২৩শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, মঙ্গলবার

সাংবাদিককে প্রাণনাশের হুমকি দিলেন আ’লীগ নেতা

বরিশাল টাইমস রিপোর্ট

প্রকাশিত: ০৬:০০ অপরাহ্ণ, ১৩ নভেম্বর ২০১৭

পটুয়াখালী জেলার চরাঞ্চলের কৃষি জমি দখল ও লবণ পানি ঢুকিয়ে মাছ চাষ করে আসছে এমন সংবাদের জের ধরে এক সংবাদকর্মীকে প্রাণনাশের হুমকি দেয়া হয়েছে। রাঙ্গাবালী উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ও জেলা পরিষদের সদস্য একে শামসুদ্দিন আবু মিয়া ওরফে মাইজ্জা ভাই রোববার রাতে মোবাইল ফোনের ওই সাংবাদিকে অকথ্য ভাষায় গালমন্দসহ প্রাণনাশের হুমকি দিয়ে থাকেন। এই মর্মে নিরাপত্তার জন্য নয়াদিগন্ত পত্রিকার রাঙ্গাবালী উপজেলা প্রতিনিধি মু. জাবির হোসেন সংশ্লিষ্ট থানায় সোমবার একটি সাধারণ ডায়েরি করেছেন।

খোঁজখবর নিয়ে জানা গেছে- সরকার কর্তৃক কৃষি জমি বিনষ্ট করা যাবেনা এমন নিষেজ্ঞা থাকলেও পটুয়াখালী জেলার চরাঞ্চলের একাধিক কৃষকের কৃষি জমি দখল করে স্থানীয় প্রভাবশালী ও ক্ষমতাসীন দলের নেতারা লবণপানি প্রবেশ বাগদা ও গলদার মাছ চাষ করে আসছে। এমন অভিযোগের ভিত্তিতে বেশ কয়ে পত্রিকায় এবং টেলিভিশনে সংবাদ প্রকাশ করা হয়। এরই ধারাবাহিকতায় গত ১২ নভেম্বর দৈনিক নয়াদিগন্ত পত্রিকায় “পটুয়াখালীর চরে কৃষিজমিতে প্রভাবশালীদের মাছের ঘের’’ শিরোনামে সংবাদ প্রকাশিত হয়।

এই সংবাদের ক্ষুব্ধ হয়ে রোববার বিকালে রাঙ্গাবালী প্রেসক্লাবের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক, নায়াদিগন্তের সাংবাদিক মু. জাবির হোসেনের ব্যবহারীত মোবাইল ফোলে পটুয়াখালী জেলা পরিষদের সদস্য ও রাঙ্গাবালী উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি একে শামসুদ্দিন আবু মিয়া ওরফে মাইজ্জা ভাই তার নিজ মোবাইল ০১৭১৫৩১২৬৬৭ থেকে ফোন করে ওই প্রতিনিধিকে অকথ্য ভাষায় গালমন্দসহ প্রাণনাশের হুমকি দিয়ে থাকেন।

যে কথোপকথন সংরক্ষিত আছে। এসময় ওই আওয়ামী নেতা বলেন “তুই আমার নামে নিউজ করছ আমারে জিগাইছো, আমি আইতে আছি, কাইল তোরে পামু কই, আমার বিরুদ্ধে নিউজ করার সাহস তুই পাইলি কই, তুই কেডা আমার নামে নিউজ করছ ব্যাডা আয়, আমারে চিননাই আমি কত ভয়ঙ্কর, পাড়াইয়া প্যাডের গু বাইর কর্ইরা হালামু। তুই মোরে চেননায় হালাপো”।

এই বলে লাইনটি কেটে দেন। পরে ওই সাংবাদিক রাঙ্গাবালী থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন এবং বিষয়টি উর্ধ্বতন মহলে আলাপ করেন।

এ ব্যাপারে রাঙ্গাবালী থানার অফিসার ইনর্চাজ মিলন কৃষ্ণ মিত্র বরিশালটাইমসকে বলেন- এ ঘটনায় থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করা হয়েছে।

অভিযুক্ত আওয়ামী নেতা আবু মিয়া বরিশালটাইমসকে জানান- আমি উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আর অরা জামায়াত কইরা আমার বিরুদ্ধে নিউজ করে। আমার চৌদ্দ গুষ্টি আওয়ামী লীগ করে। আমিও জিডি করছি।’’

6 বার নিউজটি শেয়ার হয়েছে
  • ফেইসবুক শেয়ার করুন