১৫ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, শনিবার

পিরোজপুরে ইউএনও’র গাড়ি ধাক্কায় ২ পরীক্ষার্থী গুরুতর আহত

বরিশাল টাইমস রিপোর্ট

প্রকাশিত: ০৬:২১ অপরাহ্ণ, ১৭ নভেম্বর ২০১৯

বার্তা পরিবেশক, পিরোজপুর:: পিরোজপুরের মঠবাড়িয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার গাড়ির ধাক্কায় ২ পিইসি পরীক্ষার্থী গুরুতর আহত হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে রোববার দুপুরে ভান্ডারিয়া-বরিশাল আঞ্চলিক মহাসড়কের উপজেলার দক্ষিণ ইকড়ি নামক স্থানে।

জানা গেছে, জেলার মঠবাড়িয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জিএম সরফরাজকে বহন করা সরকারী গাড়ীর ধাক্কায় (পিরোজপুর ঘ-১১-০০১০) দুপুরে পারভীন (১০) ও ফাতিমা (৯) নামের ভান্ডারিয়ার প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনীর (পিইসি) দুই পরীক্ষার্থী গুরুতর আহত হয়েছেন।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, ভান্ডারিয়া উপজেলার ইকড়ি ইউনিয়ন মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে পিইসি পরীক্ষা শেষে ওই ২ পরীক্ষার্থী অন্যান্য মেয়েদের সঙ্গে বাড়ি ফিরছিল। এসময় তারা ভান্ডারিয়া-বরিশাল আঞ্চলিক মহাসড়কের দক্ষিণ ইকড়ি সংলগ্ন সড়কে পৌঁঁছলে রাস্তা পাড়া পাড়ের সময় বরিশালগামী পিরোজপুর ঘ-১১-০০১০ নম্বরের একটি জিপ গাড়ি (মঠবাড়ীয়া ইউএনও গাড়ী) তাদের ধাক্কা দিলে তারা গুরুতর আহত হয়। আহতদের প্রথমে ভান্ডারিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এবং পড়ে বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে পাঠানো হয়।

ভান্ডারিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. মো. বেল্লাল হোসেন বরিশালটাইমসকে জানান, আহতদের মধ্যে শিক্ষার্থী পারভীন এর অবস্থা আশঙ্কাজনক। তার নাক ও মুখ থেকে রক্তক্ষরণ হচ্ছে।

এ ব্যাপারে মঠবাড়িয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জিএম সরফরাজ বরিশালটাইমসকে জানান, ওই গাড়িতে করে তখন তিনি অফিসিয়াল কাজে বরিশাল যাচ্ছিলেন। কিন্তু এ সময় ইকড়ি নামক স্থানে বসে একটি ব্যাটারি চালিত অটোরিকশা রাস্তার ওপর থামিয়ে যাত্রী নামাচ্ছিলো। এ সময় ওই অটোতে থাকা ওই ২ ছাত্রী নেমে দৌড়ে রাস্তা পাড় হচ্ছিলো। এ সময় তারা গাড়িতে ধাক্কা খেয়ে আহত হয়। আহতদের উদ্ধার করে তিনি (ইউএনও) চিকিৎসার জন্য উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান।

9 বার নিউজটি শেয়ার হয়েছে
  • ফেইসবুক শেয়ার করুন