৮ ঘণ্টা আগের আপডেট সকাল ৭:৩২ ; শুক্রবার ; জানুয়ারি ২৭, ২০২৩
EN Download App
Youtube google+ twitter facebook
×

রাজনৈতিক সভা-সমাবেশের অনুমতি: শর্ত একই, প্রয়োগে ভিন্নতা

Mahadi Hasan
১২:৫৫ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ১, ২০২২

রাজনৈতিক সভা-সমাবেশের অনুমতি: শর্ত একই, প্রয়োগে ভিন্নতা

নিজস্ব প্রতিবেদক, বরিশাল: রাজনৈতিক দলগুলোর মধ্যে বিশেষ করে বিএনপি কোনো সমাবেশ করতে চাইলে প্রশাসন থেকে ডজন ডজন শর্তে জুড়ে দেওয়া হয়। সেই শর্তের তালিকা গণমাধ্যমেও দেওয়া হয়। তবে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের বেলায় তেমনটা দেখা যায় না বলে অভিযোগ বিএনপির।

দলটি বলছে, প্রশাসনের পক্ষ থেকে আরোপিত শর্তগুলো সামাজিক মাধ্যমে দেওয়ার পেছনে অশুভ উদ্দেশ্য থাকতে পারে। কারণ আওয়ামী লীগকে দেওয়া অনুমতিপত্র তো কোথাও দেয় না প্রশাসন। এতেই প্রমাণ হয় সরকার চরম অগণতান্ত্রিক আচরণ করে সবখানে।

জবাবে আওয়ামী লীগ বলছে, তারাও অনুমতির জন্য নিয়ম মেনে চিঠি দেয়। প্রশাসন শর্ত দিয়ে অনুমতি দেয়। আর প্রশাসন থেকে বলা হচ্ছে, অনুমতির ক্ষেত্রে সবার বেলায় সমান আচরণ করা হয়।

দল দেখে নয়, পরিস্থিতি বিবেচনায় অনুমতির শর্ত দেওয়া হয়। ঢাকার সমাবেশের জন্য নয়াপল্টনে নয়, সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে বিএনপিকে অনুমতি দিয়েছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি)। সেই সঙ্গে দেওয়া হয়েছে ২৬টি শর্ত।

এ ছাড়া রাজশাহীর সমাবেশের জন্য আট শর্তে বিএনপিকে অনুমতি দিয়েছে প্রশাসন। বিএনপি বলছে, তাদের এখন পর্যন্ত সিদ্ধান্ত নয়াপল্টনেই সমাবেশ করার। তবে দলের সর্বোচ্চ ফোরাম আলোচনা করে নতুন সিদ্ধান্ত নেবে।

আগামী ১০ ডিসেম্বর রাজধানীর নয়াপল্টনে সমাবেশ করতে ডিএমপির কাছ থেকে অনুমতি চেয়েছিল বিএনপি। এর পরিবর্তে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে সমাবেশ করতে অনুমতি দিয়েছে ডিএমপি।

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেন, ‘শুধু সমাবেশ নয়, শর্তের বৈষম্য তো সব ক্ষেত্রেই। দল দেখে বিরূপ আচরণ করা হয়। আর প্রশাসন তো সরকারের আজ্ঞাবহ। তারা নির্দেশনা পালন করে। তা না করলে চাকরি চলে যাবে।’

দলের সাংগঠনিক সম্পাদক সৈয়দ এমরান সালেহ প্রিন্স বলেন, ‘আমরা চাই আওয়ামী লীগের সমাবেশের অনুমতিপত্র প্রকাশ করা হোক। শর্তের আবরণে বিএনপির রাজনীতিকে নিয়ন্ত্রণ করতে চায় সরকার। এটি সংবিধান পরিপন্থি।’

কেন্দ্রীয় প্রচার সম্পাদক শহীদ উদ্দিন চৌধুরী বলেন, ‘প্রথমত আমরা সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে অনুমতিই চাইনি। কেন তারা সেখানে আগেভাগে অনুমতি দিয়ে তা প্রচার করলÑবুঝে আসে না।

তাদের উদ্দেশ্য ভালো নয়। আমাদের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে শান্তিপূর্ণ সমাবেশ করার কথাই আমরা ডিএমপি কমিশনারকে বলেছি। আমাদের এখন পর্যন্ত সিদ্ধান্ত নয়াপল্টনেই সমাবেশ করার।’

রাজনৈতিক যেকোনো কর্মসূচি পালন করতে গেলে বিরোধী দলের মতো সরকারি দল আওয়ামী লীগকে শর্ত দেয় ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি) বলে জানিয়েছেন দলটির নেতারা।

গত ২০ নভেম্বর রাজধানীর উত্তরার সোনারগাঁও জনপথ সড়কে শান্তি সমাবেশ ও বিক্ষোভ মিছিল করে ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগ। এ সমাবেশেও বেশ কয়েকটি শর্ত দিয়েছিল বলে জানিয়েছেন ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ বজলুর রহমান।

