২৯শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, বুধবার

হিজলায় সংঘর্ষের ঘটনায় বৃদ্ধার মৃত্যু

বিশেষ প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ০৭:৫৩ অপরাহ্ণ, ২৩ অক্টোবর ২০২১

হিজলা প্রতিনিধি >>  বরিশালের হিজলা উপজেলায় সংঘর্ষের জেড়ে এক বৃদ্ধের মৃত্যুর অভিযোগ পাওয়া যায়।

উপজেলার হিজলা গৌরবদী ইউনিয়নে মান্দ্রা বাজার সংলগ্ন চরকুশরিয়া গ্রামে গত ১০ ই অক্টোবর ছাগলে গাছ খাওয়াকে কেন্দ্র করে আনোয়ার মোল্লা ও পাশের বাড়ির জাকির জমাদ্দারের পরিবারের মধ্যে ঝগড়া বিবাদ হয়। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে কাঞ্চন জমাদ্দার গ্রুপ আনোয়ার মোল্লা ও গনি মোল্লা,সবুজ মোল্লাকে গুরুতর মারপিঠ করে।এই ঘটনার জেড়ে কাসেম মোল্লার ছেলে গনি মোল্লার মৃত্যু হয়েছে অভিযোগ ওঠে।

এ ঘটনায় নিহত গনি মোল্লার ছেলে মোঃ হোসেন জানায় ওই দিন জাকির জমাদ্দার,কাঞ্চন জমাদ্দার,জাকির,রুবেল জমাদ্দার,সেলিম জমাদ্দার,সোহেল জমাদ্দার,মিলন জমাদ্দার, রিয়াজ জমাদ্দার, ফারুক জমাদ্দার সহ ১০/১৫ মিলে আমার চাচা আনোয়ার মোল্লাকে মান্দ্রা বাজারে খবর দিয়ে এনে বেদম মারপিঠ করে। তখন আনোয়ার মোল্লাকে বাচাতে এগিয়ে আসে তার বড় ভাই গনি মোল্লা (৬০)। তখন কাঞ্চন জমাদ্দার বাহিনী আমার বাবা গনি মোল্লাকে এলোপাতারী মারপিট করে। এতে গনি মোল্লা আহত হলে স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা করি। আমার বাবার অবস্থার অবনতি দেখে হিজলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্স ভর্তি করি। হিজলা স্বাস্থ্যকমপেক্সে অবস্থার উন্নতি না দেখে উন্নত চিকিৎসার জন্য কর্মরত চিকিৎসকরা অন্যত্র নিয়ে যাওয়ার পরামর্শ দেন।অর্থ অভাবে উন্নত চিকিৎসা না করে বাড়িতে নিয়ে যাওয়ার পথে আমার বাবার মৃত্যু হয়।

ইব্রাহিম মাঝির স্ত্রী জানায় অসুস্থ গনি মোল্লাকে হাসপাতাল থেকে বাড়ি নিয়ে আসা পথে আমাদের বাড়ির সামনে তার মৃত্যু হয়।তবে শুনেছি সেদিন মান্দ্রা বাজারে গনি মোল্লাকে মারপিঠ করে।তখনি তিনি অসুস্থ হয়ে পড়ে।

হিজলা থানা পুলিশ তৎক্ষনিক গনি মোল্লা লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য বরিশাল সেবাচিম প্রেরন করে।

এ বিষয়ে হিজলা থানার পুলিশ পরিদর্শক মোঃ ইউনুস মিয়া বলেন তবে মারধরের বিষয়টি শুনেছি, ময়না তদন্তের রির্পোট পেলে আইনুগ ব্যবস্থা নিব।

11 বার নিউজটি শেয়ার হয়েছে
  • ফেইসবুক শেয়ার করুন