২৯শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, বুধবার

জেগে উঠছে লেবুখালী সেতু

বরিশাল টাইমস রিপোর্ট

প্রকাশিত: ১০:১৬ অপরাহ্ণ, ১৭ নভেম্বর ২০১৭

পায়রা নদীতে দেশের চতুর্থ বৃহত্তম লেবুখালী সেতুর ২০ ভাগ কাজ শেষ। দৃশ্যমান হয়েছে ১০ টি পিলার। আগামী বছরের এপ্রিলে যানচলাচলের জন্য এ সেতু খুলে দেওয়া হবে । পদ্মা সেতু হয়ে সাগর কণ্যা কুয়াকাটাকে রাজধানীর সাথে যুক্ত করবে এ সেতু।

সরেজমিনে নির্মান এলাকায় দেখা যায়, লেবুখালী সেতু নির্মাণে পায়রার পাড়ে গড়ে উঠেছে বিশাল কর্মযজ্ঞ। নদীর উভয় পাড়ে দিনরাত সমান গতিতে নির্মাণ কাজ এগিয়ে চলছে। নির্মাণ শ্রমিক ও বিদেশী প্রকৌশলীর সাথে বলে জানা যায়, নির্মাণ কাজ নির্বিঘ্ন রাখতে সরকারের পক্ষ থেকে সব ধরণের সহায়তা দেওয়া হচ্ছে।

লেবুখালী ফেরীঘাট এলাকায় যাত্রী আব্দুল জলিল বলেন, স্বপ্নের এ সেতুটি চালু হলে সহজে ঢাকায় যেতে পারবো এতে আমাদের সময় ও যোগাযোগ ব্যায় অনেক কমবে।

ঢাকা-কুয়াকাটা মহাসড়কের লেবুখালী এলাকায় পায়রা নদীতে সেতু নির্মাণ কাজ শুরু হয় ২০১৬ সালের ২৪ জুলাই। পর্যটক ও সাধারণ যাত্রীদের যোগাযোগ সহজ করতে এ সেতুর উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে বলে জানান প্রকল্প পরিচালক মো: কামরুল হাসান।

দক্ষিণাঞ্চলের সামাজিক ও অর্থনৈতিক সমৃদ্ধির ক্ষেত্রে লেবুখালী সেতু গুরুত্বপুর্ন বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের কৃষি সম্প্রসারণ ও গ্রামীণ উন্নয়ন বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. মো. ইকতিয়ার উদ্দিন বাংলাদেশ টাইমসকে বলেন, ব্রীজটির নির্মাণ কাজ শেষ হলে দক্ষিণ অঞ্চলের যোগাযোগ বিপ্লব ঘটবে। তিনি আরও বলেন, এর ফলে পণ্য পরিবহনের ক্ষেত্রে যেমন খরচ কমবে তেমনি গ্রামীণ উন্নয়নেও ভূমিকা রাখবে।

এ সেতুর নির্মাণ ব্যায় ধরা হয়েছে ১ হাজার ২২ কোটি টাকা। তৃতীয় কর্নফুলী সেতুর আদলে এক্সট্রাডোজ ক্যাবল স্টেট পদ্ধতিতে ব্রীজটি নির্মাণ করছে চীনের প্রকৌশল সংস্থা লং জিয়ন রোড অ্যান্ড ব্রীজ কনস্ট্রাকশন কোম্পানী।

16 বার নিউজটি শেয়ার হয়েছে
  • ফেইসবুক শেয়ার করুন