১০ মিনিট আগের আপডেট বিকাল ২:৪৬ ; মঙ্গলবার ; আগস্ট ৪, ২০২০
EN Download App
Youtube google+ twitter facebook
×

সম্ভাবনাময়ী নারী নেত্রী ডা. মনীষার রাজনৈতিক ভবিষ্যতের মৃত্যু ঘটতে চলছে !

ষ্পেশাল করেসপন্ডেন্ট
১২:৪৬ পূর্বাহ্ণ, জুলাই ১৯, ২০২০

আসাদুজ্জামান:: সরকারি বরিশাল কলেজের নামকরণ নিয়ে একটি মহলের পক্ষে অবস্থান নেওয়ার কারণে উদীয়মান সার্বজনীন নারী নেত্রীর সম্ভাবনার মৃত্যু ঘটেছে। সম্ভাবনাময়ী নারী নেত্রীর নাম ডাঃ মনীষা চক্রবর্তী। মহাত্মা অশ্বিনী কুমার দত্তের নামে, সরকারি বরিশাল কলেজের নামকরণের জন্য চুপিসারে সুশীল সমাজের ব্যানারে কয়েক ব্যক্তির দাবির প্রেক্ষিতে বরিশাল কলেজের নতুন নাম করার প্রস্তাবনা পাঠানো হয়েছিল। সেই অনুযায়ী তদন্ত ও শিক্ষাবোর্ড চেয়ারম্যান কর্তৃক প্রতিবেদন চাওয়া হয়েছিল।

ঘটনাটি জানাজানি হলে ইতিহাস ঐতিহ্য’র বরিশালে, কলেজের সাবেক ও বর্তমান ছাত্ররা নাম অপরিবর্তিত রাখার পক্ষে আন্দোলনে নামে। সেই আন্দোলন মোকাবেলা করতে সুশীল সমাজের ব্যানারে আন্দোলনের প্রস্তুতি নেয় কতিপয় জনবিচ্ছিন্ন সুশীল ব্যক্তিরা। তাদের পক্ষে কোনো জনসমর্থন না পেয়ে ৯০ ভাগ মানুষের মতের বিরুদ্ধে গিয়ে টাউন হলের সামনে মানববন্ধনে বাসদ নেত্রী ডাঃ মনীষা চক্রবর্তীর কয়েকজন বাসদ নেতাকর্মী ও রিক্সা, ভ্যান, অটো চালকদের সাথে কোমলমতি শিশুদের যুক্ত করা হয়।

এর পূর্বে ১০১ সদস্য বিশিষ্ট একটি কমিটি করার ঘোষনা দেওয়া হয়। অশ্বিনী কুমার দত্তের নামে নামকরনের সমর্থনে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে গিয়ে দেখা যায়, ১০১ জনের মধ্যে বরিশালে কট্টর হিন্দুত্ববাদী এন্ট্রি আওয়ামী সেন্টিমেন্টের স্বগোত্রীয় ৪/৫ জন ব্যক্তির সাথে আরও ২ জন সুশীল সমাজের ব্যানারে দাড়িয়েছেন। আর ডাঃ মনীষা চক্রবর্তী তার রিক্সা, ভ্যান, শ্রমিক ও শিশুদের নিয়ে আন্দোলন জোরদার করার চেষ্টা করছেন।

এদিকে বরিশাল কলেজের সাবেক ও বর্তমান ছাত্রদের সাথে আন্দোলনে যুক্ত হয়েছে বরিশালের সব শ্রেণি পেশার মানুষ। গণস্বাক্ষর কর্মসূচিতে হাজার হাজার মানুষ স্বাক্ষর করছেন। এনিয়ে বরিশালে বর্তমানে আলোচনার কেন্দ্র বিন্দু চলছে।

সিটি নির্বাচনের পরে ডাঃ মনীষা চক্রবর্তীকে সার্বজনীন লোক হিসেবে হিন্দু-মুসলিম-বৌদ্ধ-খ্রীষ্টানসহ সকল জাতির লোকজন স্নেহ সুলভ চোখে দেখে আসছিলেন। কিন্তু অশ্বিনী কুমার দত্তের নামে কলেজের নামকরণের আন্দোলনে স্বগোত্রীয় নিয়ে ঝাপিয়ে পড়ায় বরিশালে ডাঃ মনীষা চক্রবর্তীর সার্বজনীন গ্রহণযোগ্যতা নিমেষেই শূন্যের কোঠায় চলে আসে। তাকে সার্বজনীন নেতা হিসাবে না দেখে এখন হিন্দু স্বগোত্রীয় নেতা এবং সুশীল বলে আখ্যা দিয়েছে অনেকে।

সম্প্রতি করোনা মহামারীতে মাস্ক বিতরণ, মানবতার বাজার, ফ্রি এ্যাম্বুলেন্স সার্ভিস দিয়ে সার্বজনীন হিসেবে মানুষের অন্তরে তিনি যতটুকু জায়গা করেছিলেন তা নিমেষেই ম্লান হয়ে গিয়েছে। বরিশালে উদীয়মান এক রাজনৈতিক ও সমাজসেবক হিসাবে পরিচিত হওয়ার প্রাক্কালে সার্বজনীন মনীষা চক্রবর্তীর চরম গোত্রপ্রীতির কারনে অতি অল্প সময়ে মানুষের হৃদয়ে স্থান করে নেয়া সম্ভাবনার নারী নেত্রী মনীষা চক্রবর্তীর পথচলার মৃত্যু ঘটেছে বলে দাবী করেছেন সিংহভাগ মানুষ।

