২৪শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, শুক্রবার

বজ্রাঘাতে প্রাণ গেল ১০ জনের

বরিশাল টাইমস রিপোর্ট

প্রকাশিত: ০৯:৫৯ অপরাহ্ণ, ২০ মে ২০২১

বজ্রাঘাতে প্রাণ গেল ১০ জনের

নিজস্ব প্রতিবেদক, বরিশাল >> বৃহস্পতিবার (২০ মে) তিন জেলায় বজ্রাঘাতে ১০ জনের মৃত্যু হয়েছে। সকাল থেকে বিকেল পর্যন্ত বৃষ্টি ও ঝোড়ো হাওয়ার সময় বজ্রপাতে জামালপুরে ৬ জন, চাঁপাইনবাবগঞ্জে তিনজন ও সিলেটে একজনের মৃত্যু হয়েছে।

একাধিক পত্রিকায় খবর এসেছে, জামালপুরের ইসলামপুরে পৃথক বজ্রপাতে ৬জনের মৃত্যু হয়েছে। বৃহস্পতিবার (২০ মে) বিকেলে উপজেলার পাথর্শী, গাইবান্ধা, সাপধরী ও পলবান্ধা ইউনিয়নে বৃষ্টি ও ঝোড়ো হাওয়ার সময় বজ্রপাতে তাদের মৃত্যু হয়। এসব ঘটনায় আরও ৫ জন আহত হয়েছেন।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, বিকেলে বৃষ্টি ও ঝোড়ো হাওয়ার সঙ্গে হঠাৎ বজ্রপাত শুরু হয়। বৃষ্টির মধ্যে মাঠে কাজ করার সময় উপজেলার চার ইউনিয়নে পৃথক বজ্রপাতে এ ছয়জনের মৃত্যু হয়। এ সময় এক নারীসহ আরও পাঁচজন আহত হন। আহতদের ইসলামপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

ইসলামপুর থানা পুলিশের ওসি মাজেদুর রহমান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ ও নাচোল উপজেলায় বজ্রপাতে তিনজনের মৃত্যু হয়েছে। বৃহস্পতিবার (২০ মে) দুপুর থেকে বিকেল পর্যন্ত পৃথক বজ্রপাতে তাদের মৃত্যু হয়। শিবগঞ্জ থানা পুলিশের ওসি ফরিদ উদ্দীন ও নাচোল থানার ওসি সেলিম রেজা এ সাংবাদিকদের তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

নিহতরা হলেন- শিবগঞ্জ উপজেলার মোবারকপুর ইউনিয়নের আব্দুস সাত্তারের ছেলে কৃষক মো. জালাল উদ্দিন (৩৭), চাঁদপুরের আবু তালেবের স্ত্রী রহিমা খাতুন এবং নাচোল উপজেলার আঝোইড় গ্রামের ওবাইদুর রহমানের মেয়ে মারুফা খাতুন (০৯)।

শিবগঞ্জ উপজেলার মোবারকপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান তৌহিদুর রহমান মিঞা জানান, বৃহস্পতিবার বেলা ২টার দিকে মোবারকপুর গ্রামের একটি বিল থেকে ধান কেটে বাড়ি ফেরার সময় বজ্রপাত হলে ঘটনাস্থলেই জালালের মৃত্যু হয়।

শিবগঞ্জ থানার ওসি ফরিদ উদ্দীন সাংবাদিকদের জানান, গৃহবধূ রহিমা খাতুন ঝড়ের সময় আম কুড়াতে গেলে বজ্রপাতে তার মৃত্যু হয়। এদিকে নাচোল থানার ওসি সেলিম রেজা ঢাকা পোস্টকে জানান, দুপুরে বাড়ির পাশে আম কুড়াতে গেলে বজ্রপাতে শিশু মারুফা খাতুনের মৃত্যু হয়।

এদিকে সিলেটের গোয়াইনঘাট উপজেলায় বজ্রপাতে বাবুল মিয়া (৩৩) নামে এক কৃষক নিহত হয়েছেন। বৃহস্পতিবার (২০ মে) সকালে তিনি মারা যান। নিহত বাবুল উপজেলার কাকুনাখাই গ্রামের মৃত আব্দুল হকের ছেলে।

পুলিশ জানায়, সকালে বৃষ্টির মধ্যে জমিতে কাজ করছিলেন বাবুল। এ সময় বজ্রপাত হলে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। পরে স্থানীয়রা তার মরদেহ উদ্ধার করে।

গোয়াইনঘাট থানা পুলিশের ওসি আব্দুল আহাদ সাংবাদিকদের বলেন, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। নিহতের স্বজনদের কাছে ময়নাতদন্ত ছাড়াই মরদেহ হস্তান্তর করা হয়েছে।’

5 বার নিউজটি শেয়ার হয়েছে
  • ফেইসবুক শেয়ার করুন