৭ ঘণ্টা আগের আপডেট সকাল ৭:২৭ ; সোমবার ; আগস্ট ৮, ২০২২
EN Download App
Youtube google+ twitter facebook
×

বরিশাল সিটি নির্বাচনে এবারও মেয়র প্রার্থী হচ্ছেন খান মামুন?

শাকিব বিপ্লব
১০:০১ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ২৭, ২০১৭

নিকটবর্তী বরিশাল সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে এবারও মেয়র প্রার্থী হতে চান কেন্দ্রীয় যুবলীগের সাবেক নেতা মাহামুদুল হক খান মামুন। ইতিমধ্যে তিনি নির্বাচনী প্রাকপ্রস্তুতি শুরু করেছেন। আওয়ামী লীগের মনোনায়ন চেয়ে ব্যর্থ হলে তবুও নির্বাচনে তিনি অংশ নেবেন। এমন মন-মানুষিকতা প্রষোণ করে শ্রীঘ্রই তিনি আনুষ্ঠানিকভাবে মাঠে নামতে পারেন। প্রাপ্ত এ তথ্যের সত্যতা স্বীকার করলেও খান মামুন এখনই এ বিষয়টি খোলসা করে বলতে নারাজ। তবে তার কন্ঠের সুর শুনে অনুধাবন করা যায়, দলীয় হাই কমান্ড থেকে গ্রীণ সিগ্যনাল পেয়েই তিনি নির্বাচনী প্রস্তুতি নিয়ে অগ্রসর হচ্ছেন।

যদি এ ধারনা সত্য হয় তবে এবারও নির্বাচনের উত্তাপের আভাস ছড়াবেন বর্তমান মহানগর আ’লীগের ডাক সাইডের এই নেতা। উল্লেখ্য- গত সিটি নির্বাচনে খান মামুন দলীয় মনোনয়ন চেয়ে ব্যর্থ হন। পরে বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনে শেষ পর্যন্ত লড়াই করে বেশ আলোচনায় ছিলেন। কিন্তু হতাশাব্যাঞ্জক ভোট পান। নির্বাচনে তার পড়াজয়ের জন্য দলের মধ্যকার সমর্থনকারী একটি অংশকে পরোক্ষভাবে দায়ী করেন।

ওই নির্বাচনে দলীয় প্রার্থী প্রয়াত নেতা শওকত হোসেন হিরন বিপুল জনপ্রিয়তার অবস্থান থেকে লড়াই করে বিএনপি দলীয় প্রার্থী আহসান হাবিব কামালের কাছে অপ্রত্যাশিত ভাবে পরাজিত হন। পরে তিনি দলীয় মনোনয়নে সদর আসোনের সাংসদ হিসেবে বিজয় লাভ করে সেই পরাজয়ের ধকল সামলে উঠেছিলেন। পক্ষান্তরে দলীয় নেতা খান মামুন অভিমানে রাজনীতি থেকে নিজেকে গুটিয়ে নেন। এমনকি নিজ উদ্যোগে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও মসজিদ-মাদ্রাসায় অনুদান দেওয়ার সীমানা সংকুচিত করেন। ওই সময়কালে খান মামুনের দল বদলের কথা উঠেছিল। কিন্তু শেষ পর্যন্ত তা গুজব হিসেবে প্রমাণিত হয়। অবশ্য নির্বাচনে বিদ্রোহী প্রার্থী হওয়ায় এই যুবলীগ নেতাকে দল থেকে আনুষ্ঠানিক বহিস্কারের ঘোষণা দেয়া হয়েছিল।

পরবর্তীতে মহানগর আ’লীগের ঘোষিত কমিটির সদস্য তালিকায় খান মামুনের নামটি দেখা যায়। ফলে কখন কিভাবে খান মামুনকে দল থেকে বহিস্কার এবং পুনরায় দলে ফিরিয়ে নেওয়ার বিষয়টি ধোয়াশাই থেকে যায়। পরিবার ঘনিষ্ট একটি সূত্র জানায়- খান মামুন আগামী সিটি নির্বাচনে মেয়র প্রার্থী হিসেবে অংশ নিতে আনেক আগে থেকেই মানুষিক প্রস্তুতি নিয়েছেন।

যে কারণে গেলো উপজেলা চেয়ারম্যান ও জেলা পরিষদের প্রশাসক নির্বাচনে তিনি নিরব থাকেন। তবে এবারকার মেয়র প্রার্থী হিসেবে তার মনোনয়ন চাওয়ার প্রক্রিয়াটি ভিন্নতর বলে জানা গেছে। সেক্ষেত্রে আগে তিনি হাইকমান্ডের নজর কাড়তে চান। পরবর্তীতে তিনি সবুজ সংকেত পেলে আনুষ্ঠানিকভাবে মাঠে নামবেন। এ তথ্যের কিছুটা আভাসও পাওয়া গেছে। সাম্প্রতিক রাজনৈতিক সভা সমাবেশে না দেখা গেলেও বিভিন্ন সামাজিক অনুষ্ঠানে তার উপস্থিতি চোখে পড়ছে।

