১০ ঘণ্টা আগের আপডেট সকাল ১১:৫১ ; শুক্রবার ; নভেম্বর ২৭, ২০২০
EN Download App
Youtube google+ twitter facebook
×

প্রশাসনের চোখ ফাঁকি দিতে ভোররাতে মা ইলিশ নিধন

বিশেষ বার্তা পরিবেশক
১:১৯ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ২৮, ২০২০

নিজস্ব প্রতিবেদক, বরিশাল:: ঝালকাঠির রাজাপুরের চল্লিশ কাহনিয়া ও বাদুরতলায় প্রশাসনের চোখ এড়াতে ভোররাতে মা ইলিশ নিধনে নামে অসাধু জেলেরা। আবছা আঁধার থাকতেই আবার তীরে উঠে আসে তারা। আবার বড় বড় ইলিশ বিক্রিও করে নদীর পাড়েই। কম দামে বড় ইলিশ পেয়ে ব্যাগ-বস্তা নিয়ে হাজির হন ক্রেতারাও।
জানা গেছে, প্রশাসন ও মৎস্য বিভাগ সারারাত অভিযান চালিয়ে ভোররাতে চলে যায়। সেই সুযোগটাই ব্যবহার করে অসাধু কিছু জেলে। জেল-জরিমানা, হুঁশিয়ারি- কোনো কিছুতেই যেন ভয় পায় না তারা।

ঝালকাঠি জেলা আইনজীবী সমিতির এক সদস্য বলেন, আমার বাড়ি চল্লিশ কাহনিয়া এলাকায়। ওখানকার জেলেরা আমাকে ডিমওয়ালা ১ কেজি ওজনের ইলিশ ৪০০ টাকায় দিতে চেয়েছে। আমি তাদের কথায় সাড়া দেইনি।

এসব জেলের কৌশল সম্পর্কে তিনি বলেন, ভোররাতে জেলেরা নদীতে ডিমওয়ালা ইলিশ শিকারে নামে। সকাল সকাল আবার তীরে ওঠে। ইলিশ ধরার নৌকা মূল নদীর পাশের ছোট খালে রেখে সেখানেই জাল থেকে মাছ ছাড়িয়ে নেয়। এরপর ব্যাগ, ওষুধের বাক্স, ছোট-বড় কার্টন, সিলিং ফ্যানের বাক্সসহ বিভিন্ন অভিনব পদ্ধতিতে অগ্রিম বুকিং দেয়া ক্রেতাদের কাছে পৌঁছে দেয়।

খোঁজ নিয়ে আরো জানা গেছে, নিষেধাজ্ঞা সত্ত্বেও ঝালকাঠির নলছিটিতে সুগন্ধা ও বিষখালী নদীতে চলছে মা ইলিশ নিধনের মহোৎসব। শতাধিক অসাধু জেলে প্রতিদিন প্রশাসনের চোখ এড়াতে ভোররাতে সুগন্ধা নদীর সরই, মাটিভাঙ্গা, ফেরিঘাট, নাইয়াপাড়া, খোঁজাখালী, অনুরাগ, দপদপিয়া পুরাতন ফেরিঘাট ও বিষখালী নদীর দেউরী, ভেরনবাড়িয়া, নলবুনিয়া, ভবানীপুর এলাকায় অবাধে মা ইলিশ নিধন করে। এভাবে প্রতিদিন কয়েক মণ ইলিশ ধরা পড়ছে জেলেদের জালে। প্রভাবশালী সিন্ডিকেটের সহায়তায় এসব ইলিশ বিক্রিও হচ্ছে গোপনে।

ঝালকাঠি জেলা মৎস্য কর্মকর্তা বাবুল কৃষ্ণ ওঝা বলেন, জেলা প্রশাসন, উপজেলা প্রশাসন ও পুলিশ সদস্যদের নিয়ে আমরা অভিযান চালাচ্ছি। ২৪ ঘণ্টায় ৯টি অভিযানে ৯৫ কেজি ইলিশ ও সাড়ে ৩ হাজার মিটার কারেন্ট জাল উদ্ধার করা হয়েছে। এছাড়া কয়েকজনকে জেল-জরিমানা করা হয়েছে। মাছগুলো এতিমখানায় বিতরণ ও জাল পুড়িয়ে ফেলা হয়েছে।

ঝালকাঠির ডিসি মো. জোহর আলী বলেন, মা ইলিশ রক্ষায় আমরা কঠোর অবস্থানে রয়েছি। কোনো জেলেকে নদীতে ইলিশ শিকার করতেতে দেখলেই আটক করে আইনি ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে। এ পর্যন্ত শতাধিক অভিযান চালিয়ে অর্ধশতাধিক মামলা হয়েছে। কয়েকশ কেজি মা ইলিশ উদ্ধার করা হয়েছে। নিষেধাজ্ঞা চলাকালীন আমাদের অভিযান অব্যাহত থাকবে।

ঝালকাঠির খবর

আপনার মতামত লিখুন :

 

এই বিভাগের অারও সংবাদ
ভারপ্রাপ্ত-সম্পাদকঃ শাকিব বিপ্লব
© কপিরাইট বরিশালটাইমস ২০১২-২০১৮ | বরিশালটাইমস.কম
বরিশালটাইমস লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান।
শাহ মার্কেট (তৃতীয় তলা),
৩৫ হেমায়েত উদ্দিন (গির্জা মহল্লা) সড়ক, বরিশাল ৮২০০।
ফোন: ০৪৩১-৬৪৮০৭, মোবাইল: ০১৮৭৬৮৩৪৭৫৪
ই-মেইল: [email protected], [email protected]
© কপিরাইট বরিশালটাইমস ২০১২-২০১৮
টপ
  হাসপাতালে আগুন: পুড়ে মারা গেল করোনা আক্রান্ত ৫ রোগীর মৃত্যু  মন্ত্রিসভার সদস্যদের সম্পদের হিসাব নেওয়া হচ্ছে!  ২৫ ঘরে ভয়াবহ আগুন, রাস্তা দিয়ে ঢুকতে পারছে না ফায়ার সার্ভিস  লালমোহনে প্রকাশ্যে যুবককে পিটিয়ে টাকা ও মোবাইল ছিনতাই  বরিশালসহ দেশের ৮ বিভাগে নির্মিত হবে ‘আইকনিক মসজিদ’  আগুনের সাথে ৮ বছরের স্বপ্ন পুড়ে ছাই বৃদ্ধ রিকশাচালকের  ভুয়া অনলাইনের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে: তথ্যমন্ত্রী  জানাজায় যাওয়ার পথে চেয়ারম্যানের হাত-পায়ের রগ কাটল প্রতিপক্ষ  করোনায় দেশে ২৪ ঘণ্টায় কেড়ে নিলো আরও ৩৭ জনের প্রাণ  এক সন্তানের মাকে ধর্ষণের পর হত্যা, শ্বশুর গ্রেফতার