২২শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, সোমবার

বুড়িগঙ্গায় লঞ্চডুবি: ভেসে উঠলো আরেকটি মরদেহ

বরিশাল টাইমস রিপোর্ট

প্রকাশিত: ১০:০৫ অপরাহ্ণ, ৩০ জুন ২০২০

বার্তা পরিবেশক, অনলাইন :: রাজধানীতে শ্যামবাজারের সোমবার সকালে এমএল ‘মর্নিং বার্ড’ নামে লঞ্চটি মুন্সিগঞ্জের কাঠপট্টি থেকে যাত্রী নিয়ে সদরঘাটের দিকে আসছিল।

শ্যামবাজারের কাছে বুড়িগঙ্গায় ‘ময়ূর-২’ নামের আরেকটি বড় লঞ্চের ধাক্কায় সেটি ডুবে যায়। লঞ্চডুবির ঘটনার আরও একজনের মরদেহ ভেসে উঠেছে। এ নিয়ে মর্মান্তিক ওই দুর্ঘটনায় ৩৪ জনের প্রাণহানী হলো।

এর আগে লঞ্চডুবির ঘটনায় মঙ্গলবার (৩০ জুন) দুপুর ১টার দিকে এক ব্যক্তির মরদেহ উদ্ধার করে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল। সন্ধ্যা নাগাদ আরেকটি মরদেহ উদ্ধারের মাধ্যমে দুর্ঘটনার দ্বিতীয় দিনে ২ জনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। তবে কারো নাম-পরিচয় জানা যায়নি।সোমবার (২৯ জুন) প্রথম দিন ধাপে ধাপে হতভাগ্য ৩২ জনের মরদেহ উদ্ধার করে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল।

ফায়ার সার্ভিস সদর দপ্তরে ডিউটি অফিসার এরশাদ হোসেন সাংবাদিকদের বলেন, মঙ্গলবার সন্ধ্যার আগে নদীতে মরদেহটি ভেসে ওঠে। এরপর উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য স্যার সলিমুল্লাহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল মর্গে নিয়ে যাওয়া হয়। এ নিয়ে লঞ্চডুবির ঘটনায় ৩৪ জনের মরদেহ উদ্ধার হলো। এরইমধ্যে অনেকের মরদেহ স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

সোমবার সকাল সোয়া ৯টা নাগাদ বুড়িগঙ্গা নদীর শ্যামবাজার এলাকায় ময়ূর-২ লঞ্চের ধাক্কায় যাত্রীবাহী লঞ্চ মর্নিং বার্ড ডুবে যায়। এ ঘটনায় ধাক্কা দেওয়া লঞ্চের মালিকসহ ৭ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করে পুলিশ। গঠন করা হয় তদন্ত কমিটি।

লঞ্চটি ডুবে যাওয়ার পর থেকেই তা উদ্ধারে কাজ করে ফায়ার সার্ভিস, কোস্টগার্ড ও নৌ পুলিশের ডুবুরি দল। একপর্যায়ে মঙ্গলবার দুপুর ১২টার দিকে ডুবে যাওয়া লঞ্চটি উদ্ধার করা হয়। আর বিকেলে অভিযানের সমাপ্তি ঘোষণা করা হয়।

**বুড়িগঙ্গায় লঞ্চডুবি: আরও ১ জনের লাশ উদ্ধার

5 বার নিউজটি শেয়ার হয়েছে
  • ফেইসবুক শেয়ার করুন