১২ ঘণ্টা আগের আপডেট সকাল ১০:৮ ; বুধবার ; সেপ্টেম্বর ২৩, ২০২০
EN Download App
Youtube google+ twitter facebook
×

শিক্ষককে কান ধরে উঠবস: ৮ জনের বিরুদ্ধে তথ্যপ্রযুক্তি আইনে মামলা

বরিশাল টাইমস রিপোর্ট
১১:০৭ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১৫, ২০২০

নিজস্ব প্রতিবেদক, বরিশাল:: বরিশালে এক শিক্ষককে কান ধরিয়ে উঠ-বস করানোর ঘটনায় জড়িত এমন ৮ জনের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। শহরের রূপাতলী এলাকার জমজম নার্সিং কলেজের সাবেক শিক্ষক মিজানুর রহমান সজল মঙ্গলবার তাদের থানায় এই মামলা করেন। মামলা গ্রহণের বিষয়টি রাতে বরিশালটাইমসকে নিশ্চিত করেন কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নুরুল ইসলাম।

ওসি বলেন, সম্প্রতি শিক্ষক নির্যাতনের একটি ভিডিও ফুটেজ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে। এক মিনিট সাত সেকেন্ডের ওই ভিডিওতে দেখা যায়, শিক্ষক সজল কান ধরে দাঁড়িয়ে আছেন। পাশ থেকে একজন তাকে ‘ছাত্রীকে বেশি নম্বর পাইয়ে দেওয়ার প্রলোভন দেখিয়ে অবৈধ প্রস্তাব না দেওয়ার’ শপথ করান। পাশপাশি আরও একটি ছবিও ভাইরাল হয়েছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। তাতে দেখা যায়, বোরকা পরা এক নারীর পা ধরে বসে আছেন শিক্ষক সজল।

এই পুলিশ কর্মকর্তা বলেন, গত ২৫ অগাস্ট এ ঘটনা ঘটলেও লাঞ্ছনার শিকার মিজানুর রহমান সজল পুলিশকে অবহিত করেননি। তিনি বরিশাল থেকে গ্রামের বাড়ি পটুয়াখালীর বাউফলে চলে যান। মঙ্গলবার তাকে থানায় ডেকে মামলা নেওয়া হয়। মামলায় ইমতিয়াজ ইমন নামে একজনসহ আরও আটজনকে অজ্ঞাতনামা আসামি করা হয়েছে।
তাদের গ্রেপ্তারে অভিযান চলছে বলে জানান ওসি।

ভুক্তভোগী শিকার শিক্ষক সজলের বরিশালটাইমসের কাছে অভিযোগ করেন, ২০১৮ সালে চাকরি ছাড়ার আগে ওই কলেজের শিক্ষার্থী ইমন ও তার স্ত্রী মনিরা আক্তারের সঙ্গে সজলের বিরোধ বাধে। তারা শিক্ষকদের সম্মান না দেওয়াসহ পড়াশোনায় অমনোযোগী এবং ঠিকভাবে ক্লাস না করেও তারা পরীক্ষায় ভাল নম্বর চাইতেন। তা দিতে রাজি না হওয়ায় ইমন আমার ওপর ক্ষিপ্ত হন। এবং গত ২৫ অগাস্ট দুপুরে বরিশাল শহরের হাতেম আলী কলেজ চৌমাথা এলাকা থেকে আমাকে অপহরণ করেন ইমনসহ কয়েকজন। প্রথমে অক্সফোর্ড মিশন রোড ও পরে গোরস্থান রোড এলাকায় নিয়ে কয়েক দফায় মারধর করা হয়।

শিক্ষক নির্যাতনের বর্ণনা দিয়ে জানান, এরপর কান ধরিয়ে উঠ-বস করানো শেষে জীবননাশের হুমকি দিয়ে তাদের শিখিয়ে দেওয়া কথা বলতে বাধ্য করে। এবং তা মোবাইল ফোনে ভিডিও ধারণ করে রাখাসহ তাকে ইমনের স্ত্রী মনিরা আক্তারের পা ধরতেও বাধ্য করে।

তবে ইমন সাংবাদিকদের কাছে দাবি করেছে, শিক্ষক সজলের চরিত্র ভাল না, তিনি জমজম নার্সিং কলেজে থাকাকালে একাধিক মেয়েকে কুপ্রস্তাব দেন। আমি এর প্রতিবাদ করায় আমার স্ত্রীকে পরীক্ষায় অকৃতকার্য করিয়ে দিয়ে প্রতিশোধ নেন। শিক্ষক হয়ে যেন ভবিষ্যতে আর কোনো নারীকে অবৈধ প্রস্তাব না দেন এই মর্মে মুচলেকা রাখতে গেলে তিনি নিজেই কান ধরেন। এসময় তাকে কোন মারধর করা হয়নি। তাছাড়া কারা ভিডিও ছড়িয়েছে এ ব্যাপারে তিনি কিছু জানেন না বলে দাবি রাখেন।’

বরিশালের খবর

আপনার মতামত লিখুন :

 

এই বিভাগের অারও সংবাদ
ভারপ্রাপ্ত-সম্পাদকঃ শাকিব বিপ্লব
© কপিরাইট বরিশালটাইমস ২০১২-২০১৮ | বরিশালটাইমস.কম
বরিশালটাইমস লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান।
শাহ মার্কেট (তৃতীয় তলা),
৩৫ হেমায়েত উদ্দিন (গির্জা মহল্লা) সড়ক, বরিশাল ৮২০০।
ফোন: ০৪৩১-৬৪৮০৭, মোবাইল: ০১৮৭৬৮৩৪৭৫৪
ই-মেইল: [email protected], [email protected]
© কপিরাইট বরিশালটাইমস ২০১২-২০১৮
টপ
  বরিশালের ৫ ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের চেয়ারম্যান প্রার্থী যারা...  রাজপুরে র‌্যাবে অভিযানে ধারালো অস্ত্রসহ সন্ত্রাসী গ্রেপ্তার  টুঙ্গিপাড়া জাতির জনকের মাজার জিয়ারত করলেন বাংলাদেশ-ভারত মৈত্রী সমিতি  ঝালকাঠিতে শিক্ষক সমিতির জেলা শাখার পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন  পায়রা সেতু নামকরণ হবে ‘শেখ হাসিনা সেতু’  ভিপি নুরের বিরুদ্ধে করা দুটি মামলা বরিশালে প্রত্যাহার দাবি  ঝালকাঠিতে সাংবাদিকদের ঐক্য, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে স্মারকলিপি  পদ্মা সেতুকে ঘিরে বরিশালে বিনিয়োগের ডালা খুলছে  তজুমদ্দিনে বিয়ে বাড়িতে খাবারে নেশা মিশিয়ে স্বর্ণালংকার চুরি, ৬ জন হাসপাতালে  ভান্ডারিয়ায় মুন্ডহীন লাশ উদ্ধার