবুবুর রহমান জানান, গত ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে আমি ধূলাসার (৯) নম্বর ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী ছিলাম। ভোটের কয়েকদিন আগে মহিববুর রহমান তার স্ত্রী রেখা আক্তারকে প্রার্থী করতে চান এবং আমাকে প্রার্থিতা প্রত্যাহার করতে বলেন। তৃণমূলের নেতাকর্মীদের চাপে আমি তা করিনি। হয়তো এ কারণেই আমার ওপর তার ক্ষোভ। এমপি হওয়ার পরই তিনি আমাদের ওপর নির্যাতন শুরু করেন। ত্যাগী ও নিবেদিত নেতাকর্মীরা এখন বড় অসহায় দিন কাটাচ্ছেন।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, শুধু মাহবুবুর রহমান নন, নির্বাচনের পরপরই এমপি মুহিব ও তার বাহিনী কলাপাড়ার চরচাপলী ইউনিয়নের নিজাম হাওলাদার, ছাবের আহমেদ, বাদল হাওলাদারের মাছের ঘেরসহ কলাপাড়া-রাঙ্গাবালি উপজেলার অন্তত দুইশ মাছের ঘের দখল করে নেয়। এ সব ঘেরের বেশির ভাগই স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতাদের। স্থানীয়দের অভিযোগ, চরগঙ্গামতি ও কাউয়ারচরের শতাধিক ভূমিহীনের জমি দখলে নিয়েছেন এমপি মুহিব বাহিনী।

এর মধ্যে ইটভাটা নির্মাণের উদ্দেশে সৈয়দ নজরুল ইসলাম সেতুর পাশে ভূমিহীনদের জন্য বন্দোবস্ত দেওয়া জমি ও খাস জমি রয়েছে। এ প্রসঙ্গে কাওয়ারচরের ভূমিহীন মোহাম্মদ দাদন বলেন, ‘এখনকার জমি আমাদের বাপ-দাদার। একসময় নদী ভেঙে জমি তলিয়ে যায়। চর জাগলে ৬৪ কাঠা জমিতে আমরা কাজকর্ম করে খাচ্ছিলাম। সেও প্রায় ৫০ বছর। আমার বাপের আমলের। কিন্তু মহিববুর রহমান এমপি হওয়ার পর তার লোকজন আমার জমি দখলে নিয়ে নিছে। আশপাশে আরও অনেকের জমিই এমপির দখলে।’

জানা গেছে, এমপি মহিবের দখলের গ্রাস থেকে রক্ষা পায়নি মৃত আওয়ামী লীগ নেতার প্রতিবন্ধী ছেলের দোকানও। জানা গেছে, নির্বাচনের কয়েকদিনের মধ্যেই বাবলাতলা বাজারে ধূলাসার ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি মৃত দেলোয়ার হোসেন বিশ্বাসের প্রতিবন্ধী ছেলের দোকানসহ অর্ধশতাধিক দোকান দখল করে নেয় তার বাহিনী।

সর্বশেষ অনুষ্ঠিত উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে এমপি মুহিব কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের নির্দেশ অমান্য করে নৌকার প্রার্থীর বিপরীতে বিদ্রোহী প্রার্থী আক্তারুজ্জামান কোক্কাকে দাঁড় করান। ওই নির্বাচনে আওয়ামী লীগের চেয়ারম্যান প্রার্থী রাকিবুল আহসানের বিরুদ্ধে কাজ করেন তিনি ও তার অনুগত লোকজন। তবে মহিবের বিদ্রোহী প্রার্থী পরাজিত হন রাকিবুলের কাছে। নির্বাচনে রাকিবুলের পক্ষে কাজ করায় আওয়ামী লীগ কর্মীকে বেঁধে রেখে স্ত্রীকে গণধর্ষণের অভিযোগ ওঠে এমপির ঘনিষ্ঠ শ্রমিক লীগ নেতা শাকিল মৃধা ও তার সহযোগীদের বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় ধর্ষিতার স্বামীর দায়ের করা মামলায় গ্রেফতার হয় আসামিরা। কিন্তু রাজনৈতিক প্রভাব খাটিয়ে জামিনে বের হয়ে আসেন তারা। বেরিয়ে এসেই মামলা তুলে নেওয়ার জন্য বাদীর ওপর চাপ দিতে থাকেন তারা। এতে সে রাজি না হওয়ায় গত ১৭ সেপ্টেম্বর ওই মামলার প্রধান আসামি শাকিলের নেতৃত্বে তার সহযোগীরা লাঠিসোটা দিয়ে পিটিয়ে ধর্ষিতার স্বামীর দুই পা ও এক হাত ভেঙে দেয়। এ ঘটনায় শাকিলসহ ৪ আসামিকে অস্ত্র ও মাদকসহ গ্রেফতার করে র‌্যাব-৮। তাদের কাছ থেকে বিদেশে তৈরি একটি পিস্তল, একটি ওয়ান শুটারগান, ১২ রাউন্ড গুলি এবং ৩৯০ পিস ইয়াবা উদ্ধার করা হয়।

