২৪শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, শুক্রবার

শেবাচিমে ভুল চিকিৎসায় শিশুর মৃত্যুতে তোলপাড়

বরিশাল টাইমস রিপোর্ট

প্রকাশিত: ১১:৪৬ পূর্বাহ্ণ, ২৫ জুন ২০১৭

বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ (শেবাচিম) হাসপাতালে অপারেশনকালে নবজাতকে মেরে ফেলার অভিযোগ উঠেছে চিকিৎসকদের বিরুদ্ধে। শনিবার (২৪ জুন) রাত সাড়ে দশটায় অপারেশনের মাধ্যমে ডেলিভারির সময় নবজাতকের মাথায় আঘাত লাগে।

চিকিৎসকরা স্বজনদের কাছ থেকে মুচলেকা নিতে চাইলে পরবর্তীতে চিকিৎসকরা রুমে তালা লাগিয়ে সটকে পড়েন। ননবজাতকের মা ইয়ানুর বেগম (২৫) পটুয়াখালী জেলার গলাচিপা উপজেলার ছোট বাইজদী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষিকা। তার স্বামী সাদাত হোসেন বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রকল্প পরিচালকের ব্যক্তিগত সহকারী।
মৃত নবজাতকের দাদীমা ফ্লোয়ারা সুলতানা বরিশালটাইমসকে বলেন, তার পুত্রবধূর সন্তান প্রসবের জন্য শনিবার সকাল দশটায় গলাচিপা থেকে বরিশাল শের-ই বাংলা চিকিৎসা মহাবিদ্যালয় হাসপাতালে ভর্তি হন। চিকিৎসকরা রোগীর অবস্থা দেখে বলেন, অপারেশন করতে হবেনা ডেলিভারী নরমল হবে। রাত সাড়ে দশটার দিকে ওটিতে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসকরা বলেন স্বাভাবিক প্রসব হবে।

কিন্তু আধা ঘন্টা পর দেখি শিশুটির মাথার পিছনে কাটা এবং সেলাই করা অবস্থায় আমাদের কাছে রেখে যায়। এসময় ডাক্তাররা আমাদের কাছে লিখিত নিতে চাইলে প্রতিবাদ করার পর তারা চলে যান।

এনিয়ে হাসপাতালের পরিচালক ডা.এসএম সিরাজুল ইসলাম বরিশালটাইমসকে বলেন, অপারেশন থিয়েটারে কেবল ইন্টার্নী নয়; ওই বিভাগের প্রধান তিনিও ছিলেন। শিশুটির মাথায় সেলাইয়ের চিহ্ন নয়, ওটা ক্যাপুট। অর্থাৎ মাথা ফোলা থাকায় পরবর্তীতে স্বাভাবিক হলে চামড়ার ভাঁজ থেকে যায়। তিনি আরো বলেন, চিকিৎসকদের কোন ভুল ছিলনা।”

11 বার নিউজটি শেয়ার হয়েছে
  • ফেইসবুক শেয়ার করুন