৩১ মিনিট আগের আপডেট সন্ধ্যা ৬:৫৭ ; বুধবার ; অক্টোবর ২৩, ২০১৯
EN Download App
Youtube google+ twitter facebook
×

বরিশালে সাংবাদিক নেতার বাড়ি ঘিরে আ’লীগের দুই নেতার দ্বন্দ্ব প্রকাশ্যে

বরিশাল টাইমস রিপোর্ট
১২:৩৯ পূর্বাহ্ণ, অক্টোবর ৮, ২০১৯

নিজস্ব প্রতিবেদক, বরিশাল:: পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী কর্নেল (অবরসরপ্রাপ্ত) জাহিদ ফারুক শামীম এমপি ও বরিশাল সিটি মেয়র সেরনিয়াবাত সাদিক আব্দুল্লাহ’র মধ্যকার প্রভাব-বলয় সৃষ্টির নিরব দ্ব›দ্ব এই প্রথম প্রকাশ্যে রুপ নিল। মহানগর আওয়ামী লীগ নেতা এসএম জাকির হোসেনের একটি নবনির্মিত ভবন নকশাবর্হিভুত হওয়ার অজুহাতে সিটি মেয়র সাদিক ভাঙার উদ্যোগ নিলে পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী তা প্রতিহত করেন। শহরের কলেজ রো এলাকার এই বাড়িটিকে ঘিরে সোমবার বিকেল থেকে গভীর রাত পর্যন্ত দফায় দফায় ভাঙার উদ্যোগ নাটকীয়তায় রুপ নিলে বিষয়টি নিয়ে যেমন উৎসুক পরিস্থিতি সৃষ্টি করে তার চেয়ে বেশি উত্তেজনায় তেতে ওঠে। অবশ্য বাড়ি ভাঙার উদ্যোগ এবং প্রতিহতে দুই নেতা জাহিদ ফারুক শামীম ও সাদিক আব্দুল্লাহ উভয়ই ছিলেন অন্তরালে। প্রকাশ্যে এসেছিলেন মেয়েরের পক্ষে একজন ওয়ার্ড কাউন্সিলর এবং সিটি কর্পোরেশনের কর্মকর্তা কর্মচারীরা। বিপরিতে মেট্রোপলিটন পুলিশের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাসহ র‌্যাব সদস্যরা পরিস্থিতি মোকাবেলায় ঘটনাস্থলে আসে। একপর্যায়ে বাড়ি ভাঙতে সিটি কর্পোরেশনের উদ্যোগ পন্ড হয়ে যাওয়ার কিছুটা সময় পরেই বরিশালে অবস্থানরত পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী জাহিদ ফারুক শামীম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। ফলে দুই নেতার প্রভাব বিস্তারের দ্ব›দ্ব আর লুকোচাপা রইল না। সোমবারের এই ঘটনা এখন বরিশালে ‘টক অবদ্যা টাউন’।

একাধিক সূত্র জানায়- বরিশাল মহানগর আওয়ামী লীগের যুব ও ক্রীড়া সম্পাদক ও বরিশাল প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক এসএম জাকির হোসেনের মালিকানাধীন মুন্সিগ্রেজ লাগোয়া ‘কলেজ রো’ সড়কের ওই বাড়িটি ভাঙা নিয়ে বেশকিছু দিন যাবত সিটি কর্পোরেশনের তৎপরতার কথা শোনা যাচ্ছিল। আঞ্চলিক দৈনিক মতবাদ পত্রিকার মালিক জাকির হোসেন মেয়র সাদিকের পিতা বরিশাল ১ আসনের এমপি আবুল হাসানাত আব্দুল্লাহপন্থী হিসেবে রাজনীতিতে পরিচিত ছিলেন। তিনি ওই ওয়ার্ডের সাবেক কাউন্সিলর ছিলেন। গত সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে আভ্যন্তরীণ দ্ব›দ্ব দলীয় মনোনয়ন বঞ্চিত জাকিরের সাথে মেয়র সাদিকের মনস্তাত্তিক লড়াই শরু হয়।