তার চরম গোত্রপ্রীতি বরিশালের আবহমান পরিবেশকে অনেকটা ঘোলাটে করেছে। শুধু তাই নয়, বরিশাল মিডিয়া পাড়ায় মনীষার ছোট ছোট প্রোগ্রামকে যারা বড় হরফে ছাপিয়ে মনীষাকে উৎসাহিত করতেন, এখন তারাই বিতর্কিত মনীষা চক্রবর্তী বলে সংবাদ প্রকাশ করছেন। এভাবে অনেকেই অন্তর থেকে মনীষাকে দূরে ঠেলে দিয়েছেন। অনেকেই বলছেন জন বিচ্ছিন্ন কয়েকজন সুশীল নেতা ডাঃ মনীষার অগ্রযাত্রাকে আগামী তিন যুগের ব্যাকফুটে ঠেলে দিয়েছেন।

জনবিচ্ছিন্ন কয়েকজনের কৌশলী ভূমিকায় মনীষার রাজপথে নামা এবং স্বার্থ হাসিলের জন্য শিক্ষা-প্রতিষ্ঠানের দাবির আন্দোলনে রিক্সা চালক, অটোচালক ও শিশুদের নিয়ে রাস্তায় দাড়িয়ে আন্দোলন করায় বরিশালের আপামর মানুষের মধ্যে চরম ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। এক সময় যারা মনীষা চক্রবর্তীর প্রশংসায় পঞ্চমুখ ছিল, এখন তারাই পিছনে বসে ডাঃ মনীষাকে ভৎসনা করছেন। গুটি কয়েক মানুষের কারণে মনীষার বাস্তবরুপ সর্বমহলে রুপায়িত হয়েছে।

এদিকে সরকারি বরিশাল কলেজের নাম অপরিবর্তিত রাখার পক্ষে শতকরা ৯০ ভাগ মানুষ পর্যায়ক্রমে কলেজ ছাত্রদের সাথে মাঠে নামতে শুরু করেছে। গতকাল ইসলামী শাসনতন্ত্র ছাত্র আন্দোলন, বরিশাল কলেজের ছাত্রদের সাথে একাত্মতা প্রকাশ করে সদর রোডে মানববন্ধন করেছেন। আরও বিভিন্ন সংগঠন একাত্মতা ঘোষণা করবে বলে জানা গেছে। তাই অনেকে বলছেন সার্বজনীন নেত্রী থেকে ডাঃ মনীষা চক্রবর্তী এখন গোত্রীয় নেত্রী ও সুশীল হিসাবে পরিচিতি লাভ করেছেন।

সিংহভাগ মানুষ মনে করছেন ডাঃ মনীষা চক্রবর্তী সার্বজনীন মানুষ ছিলেন। সেখান থেকে সরে আসায় বরিশালে সার্বজনীন সম্ভাবনার মনীষা চক্রবর্তীর পথচলা ও ভূতপূর্ব আচরনের মৃত্যু ঘটেছে। যারা মনীষা চক্রবর্তীকে এই আন্দোলনে যুক্ত করেছেন তারা মনীষা চক্রবর্তীর অগ্রযাত্রাকে ভালো চোখে দেখেছেন কিনা তা নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন অনেকে।

কলাম

আপনার মতামত লিখুন :

 

সম্পাদক : হাসিবুল ইসলাম
© কপিরাইট বরিশালটাইমস ২০১২-২০১৮ | বরিশালটাইমস.কম
বরিশালটাইমস লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান।
শাহ মার্কেট (তৃতীয় তলা),
৩৫ হেমায়েত উদ্দিন (গির্জা মহল্লা) সড়ক, বরিশাল ৮২০০।
ফোন: ০৪৩১-৬৪৮০৭, মোবাইল: ০১৮৭৬৮৩৪৭৫৪
ই-মেইল: [email protected], [email protected]
© কপিরাইট বরিশালটাইমস ২০১২-২০১৮
টপ
  ববি উপাচার্যের জন্মদিনে বিভিন্ন মহলের শুভেচ্ছা  মসজিদের মাইকে আজান দেওয়ায় মুয়াজ্জিনকে আ’লীগ নেতার মারধর  প্রবল গতিতে ধেয়ে আসছে হ্যারিকেন ‘ইসাইয়াস’  সমুদ্রবন্দরে ৩ নম্বর সতর্ক সংকেত, বরিশালে ঝড়ের আশঙ্কা  বিশ্ব রেকর্ড গড়লেন বরিশাল বিএম কলেজছাত্র জুবায়ের  মর্মান্তিক: পটুয়াখালীর বাউফলে পানিতে ডুবে তিন বোনের মৃত্যু  সাহান আরা আব্দুল্লাহ’র কবর জিয়ারত করলেন কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ সভাপতি  শাশুড়ির সহযোগিতায় গৃহবধূকে ধর্ষণ, পাঁচদিনেও মামলা নেয়নি পুলিশ  হিজলায় একই পরিবারের ৮ জনকে কুপিয়ে জখম, থানায় মামলা  মঠবাড়িয়ায় প্রতিপক্ষের হামলায় একই পরিবারের ৪ জন আহত