২৫শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, বৃহস্পতিবার

বাউফলে ইউপি উপনির্বাচন সরকারি ভবন দখল করে নির্বাচনী কার্যক্রম পরিচালনার অভিযোগ

বরিশালটাইমস, ডেস্ক

প্রকাশিত: ০৮:৩৬ অপরাহ্ণ, ০২ মার্চ ২০২৪

বাউফলে ইউপি উপনির্বাচন সরকারি ভবন দখল করে নির্বাচনী কার্যক্রম পরিচালনার অভিযোগ

মোঃ জসীম উদ্দিন, বাউফল:: পটুয়াখালীর বাউফল উপজেলার কেশবপুর ইউনিয়ন পরিষদ উপনির্বাচনে অটোরিক্সা প্রতীকের চেয়ারম্যান প্রার্থী এনামুল হক অপু আচরণবিধি লঙ্ঘন করে তার (অপুর) বাড়ীর সামনে বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ মহসীন বে-সরকারি বিদ্যালয়ের সরকারি ভবন দখল করে নির্বাচনী কার্যক্রম পরিচালনা করছেন এবং বহিরাগতদের আশ্রয় কেন্দ্র বানিয়েছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

এ ব্যাপারে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কাছে একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন অপর চেয়ারম্যান প্রার্থী আবুল কালাম আজাদ তুহিন। সরেজমিন ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়,বাউফল উপজেলার কেশবপুর ইউনিয়ন পরিষদ উপনির্বাচনের তফশিল ঘোষণার পর থেকেই ইউনিয়নের মমিনপুর এলাকায় চেয়ারম্যান প্রতী এনামুল হক (অপু) বাড়ীর সামনে বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ মহসীন বে-সরকারি বিদ্যালয়ের সরকারি ভবন দখল করে নির্বাচনী কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছেন এনামুল হক অপু। প্রতীক বরাদ্দের পর থেকেই ওই ভবনে পুরোদমে চলে নির্বাচনী কার্যক্রম। ভবনের দোতলায় সাউন্ড বক্সে দিনরাত চলে প্রচারণার গান-বাজনা।

ওই ভবনেই চলে রান্না-বান্না ও খাওয়া- দাওয়া। চেয়ারম্যান প্রার্থী এনামুল হক ওই সরকারি ভবনে বহিরাগত লোকজন নিয়ে রাত্রিযাপন করেন বলেও অভিযোগ পাওয়া গেছে। এবিষয়ে আনারস প্রতীকের চেয়ারম্যান প্রার্থী আবুল কালাম আজাদ তুহিন বলেন,‘ এনামুল হক অপু বহিরাগত সন্ত্রাসীদের কেশবপুর এনে নির্বাচনের পরিবেশ নষ্ট করছেন। তিনি সরকারি ভবন দখল করে সন্ত্রাসের আস্তানা বানিয়েছেন।

অস্ত্র-শস্ত্র নিয়ে ওই সরকারি ভবনে তারা থাকেন। নির্বাচনের সুষ্ঠু পরিবেশ ফিরিয়ে আনতে প্রশাসনের প্রতি অনুরোধ জানিয়ে তুহিন আরও বলেন, নির্বাচনে আওয়ামী লীগের কোনো মনোনয়ন নেই। কিন্তু অপু নিজে আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থী দাবি করে নির্বাচনের মাঠ অশান্ত করার পায়তারা করছেন। তবে সব অভিযোগ অস্বীকার করেছেন এনামুল হক অপু।

তিনি বলেন, এসব ষড়যন্ত্র। প্রতিপক্ষের লোকজন আমার বিরুদ্ধে অপপ্রচার করছেন। এবিষয়ে জানতে চাইলে উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) মো. বশির গাজী বলেন, সরকারি ভবন নির্বাচনী ক্যাম্প বা অফিস হিসেবে ব্যবহার করার কোনো সুযোগ নেই। এটি আচরণবিধির লঙ্ঘন। এবিষয়ে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

17 বার নিউজটি শেয়ার হয়েছে
  • ফেইসবুক শেয়ার করুন