৩ ঘণ্টা আগের আপডেট রাত ১০:৫০ ; শনিবার ; ফেব্রুয়ারি ২৪, ২০২৪
EN Download App
Youtube google+ twitter facebook
×

সেই ধর্ষিতা শিক্ষিকার বাড়িতে পুলিশ মোতায়েন, তবুও আতঙ্ক

বরিশালটাইমস রিপোর্ট
১০:১৩ অপরাহ্ণ, আগস্ট ২৭, ২০১৭

বরগুনার বেতাগীতে শ্রেণিকক্ষে শিক্ষিকাকে গণধর্ষণের ঘটনায় মামলার ১১ দিন অতিবাহিত হলেও এখনও অধরা রয়েছে তিন জন মূল আসামি। সেই শিক্ষিকার বাড়িতে তিন জন পুলিশ সদস্য পাহারা বসালেও আতঙ্ক কাটেনি ভুক্তভোগী পরিবারের। ঘটনার প্রধান অভিযুক্ত আসামি সুমন বিশ্বাসকে লক্ষীপুর জেলা থেকে গ্রেপ্তার করলেও মূল ৩ আসামি অধরা থাকাকে রহস্যজনক বলে মনে করছেন স্থানীয়রা।

অধরা রয়ে যাওয়া আসামিরা হলেন- আবদুল হাকিমের ছেলে রাসেল, দুলালের ছেলে রেজাউল ও কুদ্দুস কাজীর ছেলে সুমন কাজী। মূল আসামি সুমন বিশ্বাসসহ সকলেরই দলীয় কোনো পদ-পদবি না থাকলেও ক্ষমতাসীন দলের সমর্থক হিসেবে এদের বিভিন্ন সময়ে দেখা গেছে বলে জানা গেছে।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা বেতাগী থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো. হুমায়ুন কবির রোববার (২৭ আগস্ট) এ প্রতিবেদককে বলেন, গত বৃহস্পতিবার আসামি হাসান রবিউল ও জুয়েল কাজীর ৩ দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর হলেও এখন পর্যন্ত থানায় আনা হয়নি। প্রধান আসামির রিমান্ড মঞ্জুর হলে সোমবার একত্রে তাদেরকে মুখোমুখি করা হতে পারে।

ইতোমধ্যে ৭ জনকে গ্রেপ্তার করলেও মূল আসামি ৩ জন অধরার বিষয়ে জানতে চাইলে বেতাগী থানার অফিসার ইনচার্জ মামুন-অর-রশিদ বলেন, আমাদের চেষ্টা অব্যাহত আছে। যে ভাবেই হোক আমরা সকল আসামিকে গ্রেপ্তার করবো। পরিবারের আতংকের কোনো কারণ নেই। ১৭ আগস্ট ঘটনার পরের দিন থেকেই ২৪ ঘণ্টা পালাক্রমে ৩ সদস্যের পুলিশি পাহাড়া দেওয়া হয়েছে।

এদিকে মাদকসেবী সুমন থেকে রামদা সুমন হয়ে যাওয়া কুখ্যাত সন্ত্রাসীকে গ্রেপ্তারে স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলেছে এলাকাবাসী। স্থানীয়রা অভিযোগ করে জানান, সুমন বিশ্বাসের চাচাতো ভাই ইউপি মেম্বার মন্টু বিশ্বাসের ক্যাডার বাহিনী হিসেবে গড়ে উঠা সুমন বাহিনী বেতাগীর হোসনাবাদ ইউনিয়নের কদমতলায় এক আতংকের নাম। মেম্বার মন্টু বিশ্বাসেরও দলীয় কোনো পদ-পদবী না থকলেও তিনি আওয়ামী লীগেরই লোক হিসেবে পরিচিত।

