১৬ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, রবিবার

বরিশালে ডায়াগনস্টিকের আড়ালে চলতো কায়েসের মাদক ব্যবসা

বরিশাল টাইমস রিপোর্ট

প্রকাশিত: ০২:১২ অপরাহ্ণ, ২৯ অক্টোবর ২০১৯

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক:: বরিশাল শহরের চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ি এসএম কায়েসকে অবশেষে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। সোমবার সন্ধ্যা রাতে তাকে বিবির পুকুর পাড় সদর রোডে থেকে দুই বোতল ফেন্সিডিলসহ গ্রেপ্তার করে। পাশেই বাটারগলিতে কায়েসের মালিনাধীন ‘কনিকা ডায়াগনস্টিক সেন্টার’।

ডিবি পুলিশ জানায়- এই ডায়াগনস্টিক সেন্টারটির আড়ালে কায়েস দীর্ঘদিন ধরে মাদকের বাণিজ্য চালিয়ে আসছিল। কিন্তু হাতে শক্ত কোন প্রমাণ না থাকায় তাকে গ্রেপ্তারে অগ্রসর হওয়া যাচ্ছিল না।

সোমবার রাতে প্রাপ্ত খবরে নিশ্চিত হয়ে অভিযান চালিয়ে তার ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানের অদুর সদর রোড থেকে গ্রেপ্তার করে। এসময় কায়েসের কাছ থেকে দুই বোতল ফেন্সিডিলসহ উদ্ধার করে। ডিবি পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) নজরুল ইসলাম এই সফল অভিযান পরিচালনা করেন।

একটি নির্ভরযোগ্য সূত্র জানায়- মাদক ব্যবসায়ি কায়েসের মেট্রোপলিটন কোতয়ালি মডেল থানা পুলিশের উপ-পরিদর্শক মর্যাদার এক কর্মকর্তার গভীর সখ্যতা রয়েছে। সেই পুলিশ কর্মকর্তাকে প্রায়শই কায়েসের মালিকানাধীন ডায়াগনস্টিক সেন্টারে যাতায়াত করতে দেখা যায়। এমনকি ডায়াগনস্টিক সেন্টারের অভ্যন্তরে তিনি বন্ধু হিসেবে পরিচিত কায়েসের সাথে বিশেষ আড্ডায় বসতেন বলেও শোনা যাচ্ছে।

পুলিশের একটি সূত্র জানায়- কায়েসকে ফেন্সিডিলসহ গ্রেপ্তারের পরে ওই পুলিশ কর্মকর্তাকে বেশ কয়েক দফা সুপারিশ রাখেন তাকে ছাড়িয়ে নিতে। এমনকি বিভিন্ন মাধ্যমে ডিবি পুলিশকে অথনৈতিক প্রস্তাবও দেওয়া হয়।

একজন মাদক বিক্রেতার সাথে এসআইয়ের সংখ্যতার বিষয়টি পুলিশের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের চিন্তায় ফেলে দেয়। ফলে এই বিষয়টি সম্পর্কে খতিয়ে দেখাও হচ্ছে।

কায়েসকে গ্রেপ্তারের বিষয়টি নিশ্চিত ডিবি পুলিশের এসআই নজরুল ইসলাম বরিশালটাইমসকে জানান, এই ঘটনায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে একটি মামলা দায়ের পরবর্তী তাকে কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে।

এদিকে পুলিশ কর্মকর্তা ও মাদক ব্যবসায়ি কায়েসের সাথে সখ্যতার বিষয়টি নিয়ে বরিশালটাইমসের তদন্ত চলমান রয়েছে। পরবর্র্তীতে মাদক ব্যবসায়ির সাথে তার সখ্যতার কারণ এবং বিভিন্ন অপরাধের প্রতিবেদন তুলে ধরা হবে।’

10 বার নিউজটি শেয়ার হয়েছে
  • ফেইসবুক শেয়ার করুন