তিনি বলেন, ‘কোনোভাবেই ছুটির দিন ব্যতীত সমাবেশ করা যাবে না। একই সঙ্গে সমাবেশ কোনোভাবেই মূল সড়কে করা যাবে না। সমাবেশ সন্ধ্যার আগেই শেষ করতে হবে। কোনো ধরনের লাঠিসোটা নিয়ে আসা যাবে না।

অস্ত্র বহন করা যাবে নাসহ এক গুচ্ছ শর্ত দিয়েছিল। তবে আমাদের ক্ষেত্রে হয়তো একটু শিথিল করা হয়েছিল, কারণ সরকারি দল। যেহেতু জানমালের নিরাপত্তা দেওয়া আমাদের কর্তব্য। আর আমরা তো নির্দেশনার বাইরেও যাইনি। যাব না।’

গত ২৬ নভেম্বর রাজধানীর ঐতিহাসিক সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে ষষ্ঠ মহিলা আওয়ামী লীগের সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। এ সম্মেলনেও ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি) বেশ কয়েকটি শর্ত দেয় বলে জানিয়েছেন মহিলা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি সাফিয়া খাতুন।

তিনি বলেন, ‘রাজনৈতিক যেকোনো কর্মসূচি পালন করতে হলে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের অনুমতি নিতে হয়। এ সময় কিছু শর্ত দেওয়া হয়। আমাদেরও শর্ত দেওয়া হয়েছিল। এর মধ্যে ছিল সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের অভ্যন্তরে সমাবেশের যাবতীয় কার্যক্রম সীমাবদ্ধ রাখতে হবে।

নিরাপত্তার জন্য নিজস্ব ব্যবস্থাপনায় পর্যাপ্তসংখ্যক স্বেচ্ছাসেবক (দৃশ্যমান আইডি কার্ডসহ) নিয়োগ করতে হবে। সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের বাইরে বা সড়কের পাশে মাইক/সাউন্ডবক্স ব্যবহার করা যাবে না। আজান, নামাজ ও অন্যান্য ধর্মীয় সংবেদনশীল সময়ে মাইক/শব্দযন্ত্র ব্যবহার করা যাবে না। সন্ধ্যার মধ্যে সমাবেশে শেষ করতে হবে।

সমাবেশ স্থলে দুই ঘণ্টা আগে ঢুকতে হবে। যান ও জন চলাচলে কোনো প্রকার প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করা যাবে না। পতাকা, ব্যানার, ফেস্টুন বহনের আড়ালে কোনো ধরনের লাঠিসোটা, রড ব্যবহার করা যাবে না। আইনশৃঙ্খলা পরিপন্থি ও জননিরাপত্তা বিঘ্নিত হয় এমন কার্যকলাপ করা যাবে না, এমন অনেকগুলো শর্ত দিয়েছিল।’

এসব বিষয়ে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার খন্দকার গোলাম ফারুক বলেন, ‘শান্তি-শৃঙ্খলা বজায় রাখতে বিএনপির সমাবেশে যে শর্ত দেওয়া হয়েছে আওয়ামী লীগের সমাবেশের জন্যও একই শর্ত দেওয়া হয়।’

জাতীয় খবর

আপনার মতামত লিখুন :

 
ভারপ্রাপ্ত-সম্পাদকঃ শাকিব বিপ্লব
© কপিরাইট বরিশালটাইমস ২০১২-২০১৮ | বরিশালটাইমস.কম
বরিশালটাইমস মিডিয়া লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান।
ইসরাফিল ভিলা (তৃতীয় তলা), ফলপট্টি রোড, বরিশাল ৮২০০।
ফোন: +৮৮০২৪৭৮৮৩০৫৪৫, মোবাইল: ০১৮৭৬৮৩৪৭৫৪
ই-মেইল: [email protected], [email protected]
© কপিরাইট বরিশালটাইমস ২০১২-২০১৮
টপ
  বাবুগঞ্জে গভীর রাতে জোড়া খুনঃ ডাকাতি বলে সাজানোর চেষ্টা  পিরোজপুরে এবার ৯৬ ফুট উচ্চতার কালী প্রতিমা  বরিশালে হলে ঢুকে শিক্ষার্থী‌কে কুপিয়ে জখম, প্রতিবাদে মশাল মি‌ছিল  রামপাল থেকে ৪৭ লাখ টাকার মেশিন চুরি  আমরা ধৈর্য ধরেছি, কিন্তু দুর্বল না: শামীম ওসমান  ‘মিথ্যা মামলায়’ জেল খাটলেন শিক্ষক  রেস্তোরাঁয় ‍মিলবে কৃত্রিম মাংস: মানুষ খেতে পারবে কী  অভাবের তাড়নায় শিশুসন্তান বিক্রি: মায়ের কোলে ফিরিয়ে দিল পুলিশ  পছন্দসই প্রার্থীকে ‌‘নিয়োগ না দেওয়ায়’ স্কুলশিক্ষককে প্রকাশ্যে পিটুনি  লালমোহনে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত