২৪শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, বুধবার

বরিশালে স্কুলছাত্রকে অমানবিক নির্যাতন

বরিশাল টাইমস রিপোর্ট

প্রকাশিত: ০৬:২৬ অপরাহ্ণ, ০২ অক্টোবর ২০১৬

বরিশালে কোচিং সেন্টার থেকে সপ্তম শ্রেণির এক স্কুলছাত্রকে নির্যাতনের অভিযোগ পাওয়া গেছে। শুক্রবার দুপুরে ঘটনাটি ঘটলেও রবিবার দুপুরে নির্যাতনের শিকার স্কুলছাত্র জাহিদুল ইসলাম সাবিদের কাছ থেকে এ অভিযোগ পাওয়া যায়।

 

জাহিদুল ইসলাম সাবিদ নগরীর মথুরানাথ পাবলিক স্কুলের ৭ম শ্রেণির ছাত্র এবং স্কুলের বাইরে কোচিং সেন্টার ফেইথ শিক্ষা পরিবারে সে অধ্যয়নরত।

 

সাবিদ জানায়, কোচিং সেন্টারে গিয়ে আমার সহপাঠী রেজার সাথে একটি বিষয় নিয়ে ব্যাপক বাকবিত-া হয়। ঝামেলা তাদের মধ্যে হলেও তাদের আরেক সহপাঠী বরিশাল সরকারি বালিকা বিদ্যালয়ের সপ্তম শ্রেণির ছাত্রী ইতি বিষয়টি অন্যদিকে নিয়ে যায় এবং সেভাবে সাবিদ তার বড় ভাই রেজাকে নিয়ে এসব কথা বলছে। ইতি আমাকে ভুল বুঝে তার বড় ভাই রেজার কাছে বিষয়টি জানায় এবং রেজা কোচিং সেন্টার ফেইথ শিক্ষা পরিবারের পরিচালক শামীম আহম্মেদের কাছে জানায়। এর পরিপ্রেক্ষিতে শুক্রবার দুপুর সোয়া ৩টার দিকে পরিচালক শামীম বেত দিয়ে সাবিদকে বেধড়ক মারধর করে। যাতে বেশ কয়েকটি ক্ষত চিহ্ন সৃষ্টি হয় সাবিদের বাম এবং ডান হাতে।

 

এ বিষয়ে স্কুলছাত্র জাহিদুল ইসলাম সাবিদের পিতা আব্দুল জলিল বলেন, বিষয়টি সাবিদের বন্ধুদের মাধমে তিনি শুনেছেন। কোচিং কর্তৃপক্ষকে ফোন করা হয়েছিল। তারা আগামীকালকে আমাকে কোচিংয়ে যেতে বলেছেন।

 

কোচিং সেন্টার ফেইথ শিক্ষা পরিবারের পরিচালক শামীম আহম্মেদ বিষয়টি নিয়ে আগামীকালকে সরাসরি কথা বলার জন্য এবং সংবাদ প্রকাশ না করার জন্য অনুরোধ জানান।

 

এ প্রসঙ্গে সাবিদের অধ্যয়নরত মথুরানাথ পাবলিক স্কুলের প্রধান শিক্ষক আব্দুল খালেক জানান, এরকম মারধর বা নির্যাতন করা আসলেই অমানবিক ও দুঃখজনক। কোচিং কর্তৃপক্ষর সাথে আমরা কথা বলব এবং সাবিদ আমাদের ছাত্র হওয়ায় তার পরিবারের সাথে কথা বলে যথাযথ পদক্ষেপ গ্রহণ করব।

6 বার নিউজটি শেয়ার হয়েছে
  • ফেইসবুক শেয়ার করুন