২৫শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, বৃহস্পতিবার

মেয়েকে ধর্ষণের অভিযোগে স্বামীর বিরুদ্ধে স্ত্রীর মামলা

বরিশাল টাইমস রিপোর্ট

প্রকাশিত: ০১:৩০ অপরাহ্ণ, ২১ জুলাই ২০২০

মজিবর রহমান, মঠবাড়িয়া:: পিরোজপুরের মঠবাড়িয়া উপজেলার বেতমোর ইউনিয়নের ঘোপখালী গ্রামে স্বামীর বিরুদ্ধে মেয়েকে (১৪) ধর্ষণের অভিযোগ এনে মামলা দায়ের করেছেন স্ত্রী। সোমবার (২০ জুলাই) বিকেলে ওই স্বামীর বিরুদ্ধে বাদী হয়ে মঠবাড়িয়া থানায় মামলা দায়ের করা হয়।

এজাহার সূত্রে জানা গেছে, ঘোপখালী গ্রামের আব্দুল রব বেপারীর পুত্র ৫ সন্তানের জনক লম্পট সেলিম বেপারী (৬০) দীর্ঘদিন ধরে তার নিজের মেয়েকে কুপ্রস্তাব দিয়ে আসছিল। এতে সে রাজি না হয়ে প্রতিবাদ করলে পিতা মেয়েটির ওপর মানসিক ও শারীরিক নির্যাতন চালায়। গত ৫ জুলাই ওই লম্পট পিতা সেলিম মেয়েটির মাকে কৌশলে বাজার করার কথা বলে হাটে পাঠিয়ে দিয়ে একাকী ঘরে মেয়েকে মুখ চেপে ধরে ধর্ষণ করে। পরে বাজার থেকে ফিরে এলে মেয়েটি তার মায়ের কাছে ঘটনাটি সম্পর্কে জানায়। এরপর সেলিম বেপারীর কাছে তার স্ত্রী ঘটনা সম্পর্কে জিজ্ঞেস করলে সে ক্ষিপ্ত হয়ে যায়। একপর্যায়ে সেলিম তার স্ত্রী হুমকি দেয় এই ঘটনা কাউকে জানালে এবং মামলা-মোকদ্দমা করলে পরিবারের সবাইকে খুন করবে। সেই থেকে স্বামীর অব্যাহত অত্যাচারে অতিষ্ঠ হয়ে স্বজনদের সাথে আলোচনা করে ঘটনার ১৭ দিন পরে থানায় মামলাটি দায়ের করেন স্ত্রী।

নির্যাতিতা মেয়েটি স্থানীয় সংবাদকর্মীদের জানান, তার বাবা এর আগেও তাকে চাকুরীর কথা বলে চট্টগ্রামে নিয়ে যায় এবং সেখানেও তার ওপর যৌন নির্যাতন করে। পরে আমি আত্মহত্যা করার হুমকি দিলে আমার ওপর শুরু করে মানসিক নির্যাতন।

মঠবাড়িয়া সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (এএসপি) হাসান মোস্তফা বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত করে বরিশালটাইমসকে জানান, মেয়েটির ডাক্তারী পরীক্ষা জেলা সিভিল সার্জন কার্যালয়ে সম্পন্ন হয়েছে। আসামি লম্পট সেলিম বেপারিকে গ্রেপ্তারের জন্য পুলিশি অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

9 বার নিউজটি শেয়ার হয়েছে
  • ফেইসবুক শেয়ার করুন