২৩শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, মঙ্গলবার

শাহজাদা সাজুকে মন্ত্রী হিসেবে দেখতে চায় এলাকাবাসী

বরিশাল টাইমস রিপোর্ট

প্রকাশিত: ০৮:৪১ অপরাহ্ণ, ২৬ জুন ২০২০

বার্তা পরিবেশক, দশমিনা:: পটুয়াখালী-৩ আসনের সংসদ সদস্য ও নৌ-পরিবহন মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সদস্য এস এম শাহজাদা সাজুকে মন্ত্রী হিসেবে দেখতে চায় তার নির্বাচনী এলাকার সর্বস্তরের জনগণ। ২০১৮ সালের নির্বাচনে বিপুল ভোটে জয়লাভ করেন তিনি। এর পর থেকে গলাচিপা-দশমিনা উপজেলা আওয়ামী লীগ ও অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীসহ দল মত নির্বিশেষে এলাকার সর্বস্তরের জনগণকে নিয়ে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করেন। এলাকায় ব্যাপক উন্নয়নমূলক কাজ করে সাড়া ফেলেছেন তিনি।

গলাচিপা-দশমিনা উপজেলার রাস্তা-ঘাট, নদীভাঙন, স্কুল-কলেজ, মাদ্রাসাসহ অসংখ্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ব্যাপক উন্নয়নমূলক কাজ করেন। যা এই অবহেলিত দুই উপজেলাকে অনেক বছরের জন্য এগিয়ে নিয়েছে,
শুধু উন্নয়ন নয়।

একজন সংসদ সদস্য হয়েও নিজ নির্বাচনী এলাকার জনগণের সাথে কতটা বিনয়ের সাথে কথা বলা যায় সেটার দৃষ্টান্ত এই এমপি। সাধারণ মানুষের সাথে কথা বলেন বিনয়ের সাথে। ছেলের বয়সি ছেলেটার সাথে কথা বলেন আপনি করে । ছোট বাচ্চা ছেলেটাকেও আপনি করে বলেন। ভুলেও মুখ থেকে তুই তুমি শব্দাটা শোনা যায় না। বিরক্ত হন না কোন কাজেই। সাধারণ জনগণের কথা শোনার জন্য তিনি গুরুত্বপূর্ণ অনেক সময় ব্যয় করে থাকেন। যেখানে শোনা যায় কোন এমপির ফোনে অপরিচিত কোন ফোন নাম্বার থেকে কল গেলে রিসিভ করেন না বা মানুষ এমপিকে ফোন দিতে ভয় পায় সেখানে অপরিচিত কোন সাধারণ মানুষও ফোন করেন তাহলে তাঁর সাথেও কথা বলেন এমপি শাহজাদা গুরুত্বপূর্ণ সময় ব্যয় করে। ব্যস্ততার কারণে ফোন রিসিভ করতে না পানলেও পরে আবার কলব্যাক করে কথা বলেন। শোনেন সমস্যার কথা। ফিরিয়ে দেননা কাউকে। সবার কথাই মন দিয়ে শোনেন। চেষ্টা করেন সমস্যা সমাধানের জন্য। সম্ভব না হলে বিনয়ের সাথে বুঝিয়ে বলেন। নিরাস করেন না। সাধারণ জনগণের মাঝে প্রচলিত নিয়ম অনুযায়ী একটা ভীতি কাজ করে। এমপি মানেই ভয়। এমপি মনেই ক্ষমতার দাপট। এমপি মানে তাঁর সামনে ভয়ে দাড়িয়ে কথা বলা যাবে না এমন কিছু। কিন্তু তিনি এক ব্যতিক্রমী সাংসদ। যার সাথে সবাই কথা বলেন প্রাণ খুলে ও হাসি মুখে। তিনি জনগণের সাথে আচরণ করেন একজন সাধারণ মানুষের মতো।এমপির মতো নয়। মাঝে মাঝে ভুলে যান তিনি এমপি।

এলাকায় আসলে সাধারণ মানুষের সাথে বসে পরেন চায়ে দোকানে। জনগণের সাথে চায়ের কাপে আড্ডায়। এলাকার ছোট ছোট শিশুদের সাথে নেমে পরেন খেলার মাঠে। শিশুদের আনন্দ দেয়ার চেষ্টা করেন। এ যে সততার বহি:প্রকাশ। কখনও আবার দেখা যায় গাড়ি ও পুলিশি প্রোটকল ছাড়া নেতাকর্মীদের নিয়ে রাস্তায় হেটে বেড়াচ্ছেন। মানুষের সাথে হাত মেলাচ্ছেন ও হাটতে হাটতে কথা বলছেন। যা কেবল একজন নম্র ভদ্র ও বিনয়ী জনপ্রতিনিধির পক্ষেই সম্ভব।

সম্প্রতি নানা গুনের অধিকারী এই সাংসদকে মন্ত্রী হিসেবে দেখতে চেয়ে দাবি তুলেছেন গলাচিপা-দশমিনা উপজেলা আওয়ামী লীগের দলীয় নেতাকর্মী ও এলাকাবাসী।

দশমিনা উপজেলা যুবলীগের সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট আজিমুর রাইহান শাহিন বলেন, এস এম শাহজাদা সাজু মহোদয় অনেক ভালো ও বিনয়ী প্রকৃতির মানুষ। তিনি নির্বাচিত হওয়ার পর দুই উপজেলার আওয়ামী লীগকে ঐক্যবন্ধ করেছেন। এলাকায় উন্নয়নের মাধ্যমে সাড়া ফেলেছেন। তিনি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শ বুকে ধারন করে সাধারণ মানুষের জন্য কাজ করে যাচ্ছেন। গলাচিপা-দশমিনা উপজেলা আওয়ামী লীগ ও এলাকাবাসী এস এম শাহজাদা এমপি মহোদয়কে মন্ত্রী হিসেবে দেখতে চায়। আমরা দলীয় নেতাকর্মীরা জননেত্রী শেখ হাসিনার কাছে বিনয়ের সাথে অনুরোধ করছি। পটুয়াখালী-৩ আসনের সংসদ সদস্য এস এম শাহজাদা সাজুকে তার কাজের মুল্যায়নের মাধ্যমে মন্ত্রীর মর্যাদা দেয়া হোক।’

5 বার নিউজটি শেয়ার হয়েছে
  • ফেইসবুক শেয়ার করুন