৯ ঘণ্টা আগের আপডেট সকাল ১১:৪ ; বুধবার ; আগস্ট ১০, ২০২২
EN Download App
Youtube google+ twitter facebook
×

পটুয়াখালী-কুয়াকাটা সড়কে মৃত্যুকূপ!

কাজী সাঈদ, কুয়াকাটা
১২:০১ পূর্বাহ্ণ, অক্টোবর ২৯, ২০১৭

পটুয়াখালীর কলাপাড়া-কুয়াকাটা মহাসড়ক ২২ কিলোমিটার। কিন্তু তার মধ্যে মৎস্য বন্দর মহিপুর থেকে পাখিমারা বাজার পর্যন্ত ১১ কিলোমিটার মহাসড়কের চরম বেহাল দশা। যতদূর চোখ যায় শুধু গর্ত আর গর্ত। যার ফলে সীমাহীন দুর্ভোগে পড়েছে কুয়াকাটায় আগত পর্যটকসহ জনসাধারণ। ঝুঁকি নিয়েই এখন এ সড়কে চলছে যানবাহন। মোটরসাইকেল, মাইক্রো-প্রাইভেটকার, অটোভ্যান-টমটম, নছিমন, করিমনসহ ছোট যানবাহনে প্রায়ই ঘটছে দুর্ঘটনা।

সড়ক ও জনপথ বিভাগ সড়কের শরীরের ক্ষত স্থানে জোরাতালি অর্থাৎ ঘাঁয়ে মলম লাগিয়েছে কয়েকবার। কিন্তু কাজের কাজ কিছুই হচ্ছে না। ক্ষত এত গভীর থেকে শুরু হয়েছে যে বার বার খোয়া-বালু দিয়ে মেরামত করলেও কাজে আসছে না। বৃষ্টি হলেই যানবাহনের চাকায় মেরামতের মলম উঠে যায়। আবার যেই সেই অবস্থা।

ঠিকাদারের একটি মামলার কারণে সড়কটি সম্পূর্ণভাবে ফের টেন্ডার দিয়ে মেরামত করার সুযোগও নেই বলে দাবি করছে সওজ কর্তৃপক্ষ। সরেজমিনে দেখা গেছে, মৎস্য বন্দর মহিপুর থেকে পাখিমারা পর্যন্ত সড়কটির বিভিন্ন স্থানের কার্পেটিং উঠে গেছে। বের হয়ে গেছে ইট-বালু-খোয়া। বড় বড় গর্তের সৃষ্টি হয়েছে।

সড়ক জুড়ে খানা-খন্দে একাকার। এছাড়া বৃষ্টিতে এসব গর্তে পানি জমে সড়কটির অবস্থা আরও খারাপ হয়ে গেছে। ফলে পণ্যবাহী যানবাহন, মাইক্রো-প্রাইভেট কার চলার সময় কাঁদাপানিতে ছিটে চরম ভোগান্তিতে পড়ছে পথচারীরা। পটুয়াখালী সড়ক ও জনপথ বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, ২০০৯-২০১৪ অর্থ বছরে এ সড়কের উন্নয়ন কাজ করে দ্য রূপসা ইঞ্জিনিয়ার্স লিমিটেড নামের ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান। ওই কাজ মানসম্মত না হওয়ায় তখন ঠিকাদারের বিল আটকে দেয় সওজ কর্তৃপক্ষ।

প্রধান প্রকৌশলীর কার্যালয় থেকে এ নিয়ে ভিন্ন ভিন্ন সময়ে দু’টি দল তদন্ত করে গেছে। তদন্তকারী দলের পক্ষ থেকেও কাজের গুনগত মান ভাল হয়নি বলে প্রতিবেদন দেয়া হয়। বিল আটকে দেয়ার প্রেক্ষিতে রূপসা ইঞ্জিনিয়ার্স লিমিটেডের প্রতিনিধি রাশেদুল ইসলাম পটুয়াখালী দেওয়ানী আদালতে ২০১৪ সালে একটি এবং ২০১৫ সালে দ’ুটি মামলা দায়ের করেন। আদালত মামলার প্রেক্ষিতে পাখিমারা-মহিপুর অংশের ১১ কিমি সড়কের ওপর অস্থায়ী নিষেধাজ্ঞা দিয়ে রেখেছেন। যার ফলে গত তিন বছর ধরে সংস্কারবিহীন অবস্থায় পড়ে আছে এ অংশের সড়কটি। তারপরও বিভাগীয় উদ্যোগে জোড়াতালি দিয়ে কোনমতে মহাসড়কটি পর্যটকের স্বার্থে সচল রাখা হচ্ছে।

