৫ ঘণ্টা আগের আপডেট সকাল ৫:৪৪ ; সোমবার ; আগস্ট ১০, ২০২০
EN Download App
Youtube google+ twitter facebook
×

পাওনা টাকা চাইলে নির্যাতন করতেন সাহেদ

বিশেষ বার্তা পরিবেশক
৫:২০ অপরাহ্ণ, জুলাই ৯, ২০২০

বার্তা পরিবেশক, অনলাইন :: করোনাভাইরাস মহামারীর মধ্যে চিকিৎসার নামে প্রতারণা এবং জালিয়াতির মাধ্যমে কয়েক কোটি টাকা হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগ উঠেছে রিজেন্ট গ্রুপের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ সাহেদ ওরফে সাহেদ করিমএর বিরুদ্ধে। রিজেন্ট গ্রুপের দুইটি হাসপাতাল ইতোমধ্যে বন্ধ করে দিয়েছে র‌্যাব। সাহেদসহ ১৭ জনকে আসামি করে একটি মামলাও হয়েছে। আইনশৃঙ্খলা বাহিনী এখন তাকে খুঁজছে।

ওই হাসপাতালের বিরুদ্ধে বিভিন্ন অভিযোগের কথা বলার চেষ্টা করেছেন রোগী ও স্বজনরা, কিন্তু সাহেদের প্রভাবের কাছে তা চাপা পড়ে গেছে। এখন রিজেন্ট হাসপাতাল বন্ধ হওয়ার পর বেরিয়ে আসছে সাহেদের নানা কীর্তির কথা।

উত্তরার ১২ নম্বর সেক্টরের রিজেন্ট গ্রুপের প্রধান কার্যালয়ে ঢোকার প্রবেশ মুখেই বসানো হয়েছে সিসিটিভি ক্যামেরা। এখান থেকেই সমস্ত অপকর্ম নিয়ন্ত্রণ করতো রিজেন্ট গ্রুপের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ শাহেদ। বাইরে থেকে দেখে বোঝার উপায় এই ভবনটিতেই কি কি আছে। ভবনটিতে ছিল শাহেদের নিজস্ব টর্চার সেলও। টাকা চাইতে আসলেই করা হতো নির্যাতন।

এক ভুক্তভোগী বলেন, এখানে তার কাছে টাকার জন্য গিয়ে ছিলাম। টাকা চাওয়া মাত্রই তার লোকজন আমার দুই হাত ধরে থেকে ওই রুমটি দরজা বন্ধ করে দিল। এরপরই তিনি আমাকে মারধর করতে থাকেন। এমনকি পাওনাদারকে নারী দিয়ে হেনস্তা করাও ছিলো শাহেদের অন্যতম কাজ। ভুক্তভোগীরা আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কাছে গিয়ে অভিযোগ করতে পারতো না শাহেদের বিরুদ্ধে।

একজন বলেন, হাওয়া ভবনের সঙ্গে তার ভালো যোগাযোগ ছিল। এবং গুলশান যুব দলের সভাপতির তার কাছে লোক ছিল। এসব কারণে তার বিরুদ্ধে কেউ নালিশ করতে পারতো না। উত্তরার ১২ নম্বর সেক্টরের রিজেন্ট গ্রুপের প্রধান কার্যালয়ে ঢোকার প্রবেশ মুখেই বসানো হয়েছে সিসিটিভি ক্যামেরা। এখান থেকেই সমস্ত অপকর্ম নিয়ন্ত্রণ করতো রিজেন্ট গ্রুপের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ শাহেদ।

র‌্যাব জানায়, কেঁচো খুড়তে গিয়ে আমরা অ্যানাকোন্ডা পেয়েছি। এতদিন প্রতারণার মাধ্যমে বিপুল টাকার অর্জন করেই তিনি অবস্থানে এসেছেন। যখনই কারো সঙ্গে পরিচয় হয়েছে, তখন তিনি নিজেকে আর্মির মেজর, কখনো কর্নেল পরিচয় দিয়েছেন।

এবং বিভিন্ন আইডি কার্ড তৈরি করে ভিন্ন ভিন্ন নিজের নাম দিয়ে প্রতারণা করেছে। এছাড়া প্রধানমন্ত্রীর অফিসের পরিচয় দিয়েও প্রতারণার প্রমাণ পাওয়া গেছে। এই প্রতারণা করে নানা জায়গা থেকে টাকা ধার নিয়ে আর কোটি টাকা মালিক হয়েছে।

জাতীয় খবর

আপনার মতামত লিখুন :

 

সম্পাদক : হাসিবুল ইসলাম
© কপিরাইট বরিশালটাইমস ২০১২-২০১৮ | বরিশালটাইমস.কম
বরিশালটাইমস লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান।
শাহ মার্কেট (তৃতীয় তলা),
৩৫ হেমায়েত উদ্দিন (গির্জা মহল্লা) সড়ক, বরিশাল ৮২০০।
ফোন: ০৪৩১-৬৪৮০৭, মোবাইল: ০১৮৭৬৮৩৪৭৫৪
ই-মেইল: [email protected], [email protected]
© কপিরাইট বরিশালটাইমস ২০১২-২০১৮
টপ
  বরিশালে কলেজছাত্রীকে দলবেঁধে ধর্ষণ, তিনজন গ্রেপ্তার  বাবুগঞ্জে বঙ্গমাতার জন্মবার্ষিকীতে সেলাই মেশিন বিতরণ  আর নেই কিংবদন্তি গীতিকার আলাউদ্দিন আলী  আদালতের নির্দেশ অমান্য করে বাকেরগঞ্জে ভবন নির্মাণ  নথুল্লাবাদে লিটন মোল্লার চাঁদাবাজি চলছেই, আটক শ্যালক  কুয়াকাটায় পালিত হয়েছে আন্তর্জাতিক আদিবাসী দিবস  এএসআইকে প্রকাশ্যে ওসির মারধর: তদন্ত কমিটি গঠন  বেপরোয়া পটুয়াখালির এমপি মুহিবের সন্ত্রাসী বাহিনী, ছাত্রলীগ নেতার সংবাদ সম্মেলন  কলাপাড়ার সাবমেরিন কেবলে জটিলতা, ইন্টারনেটে ধীরগতি  করোনা প্রাদুর্ভাবে কুয়াকাটায় নেই পর্যটকদের সেই আনাগোনা