৫ ঘণ্টা আগের আপডেট সকাল ৫:২৪ ; বৃহস্পতিবার ; মে ২৬, ২০২২
EN Download App
Youtube google+ twitter facebook
×

মামলা চালাতে জেএমবির ডাকাতি

বরিশাল টাইমস রিপোর্ট
৬:১৩ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ১৮, ২০১৬

জেএমবির কারাবন্দি নেতাদের মামলার খরচ চালানোর পাশাপাশি সংগঠনের খরচ মেটাতে এই জঙ্গি দলের ‘পুরনো অংশের’ সদস‌্যরা এখন ডাকাতি-ছিনতাইয়ের মতো অপরাধে জড়িয়ে পড়ছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

ঢাকার তেজগাঁও এলাকা থেকে অস্ত্র, সোনা, টাকা ও বিপুল পরিমাণ ‘লুটের মাল’সহ সাত ‘জেএমবি’ সদস্যকে গ্রেপ্তারের পর মঙ্গলবার পুলিশের গণমাধ্যম কার্যালয়ে এক সংবাদ ব্রিফিংয়ে কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটের প্রধান মনিরুল ইসলাম এ কথা বলেন।

ঢাকা মহানগর পুলিশের উপ কমিশনার মাসুদুর রহমান জানান, সোমবার সন্ধ্যায় তেজগাঁও এলাকায় অভিযান চালিয়ে ওই সাতজনকে গ্রেপ্তার করা হয়।

“এরা রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় ডাকাতির সঙ্গে জড়িত। ডাকাতি করে লুট করা অর্থ সংগঠনের কাজে ব‌্যবহার করত।”

এই সাতজন হলেন- মো. কাশেম ওরফে কাউসার ওরফে কাশু (২০), নাজমুল হাসান নয়ন ওরফে নরেশ (২৩), মো. রাশেদ ওরফে কাকলির বাবা (২৭), মো. সেন্টু হাওলাদার ওরফে জাহিদ (২৬), মো. আবু বক্কর সিদ্দিক ওরফে শুভ্র ওরফে আকাশ (২০), মো. আবদুল বাছেদ (২২) ও মো. জুয়েল সরকার ওরফে সোহরাব ওরফে সরকার (৩২)।

তাদের কাছ থেকে ৬৭ ভরি সোনার গয়না, ছয় লাখ টাকা, চারটি পিস্তল, পাঁচটি ম‌্যাগাজিন, দশ রাউন্ড গুলি, নয়টি চাপাতি, টেলিভিশন, ল‌্যাপটপ, মোটরসাইকেলসহ বিভিন্ন লুটের মাল উদ্ধার করা হয়েছে বলে মাসুদুর রহমান জানান।

ঢাকা মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার মনিরুল ইসলাম বলেন, “এরা পুরনো জেএমবির সদস্য। মাওলানা সাঈদুর রহমান, আবু তসলিম তাদের নেতা। তারা এখন কারাগারে। এই নেতাদের মুক্ত করতে ভালো উকিল নিয়োগের জন‌্য টাকা সংগ্রহে এরা ডাকাতি করত।”

বনানী ও তেঁজগাওয়ে দুটি ডাকাতির ঘটনায় তাদের জড়িত থাকার তথ্য-প্রমাণ ‘পাওয়া গেছে’ বলে এই পুলিশ কর্মকর্তা জানান।  ২০০৫ সালের ২১ ফেব্রুয়ারি সরকার জেএমবি ও জেএমজেবির কার্যক্রম নিষিদ্ধ ঘোষণা করলে ওই বছর ১৭ অগাস্ট ৬৩ জেলায় একযোগে বোমা ফাটিয়ে নিজেদের শক্তির জানান দেয় সংগঠনটি।

ঝালকাঠি জেলার সিনিয়র সহকারী জজ সোহেল আহম্মেদ ও জগন্নাথ পাঁড়ের গাড়িতে বোমা হামলা চালিয়ে তাদের হত্যার দায়ে ২০০৭ সালের ৩০ মার্চ জেএমবির শীর্ষ নেতা শায়খ আব্দুর রহমান ও ছিদ্দিকুল ইসলাম বাংলাভাইসহ ছয় জঙ্গির ফাঁসি কার্যকর করা হয়।

এরপর টানা অভিযানে এমবির মেরুদণ্ড ভেঙে দেওয়া সম্ভব হয়েছে বলে ধারণা করছিলেন পুলিশ কর্মকর্তারা। কিন্তু। গত তিন বছরে অধিকাংশ জঙ্গি হামলা ও হত্যার জন্য জেএমবিকেই দায়ী করেছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।