ঘটনাচক্রে জাকির হোসেন বরিশাল সদর আসনের সাংসদ পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী জাহিদ ফারুকের অনুকূলে অবস্থান নিলে মেয়র সাদিক চরম ক্ষুব্ধ হয়ে ওঠেন। এরপরেই এই সাংবাদিক নেতাকে ব্যবসা-বাণিজ্যসহ ও রাজনীতিতে কোনঠাসা করার নানা প্রক্রিয়া চলতে থাকে। কিন্তু পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী বিশেষ ছায়া দেওয়ায় কোন ভাবেই পেরে উঠছিল না। ইতিমধ্যে জাকির হোসেনের মালিকানাধীন ওই পত্রিকায় মেয়র অনুসারীদের নিয়ে নৈতিবাচক নানা সংবাদ প্রকাশ পেলে শায়েস্তা করার সর্বশেষ উদ্যোগ হিসেবে তার কলেজ রো এলাকার নবনির্মিত একটি বহুতল ভবন নকশাবর্হিভুভাবে গড়ে তোলার অজুহাতে সিটি কর্পোরেশনের পক্ষ থেকে অভিযোগ তোলা হয়। বিশেষ করে ২১ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর ও যুবলীগ নেতা সাঈদ আহম্মেদ মান্নার নিজ বাসার ভাড়াটিয়ার কক্ষ থেকে ইয়াবার একটি বৃহৎ চালান কোতয়ালি পুলিশ আটক করলে দৈনিক মতবাদ পত্রিকায় তথ্যবহুল রিপোর্ট প্রকাশিত হলে জাকিরকে চেপে ধরার পরিকল্পনা গুঞ্জনে প্রকাশ পায়। এরপরেই জাকির হোসেনের ওই মালিকানাধীন ভবনে তার বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠান ইউরোটেলের টাওয়ার নির্মাণে কৈফিয়ত চেয়ে সিটি কর্পোরেশন একটি নোটিশ জারি করে। এর প্রেক্ষিত এই আওয়ামী লীগ নেতা রোববার বরিশাল আদালতে সিটি মেয়র ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তাসহ ৮ জনকে বিবাদী করে একটি নালিশি মামলা করেন। এর একদিন পরেই সোমবার বিকেলে আকস্মিক সিটি কর্পোরেশনের সড়ক পরিদর্শক অনিক ও সালাউদ্দিনের নেতৃত্বে বেশ কয়েকজন কর্মকর্তা কর্মচারী দুটি বুল্ডেজার নিয়ে কলেজ রো এলাকায় অবস্থান নিয়ে জাকির হোসেনের বাড়ি ভাঙার প্রস্তুতি নেয়।

তাদের দাবি- নকশাবর্হিভুত ভবন নির্মাণ করায় সিটি কর্পোরেশনের নির্দেশনার আলোকে তা ভেঙে ফেলতেই এই উদ্যোগ। এসময় কলেজ রো এলাকার প্রবেশ পথসমূহ বন্ধ করে দেওয়া হয়। জাকির হোসেন বাড়ি ভাঙার সিটি কর্পোরেশনের নির্দেশনাপত্র এবং অভিযোগের ব্যাখ্যা চান। কিন্তু তা দেখাতে ব্যর্থ কর্পোরেশনের দুই কর্মকর্তা অনিক ও সালাউদ্দিন সময়ক্ষেপন করতে থাকায় এলাকাবাসী সংক্ষুব্ধ হয়ে ওঠে। অন্যদিকে সিটি কর্পোরেশনের কর্মচারীদের সংখ্যা সেখানে বৃদ্ধি পেতে থাকে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়- অনিক ও সালাউদ্দিন তাদের উদ্যোগের যৌক্তিকতা দেখাতে ব্যর্থ হওয়ার একপর্যায়ে কাউন্সিলর মান্নাকে ফোনে দফায় দফায় যোগাযোগ করে করণীয় কী জানতে দেখা যায়। এই কাউন্সিলের নির্দেশনা মাফিক সিটি কর্পোরেশনের কর্মচারীরা ভবনটি ভাঙতে অবস্থান জোরালো করতে থাকে।

একটি নির্ভরযোগ্য সূত্র জানায়- উত্তেজনাকর পরিস্থিতি এবং সিটি কর্পোরেশনের জবরদস্তিমূলক কর্মকান্ডের বিষয়টি জাকির হোসেন তার নেতা পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রীকে তাৎক্ষণিক অবহিত করেন। একপর্যায়ে বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশের উপ-কমিশনার (দক্ষিণ) মোয়াজ্জেম হোসেন ভূঁইয়া, কোতয়ালি মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নুরুল ইসলাম এবং ওসি (তদন্ত) মো. আসাদুজ্জামান পুলিশ ফোর্সসহ উপস্থিত হন। পুলিশ কর্মকর্তারা সিটি কর্পোরেশনের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের ও স্থানীয়দের উত্তেজিত না হতে অনুরোধ করেন এবং বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশের উপ-কমিশনার (দক্ষিণ) মোয়াজ্জেম হোসেন ভূঁইয়া উচ্ছেদের নির্দেশনামা দেখতে চান। সিটি কর্পোরেশনের সড়ক পরিদর্শকেরা নির্দেশপত্র প্রদর্শনে ব্যর্থ হয়ে কাউন্সিলর মান্নার নির্দেশে আসার বিষয়টি অবহিত করেন। ফলে পুলিশ কর্মকর্তাদেরও বুঝতে আর দেরি হয়নি যে এখানে কী ঘটেছে এবং ঘটতে যাচ্ছে। এই কারণে পুলিশই সিটি কর্পোরেশনের কর্মকর্তা স্থান ত্যাগে বাধ্য করে।

