২৩শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, মঙ্গলবার

শেবাচিম হাসপাতালে রোগীর স্বজনের হাতে চিকিৎসক লাঞ্ছিত

বরিশাল টাইমস রিপোর্ট

প্রকাশিত: ০৬:১০ অপরাহ্ণ, ১০ ডিসেম্বর ২০১৭

বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ (শেবাচিম) হাসপাতালে রোগীর স্বজনের হাতে ইন্টার্ন চিকিৎসক লাঞ্ছিত হওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এই ঘটনায় ইন্টার্ন চিকিৎসকরা রোগীর ওই স্বজনকে প্রথমে মারধর করে পরিস্থিতি উত্তপ্ত হয়ে ওঠে। তবে পরে ইন্টার্নরা ক্ষমা চাওয়ায় পরিবেশ শান্ত হয়।

রোববার (১০ ডিসেম্বর) বেলা ১টার দিকে হাসপাতালের মহিলা মেডিসিন ওয়ার্ডে এই ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, রোগীর ওই স্বজন ওষুধ নিয়ে ওয়ার্ডের ভেতরে প্রবেশ করলে ইন্টার্ন চিকিৎসক মাহাদী
তাকে বাইরে যেতে বলেন। ওই সময় চিকিৎসক ও রোগীর ওই স্বজনের মধ্যে বাকবিতণ্ডা হয়। পরে ইন্টার্ন চিকিৎসকরা রোগীর ওই স্বজনকে মারধর করেন।

হাসপাতালের ইন্টার্ন ডক্টরস অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক ডা. নাহিদ বরিশালটাইমসকে জানান, তাদের এক ইন্টার্ন চিকিৎসক রাউন্ডের আগে মহিলা মেডিসিন ওয়ার্ডের রোগীর সঙ্গে থাকা অতিরিক্ত স্বজনদের বের হয়ে যেতে বলেন। এসময় এক স্বজন বাধ সাধলে ইন্টার্ন চিকিৎসককে লাঞ্ছিত করে।

পরক্ষণে অন্য ইন্টার্ন চিকিৎসকরা গিয়ে রোগীর ওই স্বজনকে এ বিষয়ে জিজ্ঞাসা করলে তিনি অশোভন আচরণ করলে ২টি চড়-থাপ্পর দেওয়ার ঘটনা ঘটে।
ঘন ঘন রোগীর স্বজনদের সঙ্গে এ ধরনের ঘটনায় ইন্টার্ন চিকিৎসকরা পরিচালকের কার্যালয়ে যান। সেখানে পরিচালক রোগীর ভিজিটর নিয়ন্ত্রণে আনার কার্যকর পদক্ষেপ নেবেন বলে আশ্বস্ত করলে ইন্টার্নরা কর্মস্থলে ফিরে যান।

বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক ডা. মো. মুস্তাফিজুর রহমান বরিশালটাইমসকে জানান, রোগীর ভিজিটর নিয়ন্ত্রণে আনার জন্য তিনটি গেটে কিছু লোক দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

এছাড়া চিকিৎসকের রাউন্ড চলাকালে ওয়ার্ডেও ভিজিটর নিয়ন্ত্রণে রাখার চেষ্টা চলছে। আজকের ঘটনায় রোগীর ওই ভিজিটর ক্ষমা চাওয়ায় তাকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।’

8 বার নিউজটি শেয়ার হয়েছে
  • ফেইসবুক শেয়ার করুন