এ প্রসঙ্গে উপজেলা চেয়ারম্যান রাকিবুল আহসান সাংবাদিকদের বলেন, আমরা বিভিন্ন সময় সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে এসব অভিযোগ প্রকাশ্যে এনেছি। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকেও জানিয়েছি। কিন্তু থানা তো আর আমাদের কথা শোনে না…। দলের হাইকমান্ডেও অভিযোগ দিয়েছি। আমাদের বরিশাল অঞ্চলের অভিভাবক আবুল হাসনাত আবদুল্লাহ, আমির হোসেন আমুসহ অন্য নেতাদের কাছে এমপি মুহিব ও তার বাহিনীর অপকর্ম নিয়ে সুনির্দিষ্ট অভিযোগ জানিয়েছি।

?স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, সংসদ নির্বাচনের এক সপ্তাহ পার না হতেই নতুন এমপি দখল করে নেন কুয়াকাটার পাউবোর রেস্টহাউস-সংলগ্ন জমি। এর আগেও তিনি কয়েক দফা চেষ্টা করেছিলেন জমিটি দখল করার। যদিও সফল হননি। কিন্তু এমপি হওয়ার পরে আর অপেক্ষা করেননি। নির্বাচনের কয়েক মাস আগেও তার বাহিনী ১০-১২টি দোকান ভাঙচুর ও লুটপাট করে এবং বেশ কয়েকজনকে জমি থেকে উচ্ছেদ করে। এর মধ্যে কুয়াকাটা পৌরসভা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক অনন্ত মুখার্জি ২০১৭ সালে একটি ফৌজদারি মামলা করেন। এতে মহিববুরসহ ৩০ জনকে আসামি করা হয়। ওই ঘটনায় স্থানীয় পুলিশের এক তদন্ত প্রতিবেদনে এই গ্রুপকে ‘সন্ত্রাসী মহিব বাহিনী’ হিসেবে আখ্যায়িত করা হয়। এমপি হওয়ার পর তিনি এই মামলা থেকে পুলিশি তদন্তে বাদ পড়েন। মামলাটি সম্পর্কে নির্বাচন কমিশনে জমা দেওয়া হলফনামায় মহিববুর রহমান বলেছেন, ‘পুলিশি তদন্তে মামলা থেকে অব্যাহতি প্রদান। বাদীর আপত্তিতে অধিকতর তদন্তাধীন।’

কুয়াকাটা সংলগ্ন বঙ্গোপসাগরে ইলিশ আহরণে নিয়োজিত জেলেদের কাছ থেকে এমপির অনুসারী নেতা-কর্মীদের ক্লাব ঘর ও অফিস নির্মাণের নামে কোটি টাকা চাঁদাবাজির অভিযোগ উঠেছে। আড়ত মহাজনদের কাছ থেকে দাদন নিয়ে দরিদ্র জেলেরা মাছ শিকারে সমুদ্রে যাওয়ার আগে বড় অঙ্কের চাঁদা দিতে বাধ্য হওয়ায় দিশাহারা হয়ে পড়েছেন। যে সমস্ত জেলেরা টাকা দিতে পারেনি তাদের সমুদ্রে যেতে বাঁধা দেওয়াসহ টর্চার সেন্টারে নিয়ে মারধর করে টাকা আদায়ের অভিযোগ উঠেছে।

