২ মিনিট আগের আপডেট সন্ধ্যা ৭:৩ ; শুক্রবার ; ডিসেম্বর ৯, ২০২২
EN Download App
Youtube google+ twitter facebook
×

বদির চার ভাইসহ ১০১ ইয়াবা কারবারির কারাদণ্ড

Mahadi Hasan
৫:৫৫ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ২৩, ২০২২

বদির চার ভাইসহ ১০১ ইয়াবা কারবারির কারাদণ্ড

নিজস্ব প্রতিবেদক, বরিশাল: কক্সবাজারের টেকনাফে আত্মসমর্পণ করা ১০১ ইয়াবা কারবারির মামলায় প্রত্যেককে দেড় বছর করে কারাদণ্ড ও ২০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

এ ছাড়া অস্ত্র মামলা থেকে তাদের খালাস দেওয়া হয়েছে। বুধবার কক্সবাজারের জ্যেষ্ঠ জেলা ও দায়রা জজ আদালত মোহাম্মদ ইসমাইল এ রায় ঘোষণা করেন।

রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) ফরিদুল আলম বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, ‘১ বছর ৬ মাস সশ্রম কারাদণ্ড ও ২০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড করা হয়েছে। ইতিপূর্বে যারা হাজতবাসে ছিলেন তা বাদ যাবে। এছাড়া অস্ত্র আইনে অভিযোগ সন্দেহাতীত ভাবে প্রমাণিত না হওয়ায় বেকসুর খালাস প্রদান করেছে আদালত।

এ মামলায় ইতিমধ্যে ১৭ জন কারাগারে থাকলেও পলাতক রয়েছে ৮৪ জন। গত ১৫ নভেম্বর এসব ইয়াবা কারবারি আদালতে অনুপস্থিত থাকায় তাদের জামিন বাতিল করে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেছেন আদালত।

দণ্ডপ্রাপ্ত আসামিদের মধ্যে আছেন সাবেক সংসদ সদস্য আব্দুর রহমান বদির চার ভাই (আব্দুল আমিন, আব্দুর শুক্কুর, শফিকুল ইসলাম, ফয়সাল রহমান), ভাগনে সাহেদ রহমান নিপু, চাচাতো ভাই মোহাম্মদ আলম।

আরও আছেন টেকনাফ সদর ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান জিয়াউর রহমান জিহাদ এবং তার বড় ভাই আব্দুর রহমান, বর্তমান জেলা পরিষদ সদস্য ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান জাফর আহমেদের ছেলে দিদার মিয়া, টেকনাফ পৌরসভার ৯ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর নুরুল বশর নুরশাদ, টেকনাফ সদর ইউনিয়নের এনামুল হক এনাম মেম্বারসহ অনেকে।

আদালত সূত্রে জানা গেছে, ২০১৯ সালের ১৬ ফেব্রুয়ারি টেকনাফ পাইলট হাইস্কুল মাঠে ১০২ জন ইয়াবাকারবারী আত্মসমর্পণ করে। মামলা চলাকালে সোহেল নামে এক আসামি কারাগারে মারা গেছেন।

আত্মসমর্পণের পর তাদের কাছ থেকে সাড়ে তিন লাখ ইয়াবা ট্যাবলেট এবং ৩০টি দেশি অবৈধ অস্ত্র উদ্ধার করা হয়েছে। এ বিষয়ে আত্মসমর্পণকারী আসামিদের বিরুদ্ধে টেকনাফ মডেল থানায় মাদক ও অস্ত্র আইনে তৎকালীন ওসি (তদন্ত) এবিএমএস দোহা বাদী হয়ে পৃথক দুটি মামলা দায়ের করেন।

মামলায় রাষ্ট্রপক্ষে ২১ জন সাক্ষীর সাক্ষ্য গ্রহণ এবং আসামিদের পক্ষে সাক্ষীদের জেরা করা হয়। আলামত প্রদর্শন, রাসায়নিক পরীক্ষা ফলাফল যাচাই, আসামিদের আত্মপক্ষ সমর্থণের সুযোগ দেওয়াসহ মামলাটির বিচারিক কার্যক্রম শেষ হয়েছে।

আদলতে আসামিদের পক্ষে মামলা পরিচালনা করেন অ্যাডভোকেট মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর, অ্যাডভোকেট মো. মোস্তফা, আবুল কালাম আজাদ ও আবু সিদ্দিক ওসমানী।

এদিকে, রায়ে অসন্তোষ প্রকাশ করেছে স্থানীয় সুশীল সমাজের প্রতিনিধিরা। তাদের মতে ইয়াবা কারবারিদের আরও কঠোর শাস্তি হওয়ার দরকার ছিল। যাতে করে নতুন করে কেউ মাদক কারবারে না জড়ায়।

দেশের খবর

 

আপনার মতামত লিখুন :

 
এই বিভাগের অারও সংবাদ
ভারপ্রাপ্ত-সম্পাদকঃ শাকিব বিপ্লব
© কপিরাইট বরিশালটাইমস ২০১২-২০১৮ | বরিশালটাইমস.কম
বরিশালটাইমস মিডিয়া লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান।
ইসরাফিল ভিলা (তৃতীয় তলা), ফলপট্টি রোড, বরিশাল ৮২০০।
ফোন: +৮৮০২৪৭৮৮৩০৫৪৫, মোবাইল: ০১৮৭৬৮৩৪৭৫৪
ই-মেইল: [email protected], [email protected]
© কপিরাইট বরিশালটাইমস ২০১২-২০১৮
টপ
  গোলাপবাগ মাঠেই মাগরিবের নামাজ পড়লেন বিএনপি নেতাকর্মীরা    যাত্রীসংকটের অজুহাতে বরিশাল-ঢাকা রুটে লঞ্চ চলাচল বন্ধ  উজিরপুরে বিএনপির ৫৪ নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে মামলা  কলেজশিক্ষকের আপত্তিকর ভিডিওতে নেটদুনিয়ায় ঝড়!  মির্জা ফখরুল-আব্বাসকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ  বিএনপির সমাবেশ: ৫ দিন আগেই ঢাকা পৌঁছেছেন দক্ষিণবঙ্গের নেতাকর্মীরা  অনুমতি পেয়েই গোলাপবাগ মাঠে বিএনপি নেতাকর্মীদের ভিড়  সমাবেশ ঘিরে রাজধানীতে ৭ লাখ মানুষ এসেছে কি না খোঁজ চলছে: ডিবি  ১৮-২৫ বছর বয়সীদের কনডম ফ্রি দেবে ফ্রান্স