২৯শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, বুধবার

বরিশালের বাজারে ইলিশ আর ইলিশ

বরিশাল টাইমস রিপোর্ট

প্রকাশিত: ১২:০৯ পূর্বাহ্ণ, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০১৬

আকাশে মেঘের ঘনঘটা আর গুরু-গম্ভীর মেঘের অবিরাম বর্ষণ। বর্ষাকালের এই চিরচেনা ছবির সঙ্গে মিশে আছে ইলিশের সম্পর্ক। কিন্তু বেশ কিছুদিন যাবত যেন কাঙ্খিত এই ইলিশের দেখা মিলছিলো না। তবে অনেকটা ব্যতিক্রমীভাবেই এখন অধরা রুপালি ইলিশ ধরা পড়তে শুরু করেছে। বাজার জুড়ে দেখা যাচ্ছে বিভিন্ন আকারের প্রচুর ইলিশ, যা বিগত বছরগুলোর চেয়ে ব্যতিক্রম বলে মনে করছেন জেলেরা। বর্ষায় হঠাৎ করে বরিশালের পাইকারী বাজারগুলোতে এভাবে প্রচুর ইলিশ আসতে শুরু করায় খুশি জেলে ও ইলিশ ব্যবসায়ীরা। অবশ্য ইলিশ রফতানি বন্ধ থাকাতেও অভ্যন্তরীণ বাজারে ইলিশের সরবরাহ বেড়েছে। জেলা মৎস্য কর্মকর্তা (ইলিশ) বিমল দাশ মনে করেন, এসবই প্রজনন মৌসুমে মা-ইলিশ রক্ষায় কঠোর অভিযানের ফল। এবার  ইলিশ রক্ষায় সাঁড়াশি অভিযান পরিচালিত হওয়ায় মা ইলিশ রক্ষা পায়। ফলে জেলেদের জালে উঠে আসছে রুপালি ইলিশ। জেলেরাও খুশি।

 

মৌসুমের শুরুতেই বড়ো ইলিশ পাওয়ায় তারা আশাবাদী অন্যান্য সময়েও ভালো মাছ পাওয়ার। বরিশাল পাইকারি ইলিশ মোকামে ব্যস্ত সময়ে ২-৩ হাজার মণ ইলিশ কেনা-বেচা হয়। এছাড়া খুচরা বাজার ও সরাসরি বিক্রিরও ব্যবস্থা রয়েছে।’ মৎস্য কর্মকর্তা আরও  জানান, মা-ইলিশের ডিম ছাড়া ও রক্ষার জন্য এবারও ১২ অক্টোবর থেকে ২২ দিনের জন্য অভ্যন্তরীন নদ-নদী ও হাট-বাজারে ইলিশ ধরা ও বিপনন বন্ধ থাকবে। গত এক মাসের তুলনায় ইলিশের দাম ২০-২৫ ভাগ কমেছে।

 

তবে বাজারে ইলিশের সমারোহ ও সরবরাহ বাড়লেও বড়ো সাইজের দাম আগের মতই আকাশচুম্বী। অবশ্য বরিশালের ইলিশ মোকামে অভ্যন্তরীন নদ-নদীর চেয়ে নদীর মোহনা তথা সাগরে ধরা পড়া ইলিশই বেশি। মৎস্য ব্যবসায়ী সমিতির যুগ্ম সম্পাদক নীরব হোসের টুটুল জানান, স্বাদের তারতম্যের কারণে নদী ও নদীর মোহনার ভেতরে ধরা পড়া মাছের সঙ্গে গভীর সমুদ্রে ধরা পড়া মাছের দামে পার্থক্য রয়েছে।

 

সাগরে ধরা মাছের দাম শতকরা ২০-২৫ ভাগ কম। এখন মাছের চালান কম, অমাবশ্যার পরে আবারও বাড়বে। বরিশাল ইলিশ মোকামের ‘দিনা মৎস্য’ আড়তের ম্যানেজার রুহুল আমিন জানান, রবিবার দেড় কেজির বেশি ওজনের  ইলিশের দাম মণ প্রতি ৮০ হাজার টাকা ছাড়িয়ে যায়। এক কেজি থেকে ১৪৯০ গ্রামের দাম মণ প্রতি দাম ৪০-৪৬ হাজার টাকা। এলসি অর্থাৎ ৬শ গ্রাম থেকে কেজির নিচের ইলিশের দাম ২৫ হাজার থেকে ৩০ হাজার টাকা বলে এ পাইকারী বিক্রেতা জানান। তবে ৬শ গ্রামের নিচের মাছের দাম বেশ কমেছে। প্রতি মণ ১৬-১৮ হাজার টাকায় বিক্রি হচ্ছে। আর জাটকার দাম ৮-১০ হাজার টাকা।

13 বার নিউজটি শেয়ার হয়েছে
  • ফেইসবুক শেয়ার করুন