স্থানীয়দের অভিযোগ, কলাপাড়া উপজেলার কালভার্ট ও স্লুইসগেট অবৈধভাবে লিজ দিয়ে হাতিয়ে নেওয়া হচ্ছে লাখ লাখ টাকা। এর সবই যাচ্ছে এমপি মহিববুরের পকেটে। কলাপাড়ায় রয়েছে চাঁদাবাজির অন্তত ৩০টি স্পট। ভাড়াটে মোটরসাইকেল, অটোবাইক, মাহেন্দ্র্য, টমটম, ছয় চাকার দৈত্যাকৃতির অবৈধ হামজা কিংবা অন্য কোনো যানবাহন কেন্দ্রিক এসব চাঁদাবাজি চলছে। ফ্রিস্টাইলে যুগের পর যুগ এমন চাঁদাবাজি চললেও পুলিশসহ উপজেলা প্রশাসন নির্বিকার। এর থেকে পরিত্রাণে বিভিন্ন সময় ভুক্তভোগীরা অভিযোগ করলেও প্রতাপশালী এমপির চাঁদাবাজ চক্রের রাহুগ্রাস থেকে কেউ বের হতে পারেনি।

এ সব অভিযোগের বিষয়ে জানতে একাধিকবার এমপি মহিববুর রহমানের মোবাইলে করা হলেও তিনি রিসিভ করেননি। এসএমএস দিলেও তাতে সাড়া দেননি। এমপির ব্যক্তিগত সহকারী তরিকুলের সঙ্গে যোগাযোগ করলে তিনি জানান, এমপি মহোদয় ঢাকায়, আমি গ্রামে। তবে সম্প্রতি একটি জাতীয় দৈনিকে নিজের বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগ খণ্ডন করে এমপি মহিব বলেন, এলাকায় তার স্বচ্ছ ভাবমূর্তি রয়েছে।

এমপি মহিববুরের বিরুদ্ধে এসব অভিযোগের বিষয়ে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আবদুর রহমান সাংবাদিকদের বলেন, এমপি মহিববুরের বিরুদ্ধে অভিযোগের ব্যাপারে আমরা অবগত। স্থানীয় অন্য নেতাদের কাছ থেকেও হাইকমান্ড অভিযোগ পেয়েছে। দ্রুতই তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

পটুয়াখালি

আপনার মতামত লিখুন :

প্রধান সম্পাদক: শাহীন হাসান
সম্পাদক : শাকিব বিপ্লব
শহর সম্পাদক: আক্তার হোসেন
সহকারি সম্পাদক: মো. মুরাদ হোসেন
নির্বাহী সম্পাদক : মো. শামীম
বার্তা সম্পাদক : হাসিবুল ইসলাম
প্রকাশক : তারিকুল ইসলাম


ঠিকানা: শাহ মার্কেট (তৃতীয় তলা),
৩৫ হেমায়েত উদ্দিন (গির্জা মহল্লা) সড়ক, বরিশাল ৮২০০।
ফোন: ০৪৩১-৬৪৮০৭, মোবাইল: ০১৭১৬-২৭৭৪৯৫
ই-মেইল: [email protected], [email protected]
© কপিরাইট বরিশালটাইমস ২০১২-২০১৮
টপ
  পিরোজপুরে শিশুকে ধর্ষণ করল শিশু!  পাথরঘাটায় কলেজছাত্রী হত্যায় বিএনপির সাবেক নেতার যাবজ্জীবন  ভোলায় মুসুল্লি নিহতের প্রতিবাদে ব‌রিশা‌লে বিএনপির বি‌ক্ষোভ  গণধর্ষণের পর যৌনাঙ্গে ছুরিকাঘাত ও শ্বাসরোধে হত্যা  ইংল্যান্ডে কন্টেইনারের ভেতর থেকে ৩৯ মরদেহ উদ্ধার  স্ত্রী-সন্তানসহ সেনা সদস্য নিখোঁজ  বরিশাল র‌্যাবের হাতে জেএমবির সক্রিয় সদস্য গ্রেপ্তার  ছেলেকে বাঁচাতে নদীতে ঝাঁপ দেওয়া ব্যক্তির মরদেহ উদ্ধার  বিমান ভ্রমণ নিরাপদ ও আরামদায়ক করতে আমরা বদ্ধপরিকর: প্রধানমন্ত্রী  পটুয়াখালীতে সপ্তম শ্রেণির ছাত্রীকে ধর্ষণ, যুবক গ্রেপ্তার