দিচ্ছে নিজ উদ্যোগে অনুদান। কিন্তু মাঠে থাকা সম্ভব্য প্রার্থী মহানগর আ’লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সেরনিয়াবাত সাদিক আব্দুল্লাকে টপকে কিভাবে দলীয় মনোনয়ন চাইবেন তা নিয়ে রয়েছে প্রশ্ন। সেই সাথে আরএক সম্ভব্য প্রার্থী কর্নেল জাহিদ ফারুক শামিমও কম নয়। অবশ্য প্রথম দুই জনের মধ্যে পার্থক্য হচ্ছে এই যে, খান মামুনের রয়েছে ব্যক্তি ইমেজ। অন্যদিকে সাদিক আব্দুল্লার ইয়াংক্রেজ ও শক্তিশালি সাংগঠনিক সাম্রাজ্য অন্য যেকোন প্রার্থীর জন্য ইর্ষানীয় বিষয়। তবুও খান মামুন দলীয় মনোনয়ন প্রাপ্তিতে শতভাগ আশাবাদী।

যে কারণে ইতিমধ্যে প্রাকপ্রস্তুতিমূলক বিভিন্ন অনুষ্ঠানে অংশ নিয়ে সামাজিক নেটওয়ার্ক গড়ে তোলার পদক্ষেপে অগ্রসর হয়েছেন। ধারণা করা হচ্ছে- কেন্দ্রীয় হাইকমান্ডের সংকেত পেয়েই তিনি মাঠে নেমেছেন। গত রাতে এ প্রতিবেদকের সাথে আলাপ কালে মাহামুদুল হক খান মামুন সিটি নির্বাচনে অংশ নেওয়ার বিষয়টি স্বীকার করে বলেন সব কিছুই নির্ভর করছে দলীয় সভানেত্রী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ওপর। কেন্দ্রীয় নেতা আবুল হাসনাত আব্দুল্লার আগৈলঝাড়ার সেরালস্থ বাস ভবনে তার স্নেহধন্য খান মামুনের প্রায় যাতায়াত দেখা গেলেও শিল্পমন্ত্রী আমুর হোসেন আমুর সাথে সমান্তরালে সখ্যতা রেখে চলতে দেখা যায়।

আসন্ন সিটি নির্বাচনে তার প্রার্থীতা হওয়ার পিছনে এই দুই প্রভাবশালী নেতার কারও সমর্থন রয়েছে কী না এমন প্রশ্নের উত্তর তিনি কৌশলে এড়িয়ে যান। তবে দলীয় মনোনয়ন চেয়ে ব্যর্থ হলেও নির্বাচনে অংশ নেবেন বলে সাফ কথা জানিয়ে দেন। নির্ভরযোগ্য একটি সূত্র জানায়, কেন্দ্রীয় বেশ কয়েক জন প্রভাবশালী নেতা নির্বাচনী প্রস্তুতির পেছনে রসদ যোগানোর ফলে তিনি ঝুকির মাঝেও নিজের প্রার্থীতা নিয়ে অনঢ় এখনই অনঢ় মনোভাব পোষণ করে চলেছেন।

ফলে এবারও বরিশাল সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে আ’লীগের বিদ্রোহী প্রার্থীতার আলামত পাওয়া যায়। এই ধারণা যদি বাস্তবতায় দেখা যায় তবে নির্বাচনের আগে দলীয় মনোনয়ন নিয়ে আ’লীগের সম্ভাব্য প্রার্থীদের আর এক দফা লড়াই অবতীর্ণ হতে হবে।”

বরিশালের খবর

 

আপনার মতামত লিখুন :

 
এই বিভাগের অারও সংবাদ
ভারপ্রাপ্ত-সম্পাদকঃ শাকিব বিপ্লব
© কপিরাইট বরিশালটাইমস ২০১২-২০১৮ | বরিশালটাইমস.কম
বরিশালটাইমস মিডিয়া লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান।
ইসরাফিল ভিলা (তৃতীয় তলা), ফলপট্টি রোড, বরিশাল ৮২০০।
ফোন: +৮৮০২৪৭৮৮৩০৫৪৫, মোবাইল: ০১৮৭৬৮৩৪৭৫৪
ই-মেইল: [email protected], [email protected]
© কপিরাইট বরিশালটাইমস ২০১২-২০১৮
টপ
  সদরঘাটে ২ লঞ্চের মাঝে চাপা পড়ে ট্রলারের যাত্রী নিহত  ঝালকাঠিতে ছাত্র ও যুবলীগের হামলায় রক্তাক্ত বিএনপি নেতা  জ্বালানি তেলের মূল্যবৃদ্ধি: লঞ্চভাড়া ১০০ শতাংশ বাড়ানোর প্রস্তাব  জমি সংক্রান্ত বিরোধ নিয়ে দিনমজুরের ঘরে আগুন  রেক্টিফাইড ও ডিনেচার্ড স্পিরিট বিক্রির দায়ে দুজনের অর্থদন্ড  বাউফলে চুরি হওয়া শিশু উদ্ধার, চোর গ্রেপ্তার  বরিশালে ২ পেট্রোলপাম্পকে দেড় লক্ষ টাকা জরিমানা  বাউফলে নগদ অ্যাকাউন্ট থেকে শিক্ষার্থীদের উপবৃত্তির টাকা উধাও!  বিদ্যালয়ের মাঠ যেন ডোবা, কমছে শিক্ষার্থী উপস্থিতি  ঝালকাঠিতে হাত-পা বাঁধা ট্রলার চালককে খাল থেকে জ্যান্ত উদ্ধার