২৫শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, বৃহস্পতিবার

ভোলায় উদ্যোক্তাদের তিনদিনের ঈদমেলায় ক্রেতা-দর্শনার্থীদের ঢল

বরিশালটাইমস, ডেস্ক

প্রকাশিত: ১২:৪২ অপরাহ্ণ, ০২ এপ্রিল ২০২৪

নিজস্ব প্রতিবেদক, বরিশাল: ভোলায় শুরু হয়েছে তিন দিনব্যাপী নারী উদ্যোক্তাদের ঈদমেলা। এ মেলায় রয়েছে নারীদের নিপুন হাতের তৈরিকৃত নানা ডিজাইন ও কারুকার্যের হ্যান্ড পেইন্ট পাঞ্জাবি, শাড়ি ও থ্রি পিসসহ বাহারি পোশাকের সমারোহ।

এছাড়াও রয়েছে কসমেটিকস ও খাদ্য সামগ্রীসহ বাহারি পণ্য। একই ছাদের নিচে নানা পণ্যের সমারোহ থাকায় দৃষ্টি আকর্ষণ করছে ক্রেতা দর্শনার্থীদের। আর তাই প্রথমদিন থেকেই ক্রেতা-দর্শনার্থীদের ঢল নেমেছে মেলায়। তবে সুলভমূল্যে পণ্য কিনতে এসে বেশ সন্তুষ্ট ক্রেতারা। আসন্ন ঈদুল ফিতর উপলক্ষে ভোলা জেলা নারী উদ্যোক্তা এ মেলার আয়োজন করে।

ভোলা শহরের বাংলা স্কুল মাঠে সোমবার (১ এপ্রিল) রাতে এ মেলার উদ্বোধন করেন জেলা প্রশাসক আরিফুজ্জামান। উদ্যোক্তা ঈদমেলা ঘুরে জানা গেল, মেলা মানেই উৎসব আর নতুন বা ভিন্ন কিছুর সমারোহ। যেখানে ক্রেতা-বিক্রেতা দর্শনার্থীর সমাগমে বাড়তি মাত্রা যোগ হয়ে পরিণত হয় মিলনমেলায়। তেমনি নারী উদ্যোক্তাদের তিনদিনের ঈদমেলায় ঢল নেমেছে। শহরের বাংলাস্কুল মাঠের এ মেলার আয়োজক নারী উদ্যোক্তা এবং ক্রেতা-বিক্রেতারাও নারী।

স্টলে স্টলে তৈরি পোশাকের পাশাপাশি কসমেটিকস ও নানা কারুকার্যের পাঞ্জাবি আর তৈরি পোশাকের সমারোহ। যা কিনতে এসে খুশি ক্রেতারা। দাম নিয়ে অভিযোগ নেই কারো। সাধ্যের মধ্যে পণ্য কিনে খুশি তারা।
ক্রেতা শ্রাবণী, রেশমি আক্তার ও রুবিনা সাংবাদিকদের জানান, মেলায় নতুন নতুন কালেকশন রয়েছে যা ক্রেতাদের মন জয় করে নিয়েছে। তাছাড়া একই স্থানে মিলছে সব পণ্য। দামও মোটামুটি সহনশীল। ঈদ উপলক্ষে মেলার এমন আয়োজনে ক্রেতা-দর্শনার্থীদের ঢল নেমেছে আর তাই সন্তুষ্ট অনেক বিক্রেতা।

নতুন উদ্যোক্তা তৈরিতে এ মেলা বিশেষ ভূমিকা পালন করবে বলে মনে করছেন আয়োজকরা। উদ্যোক্তা ঈদমেলা কমিটির সভাপতি পাপিয়া চৌধুরী সাংবাদিকদের বলেন, মূলত পণ্যের প্রচার এবং নতুন উদ্যোক্তা তৈরির লক্ষ্যে এ মেলার আয়োজন।

স্টল মালিক প্রমিতা এনি সাংবাদিকদের বলেন, দেশীয় পণ্যের সমারোহ রয়েছে মেলায়। আমরাও চাই ঐতিহ্য ধরে রাখতে। তাই আমাদের স্টলে মনিপুরি শাড়ি, হ্যান্ড পেইন্ট শাড়ি-পাঞ্জাবির সমারোহ রয়েছে। যা কিনতে ভিড় করছেন ক্রেতারা।

ভোলার জেলা প্রশাসক আরিফুজ্জামান সাংবাদিকদের বলেন, নারীরা যাতে বাধাহীন এগিয়ে যেতে পারে সেজন্য তাদের নিরাপত্তার পাশাপাশি সার্বিক সহযোগিতা করছে জেলা প্রশাসন। এর আগে ফিতা কেটে এ মেলার উদ্বোধন করেন ভোলার জেলা প্রশাসক আরিফুজ্জামান। মেলায় ২১টি স্টল বসেছে। সার্বিক সহযোগিতায় রয়েছে গ্রামীন জন উন্নয়ন সংস্থা।

90 বার নিউজটি শেয়ার হয়েছে
  • ফেইসবুক শেয়ার করুন