২৪শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, শুক্রবার

৬ষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রী ৭ মাসের অন্তঃসত্ত্বা!

বরিশাল টাইমস রিপোর্ট

প্রকাশিত: ০৪:৪৫ অপরাহ্ণ, ০৮ আগস্ট ২০১৭

আমতলীর চাওড়া ইউনিয়নের চন্দ্রা গ্রামে ৬ষ্ঠ শ্রেণির এক স্কুলছাত্রীকে একাধিকবার ধর্ষণের ফলে ৭ মাসের অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার অভিযোগে দুই ধর্ষক ও সহযোগীসহসহ ৪ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে। সোমবার (০৭ আগস্ট) রাতে মামলাটি দায়ের করেছেন ওই ছাত্রীর মা।

এলাকাবাসী ও আমতলী থানা সূত্রে জানা যায়, আমতলী উপজেলা চাওড়া ইউপির চন্দ্রা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে (স্কুলটি ৮ম শ্রেণি পর্যন্ত চলে) ৬ষ্ঠ শ্রেণির এক স্কুলছাত্রীকে (১৪) একই গ্রামের আবুল ভদ্দরের পুত্র মিরাজ (২০) ও মো. সাঈমুন (১৮) চলতি বছরের ১৫ জানুয়ারী ওই ছাত্রীকে বাড়ীতে একা পেয়ে জোরপূর্বক ধর্ষণ করেন। ধর্ষনের পর মেয়েটি অন্ত:সত্তা হয়ে পড়ে।

বর্তমানে তার অন্ত:সত্তার বয়স ৭মাস। বিষয়টি জানাজানি হলে এলাকার প্রভাবশালীরা সালিশ বৈঠকের নামে কালক্ষেপন করে। সোমবার সকালে আমতলী থানা পুলিশ গোপন সংবাদের ভিত্তিতে খবর পেয়ে ভিকটিম ওই মেয়েটিকে উদ্ধার করে আমতলী থানায় নিয়ে আসে।

সোমবার রাতেই ওই স্কুলছাত্রীর মা বাদী হয়ে ধর্ষক মিরাজ (২০) সাঈমুন (১৮) মিরাজের বাবা আবুল ভদ্দর (৪৫) ও বিচারের নামে কালক্ষেপন করায় এলাকার প্রভাশালী মো. শিপনকে (৩০) আসামী করে মামলা দায়ের করেন।

আমতলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. শহিদ উল্যাহ ববরিশালটাইমসকে জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিত্বে খরব পেয়ে ৭ মাসের অন্ত:সত্তা মেয়েটিকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসি।

রাতেই ছাত্রীর মা বাদী হয়ে ৪ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করে। তিনি আরও জানান, আসামীদের দ্রুত গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।”

6 বার নিউজটি শেয়ার হয়েছে
  • ফেইসবুক শেয়ার করুন