আদালতের নিষেধাজ্ঞার কারণে পূর্ণাঙ্গভাবে টেন্ডার দিয়ে মেরামত করা সম্ভব হচ্ছে না। বাস চালকরা জানান, মহিপুর থেকে পাখিমারা পর্যন্ত যাওয়া আসা করতে গর্তের কারণে ধাক্কায় ধাক্কায় যাত্রীদের মাজা ভাঙে। বিশেষ করে যারা বাসের পিছনে থাকে তাদের অবস্থা হয় আরও খারাপ। মাঝে মাঝে বাসের ছাদের সঙ্গে থাক্কা খায়।

কুয়াকাটা হোটেল-মোটেল ওনার্স অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক মোতালেব শরীফ জানান, কলাপাড়া-কুয়াকাটা সড়কের তিনটি সেতু চালু হওয়ায় কুয়াকাটায় পর্যটকের আগমন বহুগুনে বেড়েছে। কিন্তু কুয়াকাটার জন্য এখন প্রতিবন্ধকতা হচ্ছে ১১ কিলোমিটার ভাঙা জোড়াতালি দেওয়া সড়ক। পটুয়াখালীর নির্বাহী প্রকৌশলী মীর নিজাম উদ্দিন সাংবাদিকদের জানান, মহিপুর থেকে পাখিমারা পর্যন্ত মহাসড়কের উন্নয়ন কাজ আদালতের নিষেধাজ্ঞার কারণে করা যাচ্ছে না। আদালত নিষেধাজ্ঞা তুলে নিলে অথবা চলমান মামলার নিষ্পত্তি হলে তিন মাসের মধ্যে কাজটি করা সম্ভব।”

টাইমস স্পেশাল, পটুয়াখালি

 

আপনার মতামত লিখুন :

 
ভারপ্রাপ্ত-সম্পাদকঃ শাকিব বিপ্লব
© কপিরাইট বরিশালটাইমস ২০১২-২০১৮ | বরিশালটাইমস.কম
বরিশালটাইমস মিডিয়া লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান।
ইসরাফিল ভিলা (তৃতীয় তলা), ফলপট্টি রোড, বরিশাল ৮২০০।
ফোন: +৮৮০২৪৭৮৮৩০৫৪৫, মোবাইল: ০১৮৭৬৮৩৪৭৫৪
ই-মেইল: [email protected], [email protected]
© কপিরাইট বরিশালটাইমস ২০১২-২০১৮
টপ
  সাগরে নিম্নচাপ: উপকূলে ঝড়-জলোচ্ছ্বাসের আশঙ্কা  রাতে ঘুমাতে যাওয়ার আগে এই দোয়া পড়বেন  বিএনপির ওপর কোনো অত্যাচার করা হয় নাই: তোফায়েল আহমেদ  রাস্তায় কুড়িয়ে পাওয়া ২ লাখ টাকা ব্যবসায়ীকে বুঝিয়ে দিলেন দিনমজুর  সাংবাদিকের ওপর হামলা: পুলিশ কর্মকর্তা বরখাস্ত: গ্রেপ্তার ৩  কখনও ডিবি পুলিশ আবার কখনও সাংবাদিক পরিচয়ে চাঁদাবাজি  পটুয়াখালী/ গভীর সাগরে ট্রলারডুবি: ২ জেলেসহ নিখোঁজ ৮ ট্রলার  সন্ধ্যানদীতে নিখোঁজ শ্রমিকের লাশ উদ্ধার  ঝালকাঠিতে স্ত্রীকে পিটিয়ে হত্যা: স্বামী আটক  ঝালকাঠির সুগন্ধা নদী থেকে গলিত লাশ উদ্ধার