১ min আগের আপডেট বিকাল ১:৩০ ; রবিবার ; অক্টোবর ২, ২০২২
EN Download App
Youtube google+ twitter facebook
×

বরিশালে ভূয়া মুক্তিযোদ্ধা শনাক্তেও উৎকোচ!

বরিশাল টাইমস রিপোর্ট
৬:৫১ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ১৩, ২০১৬

বরিশাল: মুক্তিযোদ্ধা মন্ত্রীর নির্দেশে পাঁচ ভূয়া মুক্তিযোদ্ধার গেজেট বাতিলের আবেদন তদন্তে গঠিত তিন সদস্যর কমিটির বিরুদ্ধে উৎকোচ গ্রহণের মাধ্যমে অভিযোগকারী ও স্বাক্ষীদের হয়রানীসহ তদন্ত কার্যক্রমে পেশী শক্তি প্রদর্শনের অভিযোগ পাওয়া গেছে। ফলে নামেমাত্র ওই তদন্ত কার্যক্রম প্রত্যাখ্যান করেছেন যুদ্ধকালীন বরিশাল সাব সেক্টরের সেকেন্ড ইন কমান্ড বীর মুক্তিযোদ্ধা এম.এ হক (বীর বিক্রম) সহ আবেদনকারী ও স্বাক্ষী মুক্তিযোদ্ধারা। ঘটনাটি জেলার গৌরনদী উপজেলার সরিকল ইউনিয়নের।

 
গত বুধবার স্থানীয় প্রেসক্লাবে হাজির হয়ে আবেদনকারী বীর মুক্তিযোদ্ধা সোহরাব হোসেন খান, সাক্ষী বীর মুক্তিযোদ্ধা এমএ হক (বীর বিক্রম)সহ অন্যান্য মুক্তিযোদ্ধারা অভিযোগ করেণ যে- সরিকল ইউনিয়নের শাহাজিরা গ্রামের আব্দুর রহমান খান, মোবারেক হোসেন হাওলাদার, দক্ষিণ সাকোকাঠী গ্রামের মোতালেব শিকদার, তাজেম আলী চৌকিদার ও আব্দুল খালেক মোল¬া মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহন কিংবা যুদ্ধচলাকালীন সময়ে মুক্তিযোদ্ধাদের কোন সাহায্য সহানুভূতিও করেননি। অথচ উপজেলা কমান্ডের সাবেক (সদ্য প্রয়াত) এক কমান্ডারের সাথে মোটা অংকের টাকা লেনদেনের মাধ্যমে তারা মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে গেজেটভূক্ত হয়ে ভাতা গ্রহণ করছে। তাদের গেজেট বাতিলের দাবিতে মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সরিকল ইউনিয়ন কমিটির সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা সোহরাব হোসেন খান চলতি বছরের ১৮ ফেব্র“য়ারি মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রীর বরাবরে একটি আবেদন করেন।’

ওই আবেদনের প্রেক্ষিতে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ.ক.ম মোজাম্মেল হক বিষয়টি তদন্ত করে দ্রুত ব্যবস্থা নিতে গত ৭ মার্চ বরিশাল জেলা প্রশাসককে নির্দেশ দেন। জেলা প্রশাসক গৌরনদী উপজেলা নির্বাহী অফিসারকে বিষয়টি তদন্তের দায়িত্ব দিলে তিনি উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তাকে প্রধান করে তিন সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটি গঠণ করেন। কমিটির সদস্যরা হলেন, উপজেলা সমাজ সেবা কর্মকর্তা আবুল কালাম আজাদ, উপজেলা সমবায় কর্মকর্তা এস.এম ফরিদ উদ্দিন ও উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডের ডেপুটি কমান্ডার মো. মনিরুল হক।

 
আবেদনকারী মুক্তিযোদ্ধা সোহরাব হোসেন খান অভিযোগ করে বলেন, ওই কমিটি তাকে ও স্বাক্ষীদেরকে কোন রুপ অবহিত না করেই গত ৯ অক্টোবর তদন্তের তারিখ ধার্য করেন। লোকমুখে খবর পেয়ে তিনিসহ স্বাক্ষীদের নিয়ে তদন্ত কমিটির সামনে হাজির হয়ে দেখতে পান অভিযুক্ত ৫ ভূয়া মুক্তিযোদ্ধার মধ্যে ৩ জন উপস্থিত রয়েছে। তিনি (সোহরাব খান) আরও অভিযোগ করেন, কমিটির লোকজনে তদন্তের নামে পরিস্থিতি উত্যপ্ত করে অভিযোগের পক্ষের স্বাক্ষীদের নানাধরনের ভয়ভীতি প্রদর্শনসহ অবান্তর প্রশ্নবানে জর্জরিত করে নাজেহাল করেন। ফলে ওই কমিটির তদন্তে কোন ফলপ্রসু প্রতিবেদন আসবেনা বলেও তিনি (সোহরাব খান)সহ স্বাক্ষীরা আশঙ্কা করছেন। একইসাথে ওই তদন্ত প্রত্যাখ্যান করে পূনঃরায় তদন্ত কমিটি গঠণ করার জন্য তারা সংশি¬ষ্ট উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের কাছে দাবি করেন।

 
উল্লেখিত সকল অভিযোগ অস্বীকার করে তদন্ত কমিটির প্রধান উপজেলা সমাজ সেবা কর্মকতা আবুল কালাম আজাদ ও উপজেলা সমবায় কর্মকর্তা এস.এম ফরিদ উদ্দিন বলেন, আমরা কেবল স্বাক্ষী গ্রহণ করেছি। পরবর্তীতে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের সিদ্ধান্ত নিয়েই প্রতিবেদন দাখিল করবো।

বরিশালের খবর

 

আপনার মতামত লিখুন :

 
ভারপ্রাপ্ত-সম্পাদকঃ শাকিব বিপ্লব
© কপিরাইট বরিশালটাইমস ২০১২-২০১৮ | বরিশালটাইমস.কম
বরিশালটাইমস মিডিয়া লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান।
ইসরাফিল ভিলা (তৃতীয় তলা), ফলপট্টি রোড, বরিশাল ৮২০০।
ফোন: +৮৮০২৪৭৮৮৩০৫৪৫, মোবাইল: ০১৮৭৬৮৩৪৭৫৪
ই-মেইল: [email protected], [email protected]
© কপিরাইট বরিশালটাইমস ২০১২-২০১৮
টপ
  মহাসড়কে টোল আদায় না করতে মেয়রদের প্রতি নির্দেশনা  পুলিশ কর্মকর্তার প্রতারণার শিকার শ্যালক-শ্যালিকা!  বরগুনায় সড়ক দুর্ঘটনায় কিশোর নিহত  প্রেমের ফাঁদে ফেলে স্কুলছাত্রীকে নিয়ে পালালেন প্রধান শিক্ষক  বেপরোয়া ট্রাক কেড়ে নিল ৪ জনের প্রাণ  বুবলীর অগোচরে শাকিবের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ!  ইন্দোনেশিয়ায় ফুটবল মাঠে সংঘর্ষ, পদদলিত হয়ে নিহত ১২৯  ঘূর্ণিঝড়ে পূজামণ্ডপ লন্ডভন্ড, আহত ৫  জাতীয় পরিচয়পত্রে স্ত্রীকে বোন বানানো আনিসুর গ্রেপ্তার  সেপ্টেম্বরে সারাদেশে চার হাজার ৩২টি দুর্ঘটনায় ঝরেছে ৫৭৯ প্রাণ