সুমন বিশ্বাস লক্ষীপুরের শ্বশুর বাড়িতে থাকতো। ইউপি নির্বাচনকে কেন্দ্র করে তাকে বাড়িতে ফিরিয়ে আনে মন্টু বিশ্বাস। সেই থেকে প্রকাশ্যে রামদা নিয়ে মহড়া দেয় সে। নির্বাচনে স্থানীয় ইউপি মেম্বার মন্টু বিশ্বাসের পক্ষে কাজ করে সুমন। একটি সালিশকে কেন্দ্র করে সুমন ইউপি চেয়ারম্যান মাকসুদুর রহমান ফোরকানকে হত্যার হুমকি দেয়। একই এলাকার কলেজ ছাত্র ইমন জোমাদ্দারকে বেদম মারধর করার অভিযোগ পাওয়া যায় তার বিরুদ্ধে। পরে মামলা করতে গেলে প্রাণনাশের হুমকি দেয় সুমন। শিক্ষার্থীদের উত্ত্যক্ত করার প্রতিবাদে ওই স্কুলের প্রধান শিক্ষকের ছেলেকে মরিচের গুরা ছিটিয়ে দেয়ারও অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধে।

অধরা সহযোগীদের বিরুদ্ধে স্থানীয় এক কিশোরীকে ধর্ষণ, চাঁদাবাজি, বিবাহ অনুষ্ঠানে রামদা নিয়ে হামলাসহ বিভিন্ন অপরাধের অভিযোগ রয়েছে। আর এসব ঘটনার বিচার চাইতেও সাহস পায়নি ভুক্তভোগীরা। পার্শ্ববর্তী ইউনিয়ন মোকামিয়ার ৪নম্বর ওয়ার্ড মেম্বার দেলোয়ার হোসেন সাংবাদিকদের বলেন, মাস তিনেক আগে তার এলাকায় ফোরকান হোসেনের ছেলে সৌরভকে তুচ্ছ ঘটনার জেরে কুপিয়ে আহত করে সুমন। এত কিছুর পরেও সুমনের বিরুদ্ধে থানায় কোনো মামলা নেই।

বর্তমানে ধর্ষণ মামলা ছাড়া একটি মাত্র মামলা রয়েছে তার বিরুদ্ধে। এদিকে শিক্ষিকার স্বামী ঘটনার পরের দিনই ভারতে চলে গেছেন। এখন পর্যন্ত স্ত্রীর সঙ্গে যোগাযোগ হয়নি বলে জানান ভুক্তভোগী শিক্ষিকা।

এতে হামলাকারীদের ভয়ে আতঙ্ক এবং সেই সাথে দাম্পত্য জীবন নিয়েও শঙ্কায় রয়েছেন তিনি।”

বরগুনা

আপনার ত লিখুন :

 
ভারপ্রাপ্ত-সম্পাদকঃ শাকিব বিপ্লব
© কপিরাইট বরিশালটাইমস ২০১২-২০১৮ | বরিশালটাইমস.কম
বরিশালটাইমস মিডিয়া লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান।
ইসরাফিল ভিলা (তৃতীয় তলা), ফলপট্টি রোড, বরিশাল ৮২০০।
ফোন: +৮৮০২৪৭৮৮৩০৫৪৫, মোবাইল: ০১৮৭৬৮৩৪৭৫৪
ই-মেইল: barishaltimes@gmail.com, bslhasib@gmail.com
© কপিরাইট বরিশালটাইমস ২০১২-২০১৮
টপ
  মিউজিক বক্সে সংযোগ দিতে গিয়ে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে স্কুল ছাত্রের মৃত্যু  ভান্ডারিয়ায় স্মার্ট কার্ড বিতরণ উদ্বোধন  শ্বশুরবাড়ির পাশে জামাইয়ের লাশ, স্ত্রীসহ গ্রেপ্তার ৫  বরগুনা হাসপাতালে এনআইসিইউ বিভাগ উদ্বোধন  গ্রিসে বৈধতা পেলেন ৩ হাজার ৪০৫ বাংলাদেশি  কুবি কোষাধ্যক্ষের বিরুদ্ধে আদালতে ভাঙচুর ও গরু লুটের মামলা  বরিশালে রেস্টুরেন্টে অগ্নিকাণ্ড  এলাকার উন্নয়ন আমরা ঐক্যবদ্ধভাবে করব: মহিউদ্দিন মহারাজ এমপি  গরুসহ ৪ ছাগল পুড়ে ছাই, শোকে কৃষকের মৃত্যু  জার্মানিতে বৈধ হলো গাঁজা, সর্বোচ্চ বহন করা যাবে ২৫ গ্রাম