২৯শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, বুধবার

বরিশাল মহানগর আ. লীগের কমিটি নিয়ে লুকোচুরি

বরিশাল টাইমস রিপোর্ট

প্রকাশিত: ০১:৫৬ অপরাহ্ণ, ২২ অক্টোবর ২০১৬

বরিশাল মহানগর আওয়ামী লীগের কমিটি নিয়ে চলছে লুকোচুরি খেলা। গত দু’দিন ধরে কমিটি গঠনের কথা শোনা গেলেও এ সংক্রান্ত কোনো কাগজপত্র দেখাতে পারেনি এখানকার নেতারা। ঘোষণাও আসেনি দলের নীতিনির্ধারক পর্যায় থেকে। কাগজে-কলমে অস্তিত্ব না থাকায় মৌখিক কমিটি কিংবা মুখের কমিটি বলে উল্লেখ করেছেন তৃণমূলের এক অংশের নেতাকর্মীরা।

তবে কমিটি এখনও প্রকাশ না হওয়ায় মৌখিক কমিটিতে পদ পাওয়া বা পদ বঞ্চিত দু’পক্ষই রয়েছেন উৎকন্ঠায়। এদিকে গুরুত্ব হারানো ও পদ বঞ্চিত নেতারা বিষয়টি এড়িয়ে যেতে চাইলেও তাদের সমর্থক ও অনুসারীরা রাগ, হতাশা ও ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন।

গত বুধবার রাতে বরিশালে খবর আসে আশির দশকের ছাত্র রাজনীতির সঙ্গে জড়িত সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী গোলাম আব্বাস চৌধুরী দুলালকে সভাপতি এবং আইনজীবী একেএম জাহাঙ্গীরকে সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত করে ৭১ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন করা হয়েছে।

কাউন্সিলরদের ভোটে নির্বাচিত হওয়া সাধারণ সম্পাদক আফজালুল করীমকে পদ থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়। ওই পদ দেওয়া হয়েছে কাউন্সিলরদের ভোটে হেরে যাওয়া এ কে এম জাহাঙ্গীর হোসেনকে।

এছাড়া পদ প্রত্যাশী একাধিক নেতাকে পাশ কাটিয়ে আলোচনার বাইরে থাকা দুলাল ও জাহাঙ্গীরকে বরিশাল মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি-সম্পাদক করায় শুধু চমকই নয় বিস্ময়ও প্রকাশ করেছেন দলের নেতা-কর্মীরা।

জানা গেছে, আওয়ামী লীগের কাউন্সিল শুরুর পূর্বে বরিশাল মহানগর আওয়ামী লীগের কমিটি ঘোষণার কথা ছিল। এ জন্য বরিশাল আওয়ামী লীগের নেতাকর্মী থেকে শুরু করে মিডিয়া কর্মীরা সার্বক্ষণিক যোগাযোগ রাখতেন স্থানীয় ও কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দের সঙ্গে। গত বুধবার রাতে খবর আসে কমিটি গঠন করা হয়েছে। ওই কমিটির সহ-সভাপতি করা হয়েছে গত কমিটির সাধারণ সম্পাদক আইনজীবী আফজালুল করিম, ১নং যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সেরনিয়াবাত সাদিক আব্দুল্লাহ এবং সদস্য করা হয় সদর আসনের এমপি জেবুন্নেছা আফরোজকে।

এরপর সভানেত্রীর অনুমোদনকৃত কাগজ চাওয়া হয় নবনির্বাচিত কমিটির সভাপতি ও সম্পাদকের কাছে। তারা একেকজন এক এক রকম কথা বলতে থাকেন।

গোলাম আব্বাস চৌধুরী দুলাল জানান, অনুমোদনের কাগজ যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক পদ পাওয়া কাউন্সিলর গাজী নইমুল হোসেন লিটুর কাছে রয়েছে।

লিটু জানান, অনুমোদনের কাগজ সাদিকের কাছে আছে। তিনি আরো বলেন, গত বুধবার রাতে বাহাউদ্দিন নাসিম প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে গিয়ে কমিটি অনুমোদন করিয়েছেন। অথচ গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় বাহাউদ্দিন নাসিমের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, কমিটি অনুমোদন করে মিডিয়ায় প্রেস বিজ্ঞপ্তি পাঠানো হবে। তবে কে কে কমিটিতে আছে সে বিষয়ে তিনি কথা বলতে রাজী হননি।

নাসিমের সঙ্গে যোগাযোগের পর শুক্রবার বিকেল ৪টায় এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত বরিশাল মহানগর আওয়ামী লীগের অনুমোদিত কমিটির কাগজ মিডিয়া কর্মীরা হাতে পাননি।

10 বার নিউজটি শেয়ার হয়েছে
  • ফেইসবুক শেয়ার করুন