চলতি বছরের শুরু থেকে জঙ্গি কর্মকাণ্ড নতুন মাত্রা পায়। ১ জুলাই গুলাশানের হলি আর্টিজান বেকারি ও ৭ জুলাই ঈদের দিন শোলাকিয়ায় ঈদের জামাতে যাওয়ার পথে নজিরবিহীন দুটি জঙ্গি হামলার ঘটনা ঘটে। দুটি ঘটনাতেই পুলিশ জেএমবির নতুন একটি অংশকে দায়ী করে জানায়, তারা ‘নব‌্য জেএমবি’।

মনিরুল জানান, পুরনো জেএমবির বর্তমান আমির সালাউদ্দিন ওরফে সালেহীন ভারতে পালিয়ে আছেন বলে তাদের ধারণা। “সংগঠনটির ওই অংশের সঙ্গে আনসার আল ইসলামের একটি সম্পর্ক গড়ে ওঠার ক্ষেত্র তৈরি হচ্ছে বলে মনে হচ্ছে।”

দীর্ঘদিন ধরে পুলিশের জঙ্গিবাদ বিরোধী তৎপরতায় জড়িত মনিরুল জেএমবির ইতিহাস তুলে ধরে বলেন, “১৯৯৮ সালে সংগঠনটি গঠনের পর বিভিন্ন সময়ে জেএমবি সদস্যরা ডাকাতি ও ছিনতাইয়ে জড়িত হয়েছে। তাদের নেতা মাওলানা সাইদুর রহমান ধর্মের বিকৃত ব্যাখ্যা দিয়ে ডাকাতিকে বৈধতা দিতেন।”

মনিরুলের বিশ্বাস, জেএমবির ‘বড় কোনো পৃষ্ঠপোষক’ কখনো ছিল না। এখন কেউ টাকা যোগাচ্ছে কি না তা তদন্ত করে দেখা হবে বলে জানান তিনি।

অন‌্যদের মধ‌্যে গোয়েন্দা পুলিশের উপ কমিশনার শেখ নাজমুল আলম ও উপ কমিশনার মাসুদুর রহমান ব্রিফিংয়ে উপস্থিত ছিলেন।

জাতীয় খবর, টাইমস স্পেশাল, স্পটলাইট

 

আপনার মতামত লিখুন :

 
ভারপ্রাপ্ত-সম্পাদকঃ শাকিব বিপ্লব
© কপিরাইট বরিশালটাইমস ২০১২-২০১৮ | বরিশালটাইমস.কম
বরিশালটাইমস মিডিয়া লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান।
ইসরাফিল ভিলা (তৃতীয় তলা), ফলপট্টি রোড, বরিশাল ৮২০০।
ফোন: +৮৮০২৪৭৮৮৩০৫৪৫, মোবাইল: ০১৮৭৬৮৩৪৭৫৪
ই-মেইল: [email protected], [email protected]
© কপিরাইট বরিশালটাইমস ২০১২-২০১৮
টপ
  বাউফলে ১৯ বছর ধরে চলছে শিক্ষার্থীবিহীন এমপিওভুক্ত মাদ্রাসা, দেখার কেউ নেই  অটোরিক্সাকে মাহিন্দ্রার ধাক্কা: ছিটকে পড়ে বৃদ্ধ নিহত  বরিশাল/ বাস থেকে নামিয়ে ছাত্রদল নেতাকর্মীদের পেটাল ছাত্রলীগ  লালমোহনে ৪ বিদ্রোহী প্রার্থীকে আওয়ামী লীগ থেকে বহিস্কার  সমাবেশ করে বাসায় ফেরার পথে ট্রাকচাপায় বিএনপি নেতা নিহত  শিক্ষার্থীদের সমকামিতার প্রস্তাব দেওয়া সেই শিক্ষককে অব্যাহতি  কলাপাড়ায় গ্যাস ট্যাবলেট খেয়ে কলেজছাত্রীর মৃত্যু  আগৈলঝাড়ায় দেশীয় প্রজাতির মাছ এবং শামুক সংরক্ষণে উদ্বুদ্ধকরণ সভা  বাউফলে সাংবাদিকদের মানববন্ধন  ৭২ ঘণ্টার মধ্যে দেশের সব অনিবন্ধিত ক্লিনিক বন্ধের নির্দেশ