১৫ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, সোমবার

মঠবাড়িয়ায় বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রীর ছবি ভাঙচুর

বরিশাল টাইমস রিপোর্ট

প্রকাশিত: ০৫:৪৯ অপরাহ্ণ, ২০ নভেম্বর ২০১৬

মঠবাড়িয়া: পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় শনিবার সন্ধ্যায় কলেজ ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রুবেল আকন (২২) কে অপহরণ করে হত্যা চেষ্টার অভিযোগে উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ইউপি চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম রিপন জমাদ্দারসহ ১৩ জনের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। আহত ছাত্রলীগ নেতার পিতা পান্না আকন বাদী হয়ে শনিবার রাতে মঠবাড়িয়া থানায় মামলা করেছেন। পুলিশ শনিবার রাতেই অভিযান চালিয়ে ঘটনার সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে মোস্তফা নামের একজনকে গ্রেফতার করেছে।

 

মামলা সূত্রে জানাগেছে, উপজেলার বাইশকুড়া একতা ক্লাব নিয়ে ছাত্রলীগ নেতা রুবেল আকন ও স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম রিপন জমাদ্দারের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছিল। ওই বিরোধের জের ধরে গতকাল শনিবার সন্ধ্যায় ইউপি চেয়ারম্যানের নের্তৃত্বে ২০ থেকে ২৫ জনের একটি দল মোটরসাইকেল যোগে বাইশকুড়া বাজারে এসে লোহার রড, হকিস্টিক, চাইনিজ কুড়াল দিয়ে উল্লেখিত ক্লাবটি ভাংচুর শুরু করে। এসময় সংঘবদ্ধ দলবল বাইশকুড়া একতা ক্লাবে রক্ষিত বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রীর ছবি ভাংচুরসহ অফিসটি তছনছ করে গুড়িয়ে দেয়।

 

এসময় রুবেল আকন বাঁধা দিলে তাকে মারধর করে পরে অপহরণ করে অজ্ঞাত স্থানে নিয়ে যায়। পরে পুলিশ রাত আটটার দিকে আসামীদের কবল থেকে অপহৃত রুবেলকে উদ্ধার করে। ছাত্রলীগ নেতাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তির পর আশংকাজনক অবস্থায় রাতেই বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।

 

এব্যাপারে উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ইউপি চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম রিপন জমাদ্দার তার বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন ঘটনার সময় আমি একটি সালিশ বৈঠকে ছিলাম। এছড়া সংঘর্ষে আমার কর্মী কবির হোসেনসহ কয়েকজন আহত হয়েছে।

 

মঠবাড়িয়া থানার ওসি তদন্ত মো. সরোয়ার শেখ জানান, এঘটনার সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে একজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বাকী আসামীদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

20 বার নিউজটি শেয়ার হয়েছে
  • ফেইসবুক শেয়ার করুন