কিন্তু শেষ সর্বশেষ মোটরসাইকেলযোগে ঘটনাস্থলে কাউন্সিলর মান্না উপস্থিত হয়ে বিসিসির কর্মচরীদের মারধরের অভিযোগ করেন এবং পুনরায় ভবনটি ভাঙার নির্দেশ দেন। পরবর্তীতে মান্না সিটি কর্পোরেশনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ইমতিয়াজ মাহমুদ জুয়েল, স্টেট অফিসার দীপক লাল মৃধা এবং আরও কয়েকজন কর্মকর্তাকে ডেকে নিয়ে আসেন। তাদের সাথে ফের বুল্ডেজার দুটি ঘটনাস্থলে নিয়ে আসা হয়। সকলের উপস্থিতিতে উত্তেজিত মান্না বুল্ডেজারের ওপর দাড়িয়ে প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক এসএম জাকির হোসেনের নির্মাণাধীন ভবন ভেঙে গুড়িয়ে দেওয়ার নির্দেশ দেন।

এই খবরে উপ-পুলিশ কমিশনার মোয়াজ্জেম হোসেন ভূঁইয়া ও কোতয়ালির ওসি নুরুল ইসলাম ফের ঘটনাস্থলে গিয়ে মান্নার কাছে ভবন ভাঙার ক্ষেত্রে মেয়রের নির্দেশপত্র চান। কিন্তু এবার তিনি ভবন ভাঙার বিষয়টি চেপে গিয়ে বিসিসির কর্মচারীকে মারধরের অভিযোগ তোলেন এবং বাহিনী নিয়ে বিচার চেয়ে শ্লোগান দিতে থাকেন। কিন্তু এখানে মারধরের কোন ঘটেনি পুলিশের এমন দাবির প্রেক্ষিতে একপর্যায়ে কাউন্সিলর মান্না পিছু হটতে বাধ্য হন। এর আগে ভবন ভাঙাকে কেন্দ্র করে উত্তেজনার খবরে ঘটনাস্থলে র‌্যাবে ও বিভিন্ন গোয়েন্দা ইউনিটের বিপুল সংখ্যক সদস্য উপস্থিত হয়। পরবর্তীতে রাত ১০টার দিকে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর তৎপরতার কারণে ভবনটি ভাঙতে বিসিসি ব্যর্থ হয়ে বুল্ডেজার সরিয়ে নিলে পরিবেশ পরিস্থিতি শান্ত হয়।

প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পদক এসএম জাকির হোসেন জানিয়েছেন, তার নির্মাণাধীন ভবন ভাঙার যে চেষ্টা চালানো হয়েছে তা সম্পূর্ণ ব্যক্তি আক্রোসে।

তার দাবি সকল নিয়ম মেনেই মেনেই ভবন নির্মাণ করেছেন। তারপরও কোথাও সমস্যা হলে বিধানমত লিখিতভাবে জানাতে পারতো। কিন্তু তা না করে একজন কাউন্সিলর পাঠিয়ে প্রতিশোধ নিতে এই কাজ করা হয়েছে।

একাধিক সূত্র নিশ্চিত করেছে- পার্শ্ববর্তী ওয়ার্ড কাউন্সিলর সাঈদ আহম্মেদ মান্না বর্তমানে মেয়র সাদিকের পক্ষে অবস্থান নিয়ে এক সময়ে বন্ধু জাকিরের শায়েস্তা করতেই সোমবার মুখ্য ভুমিকা রাখার আরও একটি কারণ হচ্ছে দৈনিক মতবাদ পত্রিকায় তার বিরুদ্ধে একটি সংবাদ প্রকাশের পর পঞ্জিভুত ক্ষোভ। অবশ্য জাকিরের ভবন ভাঙার উদ্যোগের পেছনে মেয়র সাদিকে ভুমিকাই যে মুখ্য তা আর বলার অবকাশ রাখে না।

