২৪শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, শুক্রবার

হিন্দুধর্ম ত্যাগ করে পুরো পরিবারের ইসলাম ধর্মগ্রহণ

বরিশাল টাইমস রিপোর্ট

প্রকাশিত: ১০:৩২ অপরাহ্ণ, ২২ মে ২০২১

শামীম হোসেন আরও বলেন- ‘কারও প্ররোচনায় প্ররোচিত না হয়ে অনেক বিশ্লেষণ করে মহাগ্রন্থ আল কুরআন পড়ে সপরিবারে ইসলাম ধর্মগ্রহণ করেছি।’

নিজস্ব প্রতিবেদক, বরিশাল >> রাজশাহীর বোয়ালিয়া থানা এলাকার একটি পরিবারের সবাই হিন্দু ধর্ম পরিত্যাগ করে স্বেচ্ছায় ইসলাম ধর্মগ্রহণ করেছেন। গত বৃহস্পতিবার (২০ মে) তারা রাজশাহীর নোটারি পাবলিক কার্যালয়ে হাজির হয়ে হিন্দু সনাতন ধর্ম পরিবর্তন করে ইসলাম ধর্মগ্রহণ করেন। তাদের ২ নাবালকের পক্ষে হলফকারী শিশুর বাবা শ্যামল কুমার সরকার।

সংশ্লিষ্ট সূত্র থেকে জানা গেছে, রাজশাহী নগরীর বোয়ালীয়া থানার সাগড়পাড়া এলাকার মৃত সরজ চন্দ্র সরকারের ছেলে শ্যামল কুমার সরকার (২১) এবং তার স্ত্রী প্রিয়া সরকার (২০), তাদের দুই সন্তান, বিশ্বজিৎ সরকার ও রজিৎ সরকার ইসলাম ধর্মগ্রহণ করেছেন। সনাতন ধর্ম পরিবর্তন করে শ্যামল কুমার সরকারের নাম পরিবর্তন করে রাখেন শামীম হোসেন, তার স্ত্রী প্রিয়া সরকার নাম রাখেন মোসা. আমেনা আক্তার প্রিয়া ও তাদের দুই সন্তান বিশ্বজিৎ সরকার নাম রাখে মো. হোসাইন আলী ও রজিৎ সরকার নাম রাখে মো. শাহাদাৎ আলী।

ইসলাম ধর্মগ্রহণের পর শ্যামল কুমার অর্থাৎ শামীম হোসেন সাংবাদিকদের বলেন, ‘আমাদের বিবেক বুদ্ধি সকল কিছু সৃষ্টিকর্তা দান করেছেন। সত্য মিথ্যা যাচাই করার ক্ষমতা দান করেছেন। কারও দেখানো পথ যদি আমি নিজে বিশ্লেষণ করে না অনুসরণ করি তাহলে সেটা হবে অন্ধবিশ্বাস। সর্বোপরি আমি দেখেছি ইসলাম শান্তির ধর্ম নেই কোনো ভেদাভেদ। এই ধর্মে সকলকে সম্মান দেওয়া হয়েছে। আর ইসলাম এমন একটি ধর্ম যেখানে সৃষ্টিকর্তার কাছে পৌঁছাতে কোনো মাধ্যমের প্রয়োজন হয় না। জীবনের সকল কিছুর সমাধান এই একটি ধর্মেই আছে।’

শামীম হোসেন আরও বলেন- ‘কারও প্ররোচনায় প্ররোচিত না হয়ে অনেক বিশ্লেষণ করে মহাগ্রন্থ আল কুরআন পড়ে সপরিবারে ইসলাম ধর্মগ্রহণ করেছি।’

এদিকে তাদের এলাকার মুসলিম জনগোষ্ঠীরা এই পরিবারকে সাদরে গ্রহণ করেছে এবং আগামীতে তাদের পুরো পরিবারকে সার্বিক সহযোগীতার আশ্বাস দিয়েছেন।’

2 বার নিউজটি শেয়ার হয়েছে
  • ফেইসবুক শেয়ার করুন