বার্তা পরিবেশক, মির্জাগঞ্জ:: পটুয়াখালীর বাউফলে দৈনিক প্রথম আলোর উপজেলা প্রতিনিধি এবিএম মিজানুর রহমানকে ষড়যন্ত্রমূলক একটি হত্যা মামলায় আসামি করার প্রতিবাদে মানববন্ধন পালন করা হয়েছে।
মির্জাগঞ্জ প্রেসক্লাবের আয়োজনে আজ বুধবার সকাল সাড়ে এগারোটায় প্রেসক্লাবের সামনে অনুষ্ঠিত মানববন্ধনে হয়রানিমূলক এ মামলা থেকে সাংবাদিক মিজানুর রহমানের নাম প্রত্যাহারের দাবি জানানো হয়।

একজন পেশাদার সাংবাদিককে ষড়যন্ত্রমূলক ভাবে আসামি করায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে মানববন্ধনে সাংবাদিকরা বলেন, প্রকৃত ও বস্তুনিষ্ঠ সাংবাদিকতা করতে গিয়ে সাংবাদিকেরা কোনো দল বা গ্রুপের প্রতিহিংসার শিকার হওয়া স্বাধীন সাংবাদিকতার ক্ষেত্রে বড় হুমকি। তাই অতি দ্রুত ওই মামলা থেকে সাংবাদিক মো. মিজানুর রহমান মিজানের নাম প্রত্যাহার করার দাবি জানায়।

মির্জাগঞ্জ প্রেসক্লাবের সভাপতি আনিসুর রহমানের উপস্থিতিতে মানববন্ধনে বক্তব্য দেন সাংবাদিক মোঃ জাকির হোসেন, ফারুক খান,মোঃ সামসুল হক, উত্তম গোলদার, রফিকুল ইসলাম সাদ্দাম, সোহাগ হোসেন,মোঃ কামরুজ্জামান বাধঁন।
প্রসঙ্গত: গত ২৪ মে রোববার বাউফল থানা ও জেলা পরিষদ বাংলোর সামনে একটি তোরণ নির্মাণের ঘটনাকে কেন্দ্র করে আওয়ামীলীগের দুই গ্রুপের সমার্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। ওই ঘটনায় যুবলীগের কর্মী তাপস গুরুতর আহত হন। তাঁকে বরিশালের শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজে হাসপাতালে পাঠানো হয়। সেখানে চিকিৎসারত অবস্থায় ওই দিন সন্ধ্যা সাড়ে সাতটায় তাঁর মৃত্যু হয়। এ ঘটনায় তাপসের ভাই বাদী হয়ে ৩৫ জনকে আসামি করে হত্যা মামলা করেন। এই মামলায় প্রথম আলোর বাউফল উপজেলা প্রতিনিধি মো. মিজানুর রহমানকেও আসামি করা হয়েছে।