যদিও মেয়র সাদিক আব্দুল্লাহ’র দাবি- তিনি এই বিষয়ে কিছুই জানেন না। কিন্তু তার এই মন্তব্য ধোপে টিকছে না। মেয়রের নির্দেশনা ব্যতিত সিটি কর্পোরেশনের কর্মকর্তা এমনকি মান্নার পক্ষে জাকিরের বাড়ি ভাঙার উদ্যোগ নেওয়ার সুযোগ অবান্তর। বরং স্পষ্ট হয়ে উঠেছে পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রীর অনুসারী হওয়ায় জাকিরকে চাপে ধরতেই এসব উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। পক্ষান্তরে জাকিরের পক্ষে প্রশাসনের ভুমিকা নেওয়ার পেছনে যে প্রতিমন্ত্রীর আর্শিবাদ রয়েছে তাও স্পষ্ট।

যদিও প্রশাসনের দাবি- আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতেই রুটিন মাফিক তাদের অংশ হিসেবে সেখানে যাওয়াটাই স্বাভাবিক। পুলিশের এই ব্যাখ্যা এবং তাদের সার্বিক ভুমিকার রাখার যৌক্তিকতাও রয়েছে।

তবে মেয়র সাদিক আব্দুল্লাহ বিতর্ক এড়াতে নিজেকে এই ঘটনা থেকে কৌশলে দুরে থাকেন। বিপরিতে পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী ঘটনার পরপরই জাকিরের বাস ভবনে আসেন এবং ঘুরে দেখেন। ফলে বরিশাল আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে দুই নেতার প্রভাব বিস্তারের লড়াইয়ে অনুসারীদের চেপে ধরার প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে বলে কথা উঠেছে। বিশেষ করে মেয়র সাদিক আব্দুল্লাহ প্রতিপক্ষ দমনে সিটি কর্পোরেশনকে ব্যবহার করে বিভিন্ন স্থাপনা ভাঙার কৌশল নিয়েছেন।

অপর একটি নির্ভরযোগ্য সূত্র জানায় মেয়র সাদিকের এই ভুমিকা দলীয় হাইকমান্ডকে অবহিত করতে দলের একটি অংশ সরব হয়ে উঠেছে।’

বরিশালের খবর

আপনার মতামত লিখুন :

প্রধান সম্পাদক: শাহীন হাসান
সম্পাদক : শাকিব বিপ্লব
শহর সম্পাদক: আক্তার হোসেন
সহকারি সম্পাদক: মো. মুরাদ হোসেন
নির্বাহী সম্পাদক : মো. শামীম
বার্তা সম্পাদক : হাসিবুল ইসলাম
প্রকাশক : তারিকুল ইসলাম


ঠিকানা: শাহ মার্কেট (তৃতীয় তলা),
৩৫ হেমায়েত উদ্দিন (গির্জা মহল্লা) সড়ক, বরিশাল ৮২০০।
ফোন: ০৪৩১-৬৪৮০৭, মোবাইল: ০১৭১৬-২৭৭৪৯৫
ই-মেইল: [email protected], [email protected]
© কপিরাইট বরিশালটাইমস ২০১২-২০১৮
টপ
  পিরোজপুরে শিশুকে ধর্ষণ করল শিশু!  পাথরঘাটায় কলেজছাত্রী হত্যায় বিএনপির সাবেক নেতার যাবজ্জীবন  ভোলায় মুসুল্লি নিহতের প্রতিবাদে ব‌রিশা‌লে বিএনপির বি‌ক্ষোভ  গণধর্ষণের পর যৌনাঙ্গে ছুরিকাঘাত ও শ্বাসরোধে হত্যা  ইংল্যান্ডে কন্টেইনারের ভেতর থেকে ৩৯ মরদেহ উদ্ধার  স্ত্রী-সন্তানসহ সেনা সদস্য নিখোঁজ  বরিশাল র‌্যাবের হাতে জেএমবির সক্রিয় সদস্য গ্রেপ্তার  ছেলেকে বাঁচাতে নদীতে ঝাঁপ দেওয়া ব্যক্তির মরদেহ উদ্ধার  বিমান ভ্রমণ নিরাপদ ও আরামদায়ক করতে আমরা বদ্ধপরিকর: প্রধানমন্ত্রী  পটুয়াখালীতে সপ্তম শ্রেণির ছাত্রীকে ধর্ষণ, যুবক গ্রেপ্তার