১৯শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, শুক্রবার

মঠবাড়িয়া উপজেলা আ’লীগ সম্পাদককে প্রাণনাশের হুমকি, উত্তেজনা

বরিশাল টাইমস রিপোর্ট

প্রকাশিত: ০৯:৩৪ অপরাহ্ণ, ২৫ আগস্ট ২০১৭

পিরোজপুরের মঠবাড়িয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও স্থানীয় কে এম.লতিফ ইনস্টিটিউশনের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি আজিজুল হক সেলিম মাতুব্বরকে দলীয় নেতারা প্রাণনাশের হুমকি দিয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এই ঘটনায় তিনি শুক্রবার দুপুরে মঠবাড়িয়া থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করা হয়েছে।

সাধারণ সম্পাদক সেলিম মাতুব্বর নিজেই বাদী হয়ে তার জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে থানায় এ জিডিটি করেন। ওই জিডিতে আওয়ামী লীগ সমর্থক ও মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ ও পিরোজপুর জেলা পরিষদের সদস্য আজিমুল হক, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক রফিকুর ইসলাম রিপন, উপজেলা আওয়মী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক লোকমান হোসেন খান, উপজেলা যুবলীগের সভাপতি শাকিল আহমেদ নওরোজ, উপজেলা তরুণলীগের সভাপতি শাহিন শরিফসহ আরও অজ্ঞাতনামা ৮ জনের নাম উল্লেখ করা হয়।

জিডি সূত্রে জানা যায় পৌরশহরের অবস্থিত কে লতিফ ইনস্টিটিউশনের দাতা সদস্য না হওয়ার জন্য গত বৃহস্পতিবার বিকেলে পৌরসভার সম্মুখে উল্লেখিত বিবাদীরা প্রাণনাশের হুমকি দেন। এছাড়া বৃহস্পতিবার (২৪ আগস্ট) গভীর রাতে খুন জখমের উদ্দেশে তার বাসায় গিয়ে হামলার চেষ্টা করলে তাৎক্ষণিকভাবে বিষয়টি থানা পুলিশকে জানালে উল্লেখিত বিবাদীরা পালিয়ে যায়।

এদিকে শুক্রবার বিকেলে আজিজুল হক সেলিম মাতুব্বর সংবাদ সম্মেলন করে বলেন। দলের সন্ত্রীদরে ভয়ে তিনি নিরাপত্তায় হীনতায় ভুগছেন। এবং তিনি বলেন গত বছর ২৫শে জুলাই ২০১৬ সালে যুবলীগ নেতা লিটন কর্মী যে অস্ত্রের গুলিতে মারা যায় সে অস্ত্রটি শাকিল আহমেদ নওরোজ এর ব্যবহৃত অস্ত্র । পুলিশ ওই অস্ত্রটি জব্দ করেছে।

এছাড়া রিপনের বিরুদ্ধে হামলা ও ভাঙচুরের মামলায় আদালতে প্রধান আসামীকরে চার্জশিট প্রদান করা হয়। তিনি তার জীবনের নিরাপত্তার জন্য প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেন।

তিনি আরও জানান উপজেলা আওয়মী লীগের সভাপতি ও পৌর মেয়র রফি উদ্দিনের আহমেদ ফেরদৌসের নিদের্শে থানায় জিডি করেন। এব্যাপারে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক লোকমান হোসেন খান জানান জিডির বিষয়টি সম্পূর্ন মিথ্যা ও বানোয়াট।

মঠবাড়িয়া থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কে এম তারিকুল ইসলাম জিডির সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন রাতে খবর পেয়েই বাস ভবনে সেলিম মাতুব্বরের বাস ভবনে পুলিশি নিরাপত্তা জোরদার করা হয়।

এদিকে জিডির ঘটনায় মঠবাড়িয়ায় নেতাদের মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করছে। যে কোন সময় সংঘাতের আশঙ্কায় আইনশৃংখলা মোতায়েন করা হয়েছে।”

19 বার নিউজটি শেয়ার হয়েছে
  • ফেইসবুক শেয়ার করুন